ইসলাম কোন ধর্ম না , এটা একটা চুড়ান্ত একনায়ক তান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থা এবং কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রদের ব্রেইন ওয়াশ

যারা ইসলাম জানে , তারা কিন্তু কখনই বলে না ইসলাম শুধুই একটা ধর্ম। তারা দাবী করে ইসলাম একটা সম্পূর্ন জীবন ব্যবস্থা। ধর্ম ও সম্পূর্ন জীবন ব্যবস্থার মধ্যে আকাশ পাতাল তফাৎ। কিন্তু কোরান হাদিস তাফসির সিরাত ও ইতিহাস পড়ে আমার মনে হয়েছে ইসলাম আসলে ধর্মের মোড়কে একটা চুড়ান্ত একনায়কতান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থা। যে ব্যবস্থায় নেই কোন গনতন্ত্র , বাক স্বাধীনতা , ভিন্নমত প্রকাশের স্বাধীনতা। যে ব্যবস্থায় আছে শুধুই মুহাম্মদ কর্তৃক প্রচলিত ও প্রতিষ্ঠিত সমাজ ব্যবস্থার সব রকম আচার আচরন , বিধি , নিষেধের প্রতি বিনা শর্তে , বিনা প্রশ্নে আত্মসমর্পন। আর সে কারনেই ইসলাম অর্থ হলো আত্মসমর্পন আর মুসলিম অর্থ হলো আত্মসমর্পনকারী।

যারা ইসলাম জানে , তারা কিন্তু কখনই বলে না ইসলাম শুধুই একটা ধর্ম। তারা দাবী করে ইসলাম একটা সম্পূর্ন জীবন ব্যবস্থা। ধর্ম ও সম্পূর্ন জীবন ব্যবস্থার মধ্যে আকাশ পাতাল তফাৎ। কিন্তু কোরান হাদিস তাফসির সিরাত ও ইতিহাস পড়ে আমার মনে হয়েছে ইসলাম আসলে ধর্মের মোড়কে একটা চুড়ান্ত একনায়কতান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থা। যে ব্যবস্থায় নেই কোন গনতন্ত্র , বাক স্বাধীনতা , ভিন্নমত প্রকাশের স্বাধীনতা। যে ব্যবস্থায় আছে শুধুই মুহাম্মদ কর্তৃক প্রচলিত ও প্রতিষ্ঠিত সমাজ ব্যবস্থার সব রকম আচার আচরন , বিধি , নিষেধের প্রতি বিনা শর্তে , বিনা প্রশ্নে আত্মসমর্পন। আর সে কারনেই ইসলাম অর্থ হলো আত্মসমর্পন আর মুসলিম অর্থ হলো আত্মসমর্পনকারী।

যাদেরকে আমরা মৌলবাদী বা উগ্রবাদী বলি , তারা কিন্তু বিষয়টা ঠিকই বোঝে , বোঝে না শুধু কথিত মডারেট শান্তিবাদী মুসলমানরা। কিন্তু তারা বুঝুক আর না বুঝুক , যদি একটা নিরপেক্ষ জরীপ করা হয় তাহলে দেখা যাবে , সমগ্র মৌলবাদী বা উগ্র মুসলমান তো বটেই এমন কি ৮০% এরও বেশী কথিত মডারেট মুসলমানরা , ইসলামের প্রকৃত চরিত্র না বুঝেই , তারা দেশে শরিয়া বা ইসলামি শাসন কায়েম করতে চায়। অর্থাৎ তারা দেশের রাজনৈতিক পদ্ধতি পুরাটাই ইসলামী করতে চায়। কিন্তু তারপরেও মুখে বলবে , ইসলাম শুধুই একটা শান্তির ধর্ম। দেশে ইসলাম শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে চায় , অথচ পরেই বলে ইসলাম শুধুই একটা ধর্ম , এভাবে তারা যে স্ববিরোধী কথা বলছে , সেটা তারা উপলব্ধি করে না। তাদের এই স্ববিরোধী চরিত্রের জন্যে তারা জোরালভাবে উগ্রবাদীতাকে সমালোচনা করতে পারে না , করাটা তাদের জন্যে সম্ভবও না। কারন তারাও তো অবশেষে মুসলমান ও ইসলামের অনুসারী। তারাও বোঝে যে , যাদেরকে তারা মৌলবাদ বা উগ্রবাদ বলছে , সেসব চুড়ান্ত বিচারে খাটি সহিহ ইসলাম। এজন্যেই দেখা যাবে , এসব কথিত মডারেট মুসলমানরা সব চাইতে বেশী চাঁদা দেয় কওমী মাদ্রাসা , মসজিদ বা ওয়াজ মাহফিলে যেখানে সর্বক্ষন উগ্রবাদী ইসলাম প্রচার করা হয় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে। বর্তমানে যে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া যুবকরা উগ্রবাদী ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে , তার কারন তারা এসব সর্বদাই শুনছে মসজিদ , ওয়াজ বা টিভি তে। তারা কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়লে কি হবে , শৈশব থেকেই তো তার মগজে ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে , ইসলাম হলো একমাত্র সত্য ধর্ম , আর মুহাম্মদ হলো সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট আদর্শ মানব। সেই গন্ডি থেকে বেরিয়ে বিশ্লেষণমূলক চিন্তাভাবনা করতে তারা আর কখনই পারে না।

শৈশব থেকে তারা শুনে এসেছে ইসলাম হলো একমাত্র সত্য ধর্ম আর মুসলমানরা হলো শ্রেষ্ট মানব , কিন্তু বড় হয়ে যখন দেখে কোন মুসলমান দেশই ইহুদি নাসারা কাফেরদের দেশের মত উন্নত সমাজ গঠন করতে পারে নি , তখন তারা সব দোষ দেয় ইহুদি নাসারা কাফেরদের ওপর। এটা তারা করে হীনমন্যতা থেকে। কারন তাদের বিশ্বাস অনুযায়ী দুনিয়াতে মুসলমানদেরই প্রতিষ্ঠা করার কথা ছিল দুনিয়ার সব চাইতে সভ্য ও উন্নত সমাজ, কিন্তু বাস্তবে দেখে তারা কাফির নাসারাদের চাইতে হাজার বছর পিছিয়ে তখন তারা সব দোষ ইহুদি নাসারাদের ওপর দিয়ে তাদের ধ্বংস করার ব্রত গ্রহন করে এবং তার ফলেই আমরা ইদানিং দেখছি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষিত মুসলমান তরুনরা স্বেচ্ছায় ও আনন্দ চিত্তে আত্মঘাতী হামলায় যোগ দিচ্ছে। কিন্তু কথিত মডারেট মুসলমানরা বিষয়টির গভীরে প্রবেশ না করে , বলে তাদেরকে ব্রেইন ওয়াশ করা হয়েছে। তা ভাই কি দিয়ে তাদের ব্রেইন ওয়াশ করা হলো ? এটা যখন জিজ্ঞেস করা হয় , তখন তারা শুরু করে , সীমাহীন ত্যানা প্যাচানি। তাদের বোঝান সম্ভব হয় না যে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এসব মেধাবি ছাত্রদেরকে অন্য কিছু না , বরং প্রকৃত ইসলামী শিক্ষাটাই দেয়া হয়েছে আর সেটাই তাদেরকে আত্মঘাতী হামলা করে কাফের নাসারা দেরকে হত্যা করতে উদ্বুদ্ধ করেছে। অর্থাৎ প্রকৃত ইসলামই হলো সেই সাবান যা তাদের ব্রেইনকে ওয়াশ করেছে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “ইসলাম কোন ধর্ম না , এটা একটা চুড়ান্ত একনায়ক তান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থা এবং কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রদের ব্রেইন ওয়াশ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 + = 4