একগুচ্ছ ছড়াঃ প্রেম, যৌনতা, ঘৃনা ও ঘুম।

প্রেম

বিরক্তিকর এক অনুভৃতি,
অামি যেন প্রতিক্ষণে ধুকে ধুকে মরার-
শতাব্দীর নিকৃষ্টতম প্রতিকৃতি,
না খেলে লালা ঝরে,
খাওয়ার পরে গলা ধরে,
জীবনের অপূরণীয় মহা ক্ষতি,
তবুও জীবনের মহামূল্যবান কিছু,
যার শেষ পরিনিতি –
অক্সিজেনশূন্য নির্জব প্রকৃতি।
————————————————–

যৌনতা,

বুঝি,পাপে পরিপূর্ণ করাবেই বলে,
অামায় দিলে যৌনতা,
কি হতো করলে পাথর অামায়?
দেখতে যেতাম না,
তোমার সৃষ্টি লালনা কিংবা, কামদেবী গীতা।
প্রতিটা দীর্ঘশ্বাস,
চরম অতৃপ্তিকর প্রতিটা রাত,
এসব দেখে তুমি বেশ মজা লুটছো,
অার অামি প্রতিবাদ করলেই হারাম জান্নাত।

————————————————————-

ঘুম

অামি এক বিপন্ন গ্রহচারী,
বিষম বিষাদে এ দেহ ভারী,
সবকিছুর শেষে,
একটু প্রশান্তচিত্তের অভিলাষে,
এক অজস্র ঘুমের প্রত্যাশী।
প্রভুত্ব তোমাতেই মানী,
প্রভু ঘুম দাও, মুছে দুশ্চিন্তার গ্লানী।

——————————————————————–
ঘৃনা

নিজ কর্মে নিজেই ঘৃনিত,
বিবেক নামক বস্তুতে দংশিত,
কেন ই বা করলাম উহা,
কেন ই বা জাগে অনুসূচনা,
ভাবতে গেলেই ঘুরায় মাথা-
জীবন শুধুই বিভ্রান্তিকর গোলক ধাঁধা।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 27 = 33