আবেগ ও বাস্তবতার বেড়াজাল

আবেগী ভালোবাসায় সিক্ত কোনো এক পরাজিত রোমিও প্রশ্ন করেছিলো আমায়,

ভালোবাসার মানে বোঝ??

আমি স্মিত !!

হেসে বলেছিলাম… লালনকে তুমি বৈরাগ্যের সুর চেনাচ্ছো?

আমি ভালোবাসার যত রূপ দেখেছি, তুমি তার সিকি অংশও দেখোনি…

নারীর প্রতি পুরুষ, পুরুষের প্রতি নারীর ভালোবাসায় মোহ আছে, উত্তেজনা আছে, আছে বাড়তি আবেগ,,,

মমতা নেই, আনন্দ নেই…

আবেগের ভালোবাসায় কি আছে??

কয়েক বিন্দু জল,

মিথ্যে কথার মেলা,

বিশ্বাস নিয়ে খেলা,

অগোচরে আঘাত করা,

পরিশেষে হারিয়ে যাওয়া??

নাহ্‌ এগুলো ভালোবাসা নয়..

ভালোবাসা নামে একপ্রকার খেলা।

ভালোবাসা কোথায় জানো?

কোথায়??

শুকনো মাটির বুকে লাঙল চষে যেই কৃষক সোনার ফসল জন্মায়,

তার শীষে ভালোবাসা উঁকি দেয়…

সারাদিন রোদে পুড়ে ঘামে ভিজে যেই শ্রমিকটা ইট ভাঙে,

তার হাতে চাল তেল নুনের প্যকেটের মাঝে ভালোবাসা লুকায়িত…

শীতের কনকনে রাতে যে ভাই তার বোনকে গায়ের চাদরটা জড়িয়ে দেয়,

সেই চাদরেই ভালোবাসা জড়ানো…

জীবিকার তাগিদে তপ্ত রোদে পুড়ে যে মা ভারী বোঝা মাথায় বয়ে সন্তানকে বুকে আগলে রাখে,

তার মাঝেই ভালোবাসা নিহিত।

জীবন যুদ্ধে পরাজিত কোন যোদ্ধার মধ্যরাতের নির্লিপ্ত অশ্রুতে ভালোবাসা ঝরে পড়ে।

.

আর কত দেখবা?

তুমি আবেগী ভালোবাসার উক্তি দাও..

আমি বাস্তবতার নির্মম ভালোবাসার রূপ দেখাই।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 57 = 67