আল্লাহর নিজের কথার বরখেলাপ এবং নারীর প্রধানমন্ত্রীত্ব

যে দেশে নারী প্রধানমন্ত্রী সে দেশে নাকি ভুলেও শান্তি আসবে না মামারাত্মক গজব তো বাহবা(!) আচ্ছা এইদেশে নাকি পাকিস্তান,ইরাক, ইরান,তুরস্ক,ফিলিস্তিন,আফগানিস্তান এর মতন আঈন নাই দেখে, পুরুষ পদ্দান মুন্ত্রি নাই দেখে শান্তি নাই।আচ্ছা বাপজান কন তো ওইসব দেশ কতটা শান্তিতে আছে ঠিক কতটা?
.
আপনি যদি বলেন যে মহিলা প্রধানমন্ত্রী তাই আমাদের দেশে শান্তি নাই, তাহলে আপনাকে মহিলা প্রধান অন্যদেশ গুলার দিকে তাকানোর অনুরোধ জানাচ্ছি।মহিলা লাফায়া লাফায়া ক্ষমতায় আসে না,তিনি আল্লাহর ইচ্ছাতেই ক্ষমতায় আসেন, মুসলিমের একটা মেয়ে হয়তো আল্লাহর কাছে কান্নাকাটি মোনাজাত করেই ক্ষমতায় এসেছে,নাকি শেখের বেটি নিজের ক্ষমতা বলেই আসন পাইছে?
.
সেকেন্ড, যারা বলেন যে দেশে টুপিওয়ালাদের ফাসিতে ঝুলানো হয় সে দেশে শান্তি কোথা থেকে আসবে, কথাও তো তাই যে দেশে চদ্মবেশি টুপিওয়ালা এতোবছর বুক ফুলিয়ে থেকে গেলো সে দেশে আল্লাহ শান্তি কেমনে দিবে?যে দেশে ধর্ষণ কর্তন সেরে এসে ছদ্মবেশী আলেম সেজে থাকে সেই দেশে আল্লাহ কেমনে শান্তি দিবে? টুপিওয়ালা- এখানে টুপিওয়াল ছদ্মবেশিদের ফাসিতে ঝুলানো হয়েছে আলেম দের না,চোখ খোলা রাখলেই দেখবেন ছদ্মবেশি টুপিওয়ালাদের জন্যে তাদের আসল দেশ মানব বন্ধনে নেমে পড়েছিলো(খায়শে পাকেস্থান)
.
আবার বলেন যে দেশের ভারতের সাথে সম্পর্ক থাকে তারা কেমনে শান্তির আশা করে? পাকিস্থান,ইরান,ইরাক,ফিলিস্তিন, আফগানীস্থান তো মাশাল্লা সেইরাম আলাদা ভারতের সাথে হাত মেলায় না তাহলে তাদের তিনবেলা বোম খেয়ে বাচতে হয় কেনো?
.
আপনি যদি আলেম বলতে বাংলা ভাই,আতাউর সানী,নিজামী , কাদের, কামরুজ্জামান,সাঈদিদের বুঝান তাহলে তো কওমী মাদ্রাসার আলেম রা লজ্জায় আত্মহত্যা করবে, চরমোনাইর পীর অবসরে চলে যাবে,
.
কি কি পেলে শান্তিতে থাকা বলে একটু লিস্ট দেন দেখি শান্তিতে আছি কিনা?ও হ্যা মনে পড়েছে আমাদের ইসলামে বলা আছে যেই অবস্থাতেই তুমি আছো আল্লাহ তোমাকে এই অবস্থায় রেখেছে অন্য কারোর হাত নেই,সুতরাং নিজ অবস্থানে খুশি না থাকলে আল্লার সাথে জিহাদ হিয়ে যাবে কিন্তু।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 2 = 3