হেফাজত প্রার্থনা

হেফাজত?
আর কত?
আমরা / আমজনতারা দেশের হেফাজতকারি, ধর্মের হেফাজতকারি, ভোট বক্সের হেফাজতকারি। কিন্তু নির্বোধের মতো আমার প্রশ্ন, আমাদের জান-মালের হেফাজতকারি কি কেউ আছে? আমার পিতার স্বপ্নের, মায়ের গর্বের, প্রিয়তমার হাসির হেফাজতকারি কি কেউ আছে? যদি থেকে থাকে তাহলে ৫ ও ৬ মে কি সাভারের ইমারত ধসে পড়ে থাকা নাজমা, সাহানা, রহিম, কাদের ও প্রমুখর আত্মচিৎকার ভুলে দিলো? আমাদের অবস্থা আজ এমন, আমরা মধ্যবিত্ত কোঠরে বন্দী। দেশপ্রেম আছে কিন্তু তার বহিপ্রকাশ মূল্যহীন। যদি সত্যি মূল্য থেকে থাকে তাহলে ভাবুন আমাদের দাবি কি ছিলো? যে যাই বলুক না কেন, আমাদের এক দফা, এক দাবি, রাজাকারের ফাঁসি দিবি। অথচ কি করছি আমরা? আমরা এক একজন হয়ে উঠছি নাস্তিক বিশেষজ্ঞ। ইসলাম ধর্মে আমরাই দুইটি বর্ণ সৃষ্টি করছি, একটা হলো দেশপ্রেমিক ইসলাম, অন্যটা রাজাকার ইসলাম।
কি দরকার এসব বিষয় নিয়ে মাথা ঘামানোর? জানা কথা, যার প্রাণ নেওয়ার জন্য আমরা আন্দোলন করছি, তারা কি তাদের প্রাণ হেফাজতের চেষ্টা করবে না? ‘রাজাকার বাঁচাও’ আন্দোলনের সৃষ্টি সর্বজন জ্ঞাতব্য কিন্তু তাঁদের তান্ডব সরকারের উদাসীনতা। আজ দেশের এমন অস্বাভাবিক অবস্থায় আমি ও আমার মত লাখো আম জনতা শুধু নীরহ ও অসহায় মানুষের পক্ষ থেকে সরকারের কাছ থেকে জীবনের হেফাজত প্রার্থনা করছি। কারণ ওই অসহায় মানুষের দিন চলে দিনের উপার্জিত টাকায়।

জয় বাংলা | বাংলাদেশ দীর্ঘজীবি হোক|

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৬ thoughts on “হেফাজত প্রার্থনা

  1. ঘুমাই নি, ঘুমাচ্ছিও না। জেগে
    ঘুমাই নি, ঘুমাচ্ছিও না। জেগে আছি আর জেগে জেগে অসহায়দের খুন দেখছি। ঘুমের ঘোরে থাকা জাতি এই বাঙ্গালী নয়। রাজাকারমুক্ত দেশের জন্য যুদ্ধের ডাক কবে আসবে সেই অপেক্ষায় আছে সবাই। শুধু স্লোগান তুলে কি লাভ বলেনতো? আমরা একদিকে গলা ফাটিয়ে স্লোগান তুলেছি, আর ওরা অন্যদিকে একটা একটা লাশ ফেলেছে।

  2. আমাদের দেশের ক্ষমতা লোভী
    আমাদের দেশের ক্ষমতা লোভী রাজনীতিবিদরাই এদের লালন পালন করে পুষ্ঠ করে তুলেছে ! এখন আর এদের সাথে পেরে উঠছে না ! যেমনে আমেরিকার তৈরী বিন লাদেনই টুইন টাওয়ারে হামলা চালালো আর আমেরিকা চেয়ে দেখলো হাজার মানুষের প্রাণহানি….

  3. শাসক শ্রেণির আন্তরিকতার অভাবে
    শাসক শ্রেণির আন্তরিকতার অভাবে টুইন টাওয়ারের চেয়েও অধিক কিছু হতে পারে। রুখে দাঁড়ানোর জন্য ওদের বাঁধার প্রাচীর হিসেবে আমাদের এক হয়ে দাঁড়াতে হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

49 + = 58