কৃষক মাতা রাশিমণি

বৃটিশ সরকার জমিদার জোতদার ইস্টার্ন-ফ্রন্টিয়ার
লুটেরার অন্যায় অত্যাচার অবিচার
ধান কাড়ারী খাজনা –
“টংক প্রথার উচ্ছেদ চাই
টংক জমির স্বত্ব চাই”
অসাম্যের ধরিত্রীর ধাত্রী সেবাদাসী
কৃষক মাতা বঙ্গ রমণী রাশিমণি
সেনানী শ্লোগানে শ্লোগানে
মুক্তির আর্তনাদ –
“সাম্রাজ্যবাদ ধ্বংস হোক
জমিদারি প্রথা উচ্ছেদ চাই”
সোমেশ্বরী-গনেশ্বরী-কংশ-মহাদেও-নিতাই-ভোগাই
হাজং-হদি-কোচ-ডালু-বংশী-বাঙালী-বানাই
বন পাহাড় জনপদের বাঁচার অধিকার
কৃষাণীরা ধরে হাতিয়ার
তীর-ধনুক-কাঁস্তে-বর্শা-দাও-বেও হাতে হাতে
প্রতিবাদে প্রতিরোধে প্রাণপন প্রত্যয়
শোষন দমন দলন দহন দুঃশাসনের নাই ঠাই
শোষকের বিরুদ্ধে শোষিতের মুক্তির লড়াই।
?oh=33c6d5ee38b78db0fc8dbef829031d6b&oe=5943EF9A” width=”500″ />
১৯৪৬ সাল ৩১ জানুয়ারি কৃষকের অহংকার
কৃষাণীর সম্ভ্রম সদ্য তরুণী বধূ কুমুদিনী
মুক্তির সংগ্রাম
অনন্য এক কালজয়ী গৌরবময় আত্মত্যাগ
মহিয়ান মহিয়সী নারী কৃষক মাতা বঙ্গ রমণী
প্রথম টংক শহীদ রাশিমণি
মৃত্যুঞ্জয়ী সম্মুখ যুদ্ধে
তাঁর রক্তাক্ত বুকে
জ্বলে ওঠে যে আগুন
সে আগুনে পুড়ে গেছে
বৃটিশ জমিদার জোতদার ফ্রন্টিয়ার
যেন এক অস্ত্রক্ষত একাত্তোর
রক্তবৃষ্টি ঝরা যোদ্ধার অগ্রজ
জ্বলে ওঠে সুসংয়ের স্বফেদ পাহাড়
বিজয়ের বনরেখা তট মেঠো পথ রাঙা হয়
লাল-কালো ডোড়াকাটা সুবর্ণ বসনে
হাতিবেগার তেভাগা টংক শহীদ স্মরণে।

বিপ্লবী ভূমিকন্যা
শহীদ রামিমণির নিথর দেহ
সমাহিত থাকে রাশি রাশি ধানের বীজে
কৃষকের আন্দোলন উন্মোচিত হয় দ্বিজে
শঙ্খমণি-তুলারাণী-পদ্মমণি-নীলমণি
মুক্তির অধিকার পায়
কৃষক মুক্তিতে
মুক্ত হয় স্বদেশ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

76 + = 78