অন্ধকারে

কে আর বাঁচায় রূপের খাঁচায় বন্দী যখন মন
খেলার ছলে যাবে খেলে বুঝবি নাকো
তফাত কিসে – জীবন আর মরণ।।

নয়ন বানে বজ্র হানে ভাবিস আলোক বাতি
খেলার শেষে ফকির বেশে ঘুচবে যে ভ্রম
বুঝবি তখন নেইকো দিবস- আঁধার কতো রাতি।।

বর্ণছটা রূপের ঘটা অন্ধ করলো আঁখি
কানার কাছে -দাম কী আছে ? তুই যে কানা
এখন তোরে দিবে পাখি ফাঁকি।।

জীবন ঘাটে পাটে পাটে করলি সাজের খেলা
সাজ ফুরালো -এখন কালো – আলো খুঁজিস
দিনের শেষে অন্ধ বেশে -এই সাঁঝের বেলা।।

আছিস পড়ে অন্ধকারে থাকতে জীবন পালা
নইলে যে তোর -আসবে না ভোর -থাকতে রে দম
হয়ে সচেতন এবার মিটা মনের জ্বালা।।

চুপিসারে ধীরে ধীরে যে তোরে করছে রে ভাই ক্ষয়
না করে ভয়- আর দেরী নয় -খোলরে আগল
ভাঙ না খাঁচা ভোল না এবার মরণ বাঁচার ভয়।।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 + 6 =