কোনও ধর্মেরই সৃষ্টিকর্তার সাথে সম্পর্ক নেই

সৃষ্টিকর্তার দোহাই দিয়ে পৃথিবীতে অসংখ্য ধর্মের জন্ম দেওয়া হয়েছে । শুধু তাই নয়, এই সব ভিত্তিহীন ধর্মকে অস্ত্র বানিয়ে কিছু মানুষ যুগের পর যুগ ধরে সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার চালিয়ে আসছে । কোনও ধর্ম সত্য কি মিথ্যা তাতে আমার কোনও মাথা ব্যথা নেই । তবে প্রশ্ন তখনই ওঠে যখন কোনও ধর্মকে পুঁজি করে কারো ওপর অত্যাচার করা হয় ।

কে কোন ধর্ম পালন করলো সেটা কোনও সমস্য নয়, সমস্যা তখনই হয় যখন কেউ ভিন্ন ধর্মাবলম্বী বা ভিন্ন মতের মানুষের ক্ষতি করার চেষ্টা করে । কে কোন ধররেম সেটা বড় কথা নয়, বড় কথা হলো- ভালো মানুষ হওয়া । ভালো মানুষরাই হলো এই পৃথিবীর উত্তম মানুষ । শুধু হিন্দু, মুসলিম, শিখ, খ্রীস্টান, বৌদ্ধ হলেই ভালো মানুষ হওয়া যায় না ।

যারা ধর্মের নামে মন্দির-মসজিদ প্রতিমা ভাঙে, কেউ গরুর মাংষ খেলে তাকে ধরে যারা পেটায় কিম্বা কারো দাড়ি-টুপি দেখে তাকে যারা সন্ত্রাসবাদী বলে অত্যাচার করে তাঁরা নিশ্চয়ই অমানুষ ছাড়া আর কিছুই নয় । এই সব অমানুষদের কারণে আজ পৃথিবীতে অশান্তির আগুন জ্বলছে । এই সব ধর্মীয় অত্যাচারীদের দেখেই আমার মতো ব্যাক্তিরা এই সব ধর্মের সত্যতা নিয়ে ভাবতে বাধ্য হই ।

যে এই সব ঐশ্বরিক ভিত্তিহীন ধর্মের ফাঁদে পা না দিয়ে সত্যের সন্ধান করে সেই হয় নাস্তিক । নাস্তিক মানে অন্ধ বিশ্বাসী নয় । যার ধারালো জ্ঞান আছে সেই নাস্তিক হয় । নিজের জ্ঞানের আলোয় চলাই নাস্তিকতা । ধর্মীয় ভালো কথা মেনে চলা খারাপ কিছু নয়, তবে অন্ধের মতো ধর্মের ক্ষতিকর কথা গুলো পালন করাই হলো খারাপ কাজ । এই খারাপ কাজ গুলো যারা করতে পারে না তাঁরাই হয় নাস্তিক ।

আমি বিশ্বাস করি সুপরিকল্পিত এই জগৎ সৃষ্টির পেছনে অবশ্যই কারো হাত আছে । তবে ধর্ম গুলোর পেছনে সৃষ্টিকর্তার হাত নেই । যত ধর্ম আছে তা সবই ধর্মযাজকদের মন গড়া । অতএব, এই সব মন গড়া ধর্মের রীতি-নীতি কারো ওপর চাপিয়ে দেওয়ার অধিকার কারো নেই ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 64 = 69