দিকে দিকে শুধু পাতানো খেলা!

দিকে দিকে শুধু পাতানো খেলার অভিযোগ;
গতকাল জানলাম বাংলাদেশের হীনতম পাতানো খেলার অভিযোগ আর তা হল, সাভার ট্র্যাজেডির রানা প্লাজা থেকে রেশমা নামক মেয়েটির উদ্ধার সরকারের সাজানো নাটক অর্থাৎ তা ছিল একটা সাজানো ৫০ মিনিটের স্বল্পদৈর্ঘ নাটক!

এইবার দেখি আরও কিছু রাজনৈতিক নাটকের অভিযোগঃ
১) দক্ষিন আফ্রিকা থেকে মহাত্মা গান্ধীর ভারত বর্ষে আগমন একটা নাটকের অংশ…
২) মহাত্মা-গান্ধী আর জিন্নাহর দন্ধ ব্রিটিশদের পাতানো খেলা…
৩) ১৯৭১ এর স্বাধীনতা আর বঙ্গবন্ধু হচ্ছে রাশিয়া-ভারতের নাটক…
৪) স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধু হত্যাও সমাজতান্ত্রিক বিশ্বের বলয় থেকে বাংলাদেশকে সরানোর নাটক…
৫) জিয়ার উত্থান আর জামাতিদের বাংলাদেশে পুনর্জন্মও একটা নাটক…
৬) আবার এরশাদের মাধ্যমে জিয়ার পতনও নাটক!
৭) ১৯৯১ এ এরশাদের পতনও একটা সফল নাটকের অংশ…
৮) ১৯৯৬ এর দুইটা নির্বাচন আর কেয়ারটেকার সরকারের জন্মও নাটক…
৯) সকল বোমা হামলা আর ২১ আগস্টের ঘটনাও নাটক…
১০) আমাদের মন্ত্রীদের সব প্রগালাপও নাটকের অংশ, এরা ভাঁড়ের ভূমিকায় আছে…
১১) গণজাগরণ হচ্ছে আওয়ামী নাটক…
১২) হিফাজতিরা জামাতের নাটক…
১৩) আগামী নির্বাচনের একটা বিশাল নাটক মঞ্চস্থ হবে আগামীতে…

এইবার কিছু ধর্মীয় আদর্শিক নাটকের অভিযোগ দেখিঃ
১) সনাতন ধর্ম থেকে এযাবৎ কালে যত ধর্ম আসছে, অর্থাৎ ধর্মীয় বিবর্তন সবই নাটকের অংশ!
২) ডারউইনের অভিযোগঃ “মানুষ ঈশ্বরের সৃষ্টি নয় বরং বহুবছরের বিবর্তনের দুর্ঘটনা মাত্র”! অর্থাৎ ঈশ্বর ধারনাও মানুষের সাজানো নাটক…
৩) কবি নজরুলের অভিযোগঃ
“যাহারা আনিল গ্রন্থ-কেতাব সেই মানুষেরে মেরে,
পূজিছে গ্রন’ ভন্ডের দল! মূর্খরা সব শোনো,
মানুষ এনেছে গ্রন্থ;-গ্রন্থ আনেনি মানুষ কোনো।” অর্থাৎ সব ধর্ম গ্রন্থই মানুষের সাজানো নাটক…

সব কিছু ছাপিয়ে একটাই নাটক বাস্তব তা হল এই বিশাল জনগোষ্ঠীই সমাজের মূল আদর্শ, অর্থাৎ মানবতায় দুনিয়ার মূল আদর্শ…
যতই নাটক করুণ যতই নষ্টামি করুণ সাগর-রুনি, ইলিয়াস, রাজীব, ত্বকি, মিরাজ, সহস্রাধিক শ্রমিকের মৃত্যুর নাটক করুণ !

মানবতা আপনাদের পায়ের কাছে কুকুর হয়ে বসে আছে আপনার ভিতরের কুকুরটাকে খুঁজতে।

“মানুষ আর সত্যের জয় প্রত্যাসন্ন ও অনিবার্য…”

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১১ thoughts on “দিকে দিকে শুধু পাতানো খেলা!

  1. যতই নাটক করুণ যতই নষ্টামি

    যতই নাটক করুণ যতই নষ্টামি করুণ সাগর-রুনি, ইলিয়াস, রাজীব, ত্বকি, মিরাজ, সহস্রাধিক শ্রমিকের মৃত্যুর নাটক করুণ !

  2. মানুষ বড় অস্থির হয়ে আছে। কেমন
    মানুষ বড় অস্থির হয়ে আছে। কেমন যেন একটা পরিবেশ… ভাল্লাগছে না… এটা সুস্থতা নয়…

  3. এই ভাঁড়ামো ভবিশ্যতে সঠিক
    এই ভাঁড়ামো ভবিশ্যতে সঠিক ইতিহাস কে বিতর্কিত করবে। মানুষ সত্য জানার পরেও কনফিউজড থাকবে এবং অসাধুরা ব্যাক্তিস্বার্থে তা ব্যাবহার করারও সুজোগ পাইব।

    1. একমত হতে পারলাম না!! কারনঃ
      একমত হতে পারলাম না!! কারনঃ ‘মানুষ আর সত্যের জয় প্রত্যাসন্ন ও অনিবার্য..’
      ১৯৭৫ থেকে ১৯৯১ আমাদের অন্ধকারে রেখেও কেউ সত্যকে আড়াল করতে পারেনি!!
      আজ আমরা ১০-১২ বই পড়লেই সত্যটা বুঝতে পারি!! আজ থেকে শত বছর পরেও তাই হবে!! এই যুগে আর সত্যকে মিথ্যা বানানো সম্ভব না…

    1. কবি নজরুলের এই অভিযোগ আমার
      কবি নজরুলের এই অভিযোগ আমার কাছে সহস্রাব্দের সেরা ধাপ্পাবাজীর অভিযোগ মনে হচ্ছেঃ
      “যাহারা আনিল গ্রন্থ-কেতাব সেই মানুষেরে মেরে,
      পূজিছে গ্রন’ ভন্ডের দল! মূর্খরা সব শোনো,
      মানুষ এনেছে গ্রন্থ;-গ্রন্থ আনেনি মানুষ কোনো।” অর্থাৎ সব ধর্ম গ্রন্থই মানুষের সাজানো নাটক…


  4. মানুষ আর সত্যের জয়

    মানুষ আর সত্যের জয় প্রত্যাসন্ন ও অনিবার্য..’
    ১৯৭৫ থেকে ১৯৯১ আমাদের অন্ধকারে রেখেও কেউ সত্যকে আড়াল করতে পারেনি!!
    আজ আমরা ১০-১২ বই পড়লেই সত্যটা বুঝতে পারি!! আজ থেকে শত বছর পরেও তাই হবে!! এই যুগে আর সত্যকে মিথ্যা বানানো সম্ভব না..

    শতভাগ সহমত….

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

23 − 16 =