প্রেম-নারী ; প্রতারনা ও পুরুষ…! পর্ব-১

সাম্প্রতিক সময়ের প্রেমিক- প্রেমিকারা শারীরিক সম্পর্কটাকে তাদের প্রেমের ক্ষেত্রে খুব বড় একটা চুক্তি, দায়বদ্ধতা বা একে অন্যের প্রতি আরো নিবেদিতপ্রাণ হওয়ার আলামত মনে করে থাকে! কিন্তু এই শারীরিক সম্পর্কটাই একটা সময় হয়ে যায় শুধু মেয়েটার জন্য খুব বড় একটা অবহেলার কারন অথবা সে হয়ে যায় খুব বেশি সহজলভ্য! আর বেশিরভাগ পুরুষ মানুষের আবার খুব সহজলভ্য জিনিসটাকে পাশ কাটিয়ে দুর্লভ- দুর্লঙ্ঘনীয় জিনিসের প্রতি আগ্রহ থাকার স্বভাব! এর জন্য কে দায়ী, কি দায়ী, কেনো এমন তারা, তা ভাবার কোনো অবকাশ নেই!

হয়তো বেশিরভাগ পুরুষেরই ‘গাছেরও খাবে, তলারও কুড়াবে’ স্বভাবটা জন্মগত! শৈশবেই একটা ছেলে সন্তান নিজের ভাগেরটা নিবে, আবার কেঁদেকেটে বোনেরটাও নিবে! এই ছোট ছোট আবদারগুলোই একসময় তাকে ছেলে সন্তান থেকে পুরুষ বানায়, কিন্তু মানুষ হতে দেয় না!

সমাজে মানুষের সংখ্যা আর পুরুষের সংখ্যা বরাবরই বিপরীত! আশা করছি, এই শতকে মানুষ বাড়বে, পুরুষ নয়! আর পুরুষের দরকার নাই বাবা! কারন পুরুষ শুধু পৌরুষ দেখাতে ব্যস্ত! এই অত্যাধুনিক সময়ে এসে আর বউ পেটানো দেখতে চাই না! কারন বউ পেটানোর সংবাদ দেখলে নিজেকে পুরুষ পরিচয় দিতেও লজ্জা লাগে!
ভালো থাকুক
পৃথিবীর সব মানুষজন!

#পুনশ্চ : ব্যতিক্রম কখনোই উদাহরন নয়! একটা সমাজ সবসময় বড় সংখ্যাটাকে উদ্দেশ্য করেই বলে, আলোচনা করে, লিখে অথবা এগিয়ে যায়! তাই চোখে- কর্ণে যা প্রবেশ করে তাই এখানে আলোচ্য! মানে বেশিরভাগ বিষয়টাকে উদ্দেশ্য করেই লিখা!

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

97 − 87 =