ফিরে দেখা তথ্য প্রযুক্তি

বিদায়ী বছরে তথ্য প্রযুক্তিতে সাড়া জাগানো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। বিশেষ করে সংবাদ মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি ঘটিয়েছে যুগান্তকারী পরিবর্তন। খুলে গেছে অনলাইন নিউজ পেপারের দ্বার। বস্তুতপক্ষে ঘটে গেছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিস্ফোরণ। বিদায়ী বছরে তথ্য মন্ত্রণালয়ে অনলাইন নিউজ পেপারের জন্য আবেদন জমা পড়েছে এক হাজার ৭১৭টি। এই আবেদন সারাদেশে প্রকাশিত মোট দৈনিক পত্রিকার ( ৫২৭টি) তিন গুণেরও বেশি। যদিও প্রতিটি দৈনিক পত্রিকাই চলে এসেছে অনলাইন প্রচারে। এই তালিকায় দেশের ৯৩টি সাপ্তাহিক পত্রিকাও রয়েছে। ২৩টি মাসিক পত্রিকার বেশ কয়েকটি অনলাইনে প্রবেশ করেছে। সংবাদ মাধ্যমের উন্নয়নের পাশাপাশি বিদায়ী বছরে সবচেয়ে জনপ্রিয় বিষয় হচ্ছে অনলাইনে কেনাকাটা। ঘরে বসেই মানুষ যে কোন পণ্য কিনতে পারছে। একই বছরে তথ্যপ্রযুক্তিতে অর্জিত হয়েছে ‘আইসিটি ফর ডেভেলপমেন্ট এ্যাওয়ার্ড’। বছরের শেষদিন অর্জিত হয়েছে ডট বাংলা ডোমেইন। ডট বাংলা ডোমেইন চালুর মাধ্যমে আইসিটি খাতে ব্যবসার আরও প্রসার ঘটবে। উন্নত দেশগুলোর বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল প্রযুক্তির ওপর পরিপূর্ণভাবে নির্ভরশীল। দেশেও এর দ্রুত অগ্রগতি ঘটছে। ইন্টারনেটের পাশাপাশি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে খবর পৌঁছে যাচ্ছে মানুষের হাতে। বর্তমানে প্রিন্ট মিডিয়ার পাশাপশি অনলাইন মিডিয়া জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রিন্ট মিডিয়া যেখানে পৌঁছতে পারছে না অথবা পৌঁছতে অনেক সময়ের প্রয়োজন সেখানে অনলাইনে (মোবাইলে) সে খবর মুহূর্তেই পৌঁছে যাচ্ছে। অনলাইন জাতীয় হোক বা আঞ্চলিক হোক, সব ক্ষেত্রেই অবদান রেখে যাচ্ছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে, অনলাইনে কেনাকাটা। এখন মানুষ ঘরে বসেই যে কোন জিনিস কিনতে পারছে। অনলাইন পাঠক এখন সোশ্যাল মিডিয়াকে খবরের উৎস হিসেবে দেখতে শুরু করেছে। এদিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ নেটওয়ার্ক হয়ে উঠেছে ফেসবুক। অনলাইন গণমাধ্যম ডিজিটালপ্রযুক্তি ব্যবহার করে দ্রুতগতিতে সরকারের সেবামূলক কার্যক্রম জনগণের মধ্যে পৌঁছে দিচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তিতে দেশ যে এগিয়ে যাচ্ছে তা বিগত কর্মকাণ্ডে প্রমান করে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 5 = 1