ধর্ম,দর্শন ও বিজ্ঞান-১৩ঃ প্রেম ও ভালোবাসা( ১ম পর্ব)

১ম অংশ

প্রেম বলতে আমি কি বুঝি?

বস্তুতে.বস্তুতে যে মিথোষ্ক্রিয়া সেতো আকর্ষন।
জীবে.জীবে যে ভাব ক্রিয়া সেওতো আকর্ষণ।
জীবে.বস্তুতে যে প্রভাব ক্রিয়া সেওতো আকর্ষণ।
আর বিকর্ষণ সেওতো নেতিবাচক আকর্ষণ।

জগতের সত্তাসমূহের মধ্যস্থ এক অদৃশ্য আন্তজালিক আকর্ষনই প্রেম। জগতটাতো প্রেমেরই ঝরনা ধারা।

এবার দেখা যাক প্রেম সম্পর্কে বিভিন্ন মনীষীগনের কি উক্তি?
১)” প্রেম হলো এক জলন্ত সিগারেট যার আরম্ভ অগ্নি দিয়ে এবং পরিনতি ছাইয়ে”
__দার্শনিক বার্নার্ডশ।
মন্তব্য: ব্যার্থ প্রেমিকের উক্তি।
২) ” সুখের গোড়ায় ভালোবাসা, ভালোবাসার স্পর্শ ব্যতীত সুখের স্বাদ পাওয়া যায়না।”
__দার্শনিক বার্ট্রটান্ড রাসেল।
মন্তব্য: সংজ্ঞাটি স্পষ্ট নয়। সুখ কি প্রশ্ন থেকে যায়।
৩) প্রেম জীবনকে দেয় ঐশ্বর্য, মৃত্যুকে দেয় মহিমা, প্রবঞ্চিতকে দেয় দাহ। _ যাযাবর।
মন্তব্য: সাহিত্যিক মূল্য থাকলেও দার্শনিক মূল্য নেই।
৪) যৌনমনোবিজ্ঞানী ফ্রয়েড এবং ফোরন, বয়ার, হার্বাট স্পেন্সার প্রত্যেকে প্রেমকে যৌন বৃত্তির সঙ্গে তুলনা করেছেন। এমনকি মনোবিজ্ঞানী ফ্রয়েড পিতা-মাতার সঙ্গে শিশু কন্যা-পুত্রের মধ্যকার যৌনপ্রবৃত্তি আবিষ্কার করেন।
মন্তব্য: একমত নই।

৫) কবি কাজী নজরুলের ভাষায়, ” কামনা ও প্রেম এদুটি সম্পূর্ন পৃথক জিনিস। কামনা একটি প্রবল সামাজিক উত্তেজনা আর প্রেম হচ্ছে ধীর শান্ত ও চিরন্তন। তিনি আরও যোগ করেছেন, যে ভালোবাসা দুজনের দেহকে দুদিক থেকে আকর্ষণ করে মিলেয়ে দেয় সেটা অন্য কিছু বা মোহ আর কামনা।
মন্তব্য: অংশত সহমত।

এখানে বিভিন্ন মনীষীগন তাদের নিজস্ব পারিপার্শ্বিকতা ও অভিজ্ঞতা থেকে প্রেমের ব্যাপারে তাদের নিজস্ব দৃষ্টি ভঙ্গি ব্যক্ত করেছেন_যার কোনটিই সার্বিক ও সার্বজনীন নয়।
প্রেম কোন একক বিষয় নয়। প্রেম হলো কতগুলো উপাদানের সামবায়িক রুপ।
প্রেম ও ভালোবাসার উপাদান( ৬+১)বা ৭;
১) মানসিক আকর্ষণ
২) কল্যান কামনা
৩) স্বার্থ>>>ভাবগত এবং বস্তুগত।
৪) জ্ঞান
৫)আবেগ
৬) ইচ্ছা
এবং যৌবন কালীন সময়ে অতিরিক্ত ১টি
৭) দৈহিক কামনা।

প্রকৃত প্রেম হলো উপরোক্ত উপাদান সমূহের ভারসাম্য পূর্ন একটি সামবায়িক রুপ। উপাদান সমূহের বিভিন্ন উপাদান আনুপাতিক ভিন্নতা প্রেমের মধ্যকার বিভিন্নরুপ প্রকাশিত হয়। কে কোন উপাদানটা কতটুকু ধারন করবে তা ব্যক্তির পারিপার্শ্বিকতা ও রুচির উপর নির্ভর করে।
প্রেমের বৈচিত্রময়তায়ই ভিন্ন ভিন্ন মানুষের সাথে ভিন ভিন্ন সম্পর্ক তৈরিতে ভূমিকা রাখে।

___চলবে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

14 + = 18