‘ওলামা লীগ’ কার অবদান?


‘ওলামা লীগ’ কে বানিয়েছে? আপনার সাহস হবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একটা অঙ্গ সংগঠন বানাতে আওয়ামী লীগের অনুমোদন ও প্রশ্রয় ছাড়া? আওয়ামী লীগ কি চাইলে এক লাত্থিতে এই ওলামা লীগের ভূড়ি ফাটিয়ে দিতে পারত না? ‘ওলামা লীগের সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোন সম্পর্ক নেই’ একমাত্র আদর্শহীন বদমাশ দলদাস ছাড়া কেউ এরকম প্রচারণাকে বিশ্বাস করবে না। আপনি বিশ্বাস করছেন কারণ আপনি আসলে সেটাই…।

ওলামা লীগের হুজুররা সব বঙ্গবন্ধুর সৈনিক। বঙ্গবন্ধুর ইসলামের খেদমতে কি কি অবদান আছে, এইদেশ স্বাধীন হবার পর আওয়ামী লীগ ইসলামের জন্য কত কি অবদান রেখেছে- এসব প্রচার করাই ওলামা লীগের কাজ। এভাবেই সূচনা ঘটেছিল ওলামা লীগের। এখন সব বিষয়েই ওলামা লীগের নেতারা হেফাজত ইসলামের সঙ্গে একমত হয়। দেশের প্রগতিশীল ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এই আওয়ামী অঙ্গ সংগঠনটি এখন খুব সোচ্চার। কখন থেকে সোচ্চার? যখন থেকে বলা হলো, ‘নাস্তিকতা হচ্ছে একটা ফ্যাসান’! এই ‘নাস্তিকতা’ বলে গোটা মুক্তচিন্তার চর্চাকেই আক্রমন করে বসা হয়েছিল। এখন ওলামা লীগ ‘নাস্তিকদের ফাঁসির বিধান’ রেখে সংসদে আইন পাস চায়। হেফাজত আর ওলামা লীগ এখন একে অপরের পরিপূরক। কর্তার ইচ্ছাতেই কর্ম। বাংলাদেশে এখন যা ঘটছে তার সঙ্গে কোথাও কোন প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনার সাংঘর্ষিকতা হচ্ছে না। অথচ হওয়াটা ছিল অবশ্যাম্ভি। এর মানে হচ্ছে কোথাও এই ধরণের চিন্তা-চেতনার উপস্থিতি নেই। কেউ এরকম চিন্তা চেতনা লালন করে না। তাই সবটাই ঘটছে সরকারি মদদে।

বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদীদের উত্থানের জন্য, রাষ্ট্রীয় কার্যে মোল্লাদের প্রশ্রয় দেয়া, দেশকে ধর্মাচ্ছন্ন করার জন্য এই সরকার দায়ি থাকবে। আগামীতে মোল্লা আর মডারেট ইসলামপন্থিদের কবলে রাষ্ট্রযন্ত্র পুরোপুরি ঢুকে গেলে, পাকিস্তানের মত যখন ইসলামী নানা মত আর পথ পরস্পরকে বোমা মারতে চাইবে, বোমাবাজি আর জিহাদের চেতনায় দেশ ছয়লাব হয়ে যাবে- তার পুরো দায় আওয়ামী লীগের। সুপ্রিমকোর্টের সামনে থেকে গ্রিকমূর্তিকে সরাতে আওয়ামী লীগ এবার সরাসরি ভূমিকা রাখবে যাতে দেশের ইসলাম প্রিয় জনগণ তাদেরকে ইসলামী দল মনে করে- এরকমই ফয়দা লোটার আশা দলটির। ইতিহাস আওয়ামী লীগকে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী দলের মর্যাদা দিয়েছে। এবার ইসলামী বাংলাদেশ গড়ার ভিত্তিপ্রস্থকারী দল হিসেবে চিহিৃত করবে। এক সময় পাকিস্তানের মত এদেশে কেউ ভ্রমণ করবে না। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে গোটা বিশ্ব বাংলাদেশকে লাল দাগে চিহিৃত করে রাখবে। পাকিস্তানে আজকের এই বাস্তবতার মূল হিসেবে তাদের প্রেসিডেন্ট সামরিক শাসক জিয়াউল হককে যেভাবে স্মরণ করা হয়, ঠিক সেরকমভাবেই ‘উনাকে’ স্মরণ করা হবে। বাংলাদেশকে পাকিস্তানের পরিণতি ভোগ করার জন্য তিনিই সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন- ইতিহাস এরকম মূল্যায়নই করবে…।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৩ thoughts on “‘ওলামা লীগ’ কার অবদান?

  1. ওলামালীগ হচ্ছে আওয়ামীলীগ ও
    ওলামালীগ হচ্ছে আওয়ামীলীগ ও শেখ হাসিনার ইসলামী ভার্সন। আওয়ামীলীগের ভবিষ্যত চিত্র।

  2. যতদুর মনে আছে,বছর দশেক আগে
    যতদুর মনে আছে,বছর দশেক আগে যখন বিএনপি ক্ষমতাসীন, তখন একবার পুলিশ আওয়ামী অফিসে ঢুকতে যায় এবং ওলামী লীগ বাঁধা দেয়। তাঁরা অফিসের সামনে কুরআন পাঠ শুরু করে। পুলিশ তাঁদের সরিয়ে দিলে হাসিনা পরবর্তীতে বলে, ‘ওলামা-মাশায়েখদের ওপর অত্যাচার মেনে নেওয়া হবে না।’ বহুদিন আগের ছোট্ট একটা ঘটনা তাই প্রপার সোর্স দিতে পারছি না।

  3. তবে আমার জানা মতে, ওলামা লীগ
    তবে আমার জানা মতে, ওলামা লীগ সরাসরি আওয়ামী লীগের সাথে জড়িত না। ওলামা লীগ প্রায় ২২টি সংগঠনের মিলিত রূপ, আওয়ামী সমর্থক জোটের অংশ। ঢাকা মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক সবুজ সমর্থক জোটের চেয়ারম্যান। এর আগে ওলামা লীগের কার্যক্রম মিছিলে অংশ নেয়া বাদে কিছু ছিল না। ইদানিং অাওয়ামীলীগের হয়ে এই ফিক্সিংগুলো করছে বলে মনে হচ্ছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 50 = 56