ফেইসবুক ব্যবহারে সতর্ক হউন।

রসরাজ দাসের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিন।

ঠিকমত ব্যবহার করা না শিখে ফেসবুকে একাউন্ট করে রেখে দিলে সেই একাউন্ট দিয়ে যে কেউ আপনাকে ফাঁসিয়ে দিতে পারে। ফেসবুকের প্রাইভেসি রেস্ট্রিক্টেড করে না রাখলে যে কারো পোস্টে আপনাকে ট্যাগ করলেই তা আপনার টাইম লাইনে দেখায়। অনেক সময় অনেকেই নানান রকম বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন, আবার ট্যাগ করা পোস্টের কারণে অনেকে বিপদেও পড়েন।

ফেইসবুক একাউন্ট ব্যবহারে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা জরুরি :

১) আপনার একাউন্টের পাসওয়ার্ড অন্য কাউকে না জানানো (খুব বিশ্বস্ত কাছের মানুষ হলে অন্য কথা)

২) জটিল পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা (পাসওয়ার্ড এর মধ্যে সংখ্যা ও বিভিন্ন সাংকেতিক চিহ্ন যেমন @ £& এগুলো ব্যবহার করলে পাসওয়ার্ড হ্যাকিং থেকে বাঁচা যায়)

৩) ফেসবুকে settings এ ক্লিক করুন। সেখানে ‘Security’ নামে অপশন টাতে ক্লিক করে দেখুন ‘Login Alert’ ‘Login Approval’ ও ‘Code Generator’ নামে তিনটা অপশন আছে। আপনার নিজের ব্যক্তিগত ফোন নাম্বার বা ইমেইল এড্রেস অ্যাড করে দিন। এতে করে অন্য কেউ যদি আপনার একাউন্টে লগইন করার চেষ্টা করে আপনি তা সঙ্গে সঙ্গে জানতে পারবেন।

৪) এবারে ‘Privacy’ অপশনে ক্লিক করুন। সেখানে আপনি যদি চান আপনার পোস্ট আপনার ফেসবুকের বন্ধুরা ছাড়া অন্য কেউ না দেখুক তাহলে ‘who can see post on ur timeline’ তে ‘Friends’ সেট করে দিন।

৫) এর পর ক্লিক করুন ‘Timeline & Tagging’ অপশনে। কারা করা আপনার ফেসবুকের টাইম লাইনে পোস্ট করতে পারবে তা আপনি ঠিক করে দিন।
সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ – ‘Review posts that friends tag you in before they appear on your Timeline?’ এ ‘Review ‘ON’ করে দিন। এর ফলে কেউ যদি আপনাকে কোনো পোস্টে ট্যাগ করে তাহলে তা সরাসরি আপনার টাইম লাইনে না দেখিয়ে আপনার কাছে আগে নোটিফিকেশন আসবে। আপনি যদি চান তাহলে ট্যাগ approve করে সেই পোস্ট আপনার টাইম লাইনে রাখতে পারবেন।

আপাতত এটুকুই।
আজ ই আপনার ফেইসবুক একাউন্টের প্রাইভেসি সেটিংস ঠিক করে নিন। নিজে সতর্ক হউন, অন্যদের ও সতর্ক করুন।

Safe ফেসবুকিং।

?oh=8dab6a10fc953ee6a9b30fe3457ab577&oe=59626363″ width=”500″ />

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৪ thoughts on “ফেইসবুক ব্যবহারে সতর্ক হউন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

7 + 2 =