শূণ্যতা ও আমি

আমি অবিরাম শূণ্যতাকে খামচে ধরে থাকি
পৃথিবী পালটায় রঙ গিরগিটির মতন প্রতিক্ষণ,একাকী
আমার ভাবনাগুলো প্রজাপতির ডানায়,পাখির কণ্ঠস্বরে
নদীর কলতানে,রোদ্রের উষ্ণতায়, বইয়ের অক্ষরে
মলিন কবিতার খাতায়,ভবঘুরে পথিকের চোখের ভাষায়
ফুলের রঙিন শরীর থেকে চুইয়ে চুইয়ে পরে নম্র আশায়
ক্রমাগত শূণ্যতার ভাড়ার থেকে মদ তুলে আনি আর মদির
তৃষ্ণার আন্দোলনে বিদ্রোহী হয়ে উঠি,অন্ধ বধির
কেউ কেউ আমাকে দেখে তর্কের তীর ছুড়ে দেয়
আমার জীবন তবু শূণ্যতাকে সাক্ষী করে যন্ত্রণার বুক থেকে প্রবল এক সুখ তুলে নেয়।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 66 = 72