পুরোহিত

আমি পুরোহিত,জেগে আছি ছায়ার মতন
এ মন্দির রত্নশোভিত,আলো আধারীর খেলা সর্বক্ষণ
আলিঙ্গন করে রাখে একে,রাত্রির ডানার মত
পরিব্যাপ্ত নিঃস্তব্ধতা খেলা করে অবিরত
এর কারুকাজময় বুকে,আমি জেগে থাকি
নিঃসঙ্গ, একাকী
আমি পুরোহিত,আমার দুঃস্বপ্নের স্মৃতি সদাই
জাজ্বল্যমান মন্দিরের ফলকে ফলকে,এতে খোদাই
করা রয়েছে অভিশাপ প্রস্ফুটিত
হীরার মত
কেন তুমি এলে
রক্তবর্ণ বিশির্ণ আংগুল কপালে ছোঁয়ালে
এ বড় অন্ধকার রাত,বজ্রের বীণা
বাজে তীব্র অহংকারে,আকাশের অব্যক্ত যন্ত্রণা
ভাষা পায় ক্রন্দনের সুরে মত্ত কোলাহলে
কেন তুমি এলে
রক্তবর্ণ বিশির্ণ আংগুল কপালে ছোঁয়ালে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 8 = 1