ডিজিটাল ভন্ডামি তথা অবাধ যৌনাধিকারের বিপক্ষে আমার যতো কথা !!

সেদিন থার্টি ফাস্ট নাইট নিয়ে দুটি লিখা যেসকল পেইজ,ওয়েবসাইট থেকে শেয়ার করা হয়েছিলো আজ সেগুলোতে ঘুরে দেখলাম , যারা সবসময় আমার লিখা পছন্দ করেন তাদের মধ্যে একদল মানুষ হঠাৎ আমার বেশ সমালোচনা করেছেন | দ্বিমত পোষণের পাশাপাশি অনেকে এও লিখেছেন যে আমি নাকি তলে তলে মদিনা সনদের পক্ষপাতী কিংবা কাক মুক্তমনা ! হ্যা তাদের জন্য কয়েকটি কথা স্পষ্ট করে বলছি , আজকের পর আর আমি এ বিষয়ে কারও প্রশ্নের উত্তর দিবো না | যাদের ইচ্ছে আছে লিখাটা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন |

লিখালিখির কাজে বলুন কিংবা ইচ্ছের জন্যই হোক , প্রতিনিয়ত অনেক মানুষের সাথে কথা হয় | অনেক ঘটনাই উঠে আসে যা সহ্য করাটাও মাঝে মাঝে খুব কষ্টকর হয়ে ওঠে | আজ আপনি যদি অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষপাতী হোন তো প্রথমেই আপনাকে কয়েকটি বিষয় মেনে নিতে হবে | এই যেমন ধরুন আপনার মা যদি অন্য পুরুষের সাথে কিংবা আপনার বাবা যদি অন্য নারীর সাথে যৌনকর্মে লিপ্ত হয় , তাহলে সেক্ষেত্রে আপনার কিছু বলার থাকবে না | কারণ এটা সম্পূর্ণ তার ব্যক্তিগত ব্যাপার , তার যৌনাধিকার | হ্যা এখন আপনি অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষে হলে আপনাকে অবশ্যই এটা মেনে নিতে হবে এবং আপনি হয়তো পারবেন | কিন্তু ভাই আমি স্পষ্টভাষায় বলছি , আমি এতটা শক্তিশালী কিংবা বোধসম্পন্ন মানসিকতার অধিকারী না যে আমি এটা মেনে নিতে পারবো | দুঃখিত !

স্মার্ট মায়ের পরকিয়া যখন পর্দার আড়ালে দাড়িয়ে থাকা শিশু সন্তানটি দেখে চোখের জল ফেলবে , তখন আপনি হয়তো তাকে গিয়ে এই বোঝাবেন দেখো বাবা এটা তোমার মায়ের ব্যক্তিগত ব্যাপার | এটা নিয়ে তোমার মনক্ষুন্ন হওয়ার কিছু নেই কিংবা তুমিও বরং মায়ের এই কর্ম উপভোগ করো , পারলে নিজেও মজা নাও , হাত চালাও !! আপনি অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষে , সুতরাং কাল মা ছেলে কিংবা বাবা মেয়ে স্বেচ্ছায় নিজেদের মধ্যে যৌনকর্মে লিপ্ত হলে এখানে আপনি ছিঃ শব্দটা উচ্চরণ করতে পারবেন না | বরং বলতে হবে এটা এজ ইউজাল ! কিন্তু ভাই আমি খুবই দুর্বল চিত্তের একটা মানুষ তাই আমি পারি না | দুঃখিত !!

আধুনিক প্রেমের সম্পর্কে , অবাধে যৌনকর্মে লিপ্ত হওয়াটাকে এখন এজ ইউজাল বিষয় বলে মেনে নিচ্ছেন | হ্যা আপনি মেনে নিতেই পারেন কারণ আপনি অবাধ যৌনাধিকারের স্বপক্ষে | কিন্তু আপনি কি কখনো শুনেছেন সেই আহাজারি , যে একদল ভোগী প্রেমিক শুধুমাত্র যৌনকর্মের উদ্দেশ্যে একটি মেয়ের সাথে সম্পর্ক করে চাহিদা মিটিয়ে ছেড়ে চলে যাচ্ছে , তখন ওই মেয়েটির কী অবস্থা হয় !তাদের চিৎকার আপনি শুনেছেন কখনো ? কিন্তু আমি শুনেছি , বিশ্বাস করেন উত্তর দেয়ার মতো ভাষা থাকে না মুখে | আপনি এক্ষেত্রে মেয়েটিকে সান্তনা দিতে কি বলবেন , এগুলো ব্যাপার নাহ সবাই করে ? কিংবা দীর্ঘদিন বিয়ের সম্পর্কের কথা শুনে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া মেয়েটিকে আপনি কি বলবেন যখন বিয়ে না করে ছেলেটি তাকে ছেড়ে যাবে ? নাহ আপনি তাকে ধর্ষণ মামলা করতে বলতে পারেন না ! কারণ তাকে জোর করে যৌনতায় লিপ্ত করা হয় নি বরং সে হয়তো সময়টা উপভোগই করেছে | ওই কথা বরখেলাপের মামলা দিয়ে কারও কিছুই যাবে আসবে না | যারা অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষে আছেন তাদের জন্য আমার একটাই কামনা , আপনাদের বোন কখনো এমন সমস্যায় না পড়ুক , তাহলে হয়তো সেদিন আপনার নিজের চেতনাই আপনাকে কুড়ে কুড়ে খাবে |তাছাড়া ইদানিং একটা বিষয় ব্যপকভাবে লক্ষণীয় যে একদল আধুনিক মানুষের প্রেম করার সময় এমনকি প্রেম করে যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার সময়ও বাবা-মার সম্মতি লাগে না এগুলো সবাই করে , কিন্তু বিয়ে করার সময় কই কই থেকে বাবা-মা হাজির হয় , তখন বাবা মার সম্মতি ছাড়া সতীক মানুষগুলোর চলেই না ! যারা এমন অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষপাতীদের সুবাদে নিঃস্ব জীবন কাটাচ্ছে তাদের আর্তনাদ কখনো শুনেছেন ? কিন্তু আমি শুনেছি | তাই আমি ভাই ক্ষেত আনস্মার্ট ইমোশনাল প্রকৃতির মানুষ , আমি পারি না | দুঃখিত !!!

একজন স্ত্রী যে তার স্বামী ছাড়া কিছু বোঝে না , স্বামী ছাড়া অন্য কারও সাথে যৌনতার কথা চিন্তা করতে পারে না , সে যখন তার স্বামীকে অন্য নারীর সাথে দেখে তখন তার কেমন লাগে বুঝেন আপনি ? কি বলে সান্তনা দিবেন তাকে , ওটা তার স্বামীর ব্যক্তিগত ব্যাপার ! নাকি বলবেন আপনিও যান অন্য পুরুষের সাথে , পারলে আমার সাথেই শুরু করুন !! কাল যদি ওই নারী আত্নহত্যা করে তার দায় আপনাদের মতো অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষপাতীদের নিতে হবে | কারণ আপনাদের চেতনায় উদ্ধুত এসব ভোগী মানুষ |

আজ যদি আপনাদের চেতনায় সবাই উদ্ধত হয় তো কাল যারা পেটের দায়ে দেহ ব্যবসা করে , তাদের সবাইকে আত্মহত্যা করতে হবে | কারণ মানুষ পয়সা খরচ করে পতিতালয়ে যাবে না , দুই একটা মিষ্টি কথা বলে প্রেম ভালবাসার নাম করেই শখ মিটাবে | একদিকে পতিতারা মরবে অন্যদিকে সংখ্যা লঘু আনস্মার্ট মেয়ে যাদের কাছে নিজের ইজ্জতের সামান্য মূল্য আছে তারাও মরবে |

এমনও আরও হাজার টা বিষয় আছে যেগুলো হয়তো লিখে শেষও করা যাবে না | তবে একটাই কথা বলবো আপনারা যারা অবাধ যৌনতার পক্ষে তারা দয়া করে আমাদের মত সংখ্যালঘু মানুষ গুলোকে সমাজ থেকে আলাদা করে দিন | আমাদের মোটেও কষ্ট বা আফসোস নেই যে , আমরা কেন পারিবো না ইচ্ছেমতো এত্তজনের সাথে ঘষ্টিনষ্টি করিতে !! বর্তমান সামাজে যেহেতু স্মার্ট পাবলিকই বেশী তবু আমাদের এ সংখ্যালঘু আনস্মার্ট ক্ষেত মানুষগুলোকে দয়া করে বাচতে দিন | আমরা চাই না আপনাদের কাউকে আমাদের জীবনে জড়াতে |

দয়া করে প্রেম ভালবাসার সাথে যৌনতাকে মিলিয়ে এক করবেন না | যৌন সম্পর্ক গড়তে প্রেম ভালবাসার উসিলা প্রয়োজন হতে পারে কিন্তু প্রেম ভালোবাসার জন্য যৌন সম্পর্ক আবশ্যক না | বিশ্বাস না হলে অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষে থাকা মানুষগুলো প্রেম ভালবাসার সাহায্যে না নিয়ে কাল থেকে ডায়রেক্ট কোন মেয়েকে পছন্দ হলে তাকে যৌনতার প্রস্তাব দিন এবং দেখুন তারপর কি হয় | আমার মতো নীচুমনার কথার মূল্য আশা করি তখন হারে হারে বুঝবেন | আপনাদের অবাধ যৌনাধিকার বিন্দুমাত্র কাজে দিবে না | ভালবাসা তাই যা না পাওয়া পছন্দের মানুষটিকে জীবনের শেষ সময়েও সামনে দেখতে পেয়ে মৃদু হেসে মনে প্রশান্তি লাভ করা কিংবা দূর থেকে প্রিয় মানুষটিকে সুখী দেখে এক মুহুর্তের জন্য সুখী হওয়া | ভালবাসা তাই যার জোরে হাজার খারাপ ব্যবহার করা সন্তানটিকে দিনের শেষে বাবা মা ফোন করে জিজ্ঞেস করে , বাবা খেয়েছ ? ভালবাসা …

আর একটা ব্যাপার , যে কোন ধরণের কুসংস্কার , ভণ্ডামির বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে অনেক সময় ধর্মীয় ব্যাপারগুলোর বিরুদ্ধে কথা বলি বলে যারা বাহবা দেন তাদের জন্য দুটি কথা | কোন ধর্মের সাথেই আমার কোন ব্যক্তিগত শত্রুতা বা ক্ষোভ নেই | আমি মোটেই কাউকে মুসলিম হিন্দু দিয়ে বিবেচনা করি না , করি মানুষ হিসেবে | রাস্তার পাশে পড়ে থাকা অসহায় মানুষটি আমার কাছে শুধুই মানুষ , তাকে সাহায্য করতে আমার কোন প্রয়োজন নেই জানার যে সে হিন্দু বা মুসলিম বা ইহুদি নাকি বৌদ্ধ | তবে একটা ব্যাপার যেটা সত্য সবসময় সেটা বলবোই তা হোক ধর্মের বিরুদ্ধেই কিংবা সরকার আর এজন্য যতোই প্রাণ নাশের হুমকি আসুক , ভয় করি না ! আমি বিবেকের ডাকে চলা একজন মানুষ ! আমি অবাধ যৌনাধিকারের পক্ষে কখনো ছিলামও না আর এখনো নেই | আর শুধুমাত্র এই ব্যাপারের উপর ভিত্তি করে যদি বলেন আমি মদিনা সনদে বিশ্বাসী কিংবা কাক মুক্তমনা, তাহলে এক বালতি সমবেদনা আপনাদের জন্য | আপনাদের মতো উচ্চ বোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছ থেকে কোন সার্টিফিকেট আমার দরকার নেই | আমি সস্তার লেখক কিংবা যাই হই , আই এম স্যাটিস্ফাইড উইথ মাইসেল্ফ ….

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 83 = 87