বুক রিভিউ। গাভী বিত্তান্ত। আহমদ ছফা



একজন আহমদ ছফা মানে কুষ্ঠ রোগে আক্রান্ত সমাজব্যবস্থার প্রতি বিষাক্ত ছোবল আর পাঠকের জন্য ব্যাপক বিনোদন।আফসোস, এখন আর বিশ্ববিদ্যালয়ে আহমদ ছফার মত সাহসী কন্ঠস্বরের জন্ম হয়না। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ,ডিন নির্বাচনে, উপাচার্য নিয়োগে,প্রশাসনিক ব্যাবস্থায় সিনেট ভবনে ভয়াবহ দুর্নীতি আর রাজনীতির প্রভাব দু:সাহসী কন্ঠে তুলে ধরেছেন আহমদ ছফা ‘গাভী বিত্তান্ত ‘বইতে। জাতির শ্রেষ্ঠ বুদ্ধিজীবীদের ক্ষমতা লোভ,অর্থ লালসা, নারী আসক্তি,প্রমোশনের জন্য নিজেকে নিচে নামানো সবকিছুই ফুটে উঠেছে।

বইটা থেকে কিছু লাইন সরাসরি তুলে ধরছি:

উপাচার্য নির্বাচন : এবারের নির্বাচনে ডোরাকাটা দলের জেতার সমূহ সম্ভাবনা।এই দলের ভিতর থেকে তিনজন যোগ্য প্রার্থী কে বেছে নিয়ে একটা প্যানেল মনোনয়ন করতে হবে। এই প্যানেল মনোনয়নে শুরু হল আসল গন্ডগোল। সাম্প্রতিক কালের ১২ জন ঝুনো প্রফেসর ডোরাকাটা দলের সমর্থক। তারা প্রত্যেকেই মনোনয়ন পেতে ভীষণ আগ্রহী। প্রত্যেকেই মনে করেন তার মত যোগ্য শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট নির্বাচনে পূর্বে কখনো আসেনি। সকলেই মনে করেন বিশ পঁচিশ বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার মহান ব্রতে নিযুক্ত আছেন, অবসরের আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের চেয়ারটাতে একটা পাছা ঠেকাতে পারলে নিস্বার্থ জ্ঞান সেবার একটা স্বীকৃতি অন্তত মিলে। এ জ্ঞান বৃদ্ধ মহান শিক্ষকদের মাঝে যে ঝগড়াঝাঁটি চলতে শুরু করল, অনেকেই আশংকা করলেন ডোরাকাটা দলটাই না আবার তিন টুকরা হয়ে যায়!!!!

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 + = 7