সবকিছু কি পূর্ব নির্ধারিত?

সবকিছি কি পূর্ব নির্ধারিত কিংবা ভবিষ্যৎ কি পূর্ব নির্ধারিত?

বিষয়টি পরীক্ষা করা যাক:
আমি আগামী কাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ১০টি কাজ করব এবং তা কাগজে লিপিবদ্ধ করলাম।

আগামীকাল বিকেল ৫টার পর পরীক্ষা করে দেখা গেল সবগুলো কাজ আমার দ্বারা সম্পন্ন হয়েছে। তবে কি আমি অন্যতম ভবিষ্যৎ নির্মাতা?

ভবিষ্যৎ যদি পূর্ব নির্ধারিত হয় তবে মানুষের যাবতীয় পরিকল্পনা অর্থহীন এবং আমার এ কথা বলাটাও অর্থহীন কারন ইহাও পূর্ব নির্ধারিত!

কোন কিছুই পূর্ব নির্ধারিত নয় এই মনে করেই আমরা যাবতীয় জাগতিক কর্ম যজ্ঞে নিয়োজিত হই।

আমাদের চিন্তার স্বাধীনতা আছে, ইচ্ছের স্বাধীনতা আছে, কর্মের স্বাধীনতাও আছে ইহা স্বীকারের মাধ্যমেই আইন-আদালত-বিচারের যথার্থতা আমরা মেনে নেই।

জড় জগতে কার্য-কারন সম্পর্ক অবধারিত হিসেবেই যুক্তি ও বিজ্ঞান প্রতিষ্ঠিত।

কার্য-কারন সম্পর্ক স্বীকার করলে ভবিষ্যৎ পূর্বনির্ধারিত আমাদের স্বীকার করতে হয়। আমাদের বলতে হবে God doesn’t play dice. কিন্তু কোয়ান্টাম বলবিদ্যা অনুসারে আমাদের বলতে হয়, God plays dice.

মানুষ তার ভবিষ্যৎ নির্মাতা তার অর্থ এই মানুষ ঈশ্বরেরই ক্ষুদ্র সংস্করন!

সবকিছু পূর্ব নির্ধারিত তার অর্থ এই মানুষের চিন্তার স্বাধীনতা নেই, ইচ্ছের স্বাধীনতা নেই, কর্মের স্বাধীনতা নেই এবং জড়ের সঙ্গে তার কোন পার্থক্যও নেই!

সবকিছু পূর্ব নির্ধারিতকে মেনে নিলে পূর্ব নির্ধারক কে? অন্যভাবে বলা যায় পূর্ব নির্ধারক মহান সফ্টওয়্যারের প্রোগ্রামার কে?

যদি আমরা মনে করি সবকিছু পূর্ব নির্ধারিত নয় তবে বলতেই হয় জগত অনিশ্চয়তার নিয়মে চলে! আর অনিশ্চয়তার নিয়মে অনন্ত সংখ্যক নিয়মের আবির্ভাব ঘটে! আর কার্য-কারন নিয়মাধীন অংশেই জীবনের আবির্ভাব ঘটে আর সেই জীবনটিও অনিশ্চয়তার নিয়মে তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে চিন্তা-ইচ্ছে-কর্মে স্বাধীনতা প্রয়োগ করতে পারে এবং বলতে পারে যে , সবকিছু পূর্ব নির্ধারিত নয়! আর এক্ষনেই মানুষ নিজেই ঈশ্বরের ভূমিকায় অবতীর্ন।

মানুষই ভবিষ্যৎ দ্রষ্টা এবং ভবিষ্যৎ শ্রষ্টা। মানুষের collective consciousness ই ভবিষ্যৎ নির্মাতা।

অন্যভাবে বলা যায়, মানুষের মধ্যেই ঈশ্বরের ইচ্ছা ক্রিয়া প্রবাহমান!

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 30 = 37