বান্ধবী যখন…

ঈদ এলেই কেবল বাড়িতে আসা হয়।ঐদিকে গ্রামের কতজন মারা যান,কত জনের বা বিয়ে হয় এসব কোনো অনুষ্ঠানেই আসা সম্ভব হয়না।তাই অন্তত ঈদের দিন গ্রামের যতদূর সম্ভব চেষ্টা করি সবার ঘরে গিয়ে খোঁজখবর নিতে।
অনার্স সেকেন্ড ইয়ারে পড়ি তখন,ক্লাসমেট অনেক বান্ধবীর ‘লন্ডনী জামাইয়ের’ সাথে বিয়ে হয়ে পাড়ি জমিয়েছে বিলেতে।গ্রামে তেমন আসা হয়না তাই কার কবে বিয়ে হলো সেই খোঁজখবর ও রাখা হয়না ঠিকমতো।

যাইহোক, ঈদের দিন সবার ঘরে ঘরে যাচ্ছিলাম,ঘুরে ঘুরে খোঁজখবর নিচ্ছিলাম।রিয়াজ চাচার ঘরে ঢুকলাম। রিয়াজ চাচার সাথে একসাথে ফুটবল-ক্রিকেট খেলছি ছোটবেলায়,এলাকার সম্পর্কে চাচা হলেও চাচা বলতে যে বয়োবৃদ্ধ মুরব্বিকে বোঝায় সেরকম নন রিয়াজ চাচা।
রিয়াজ চাচার আম্মার(আমার সম্পর্কে দাদী)সাথে বসে গল্প করছিলাম। দাদীদের সাথে সম্পর্কের রসায়নগুলো রসগোল্লার মতো।আর রিয়াজ চাচার মা যেনো রসের হাড়ি।
আদর করে আমাকে ডাকেন ‘মাস্টর দাদা’।

ঈদের দিন সবার ঘরে ফিরনী বা সন্দেশের (আমরা যাকে হান্দেশ বলি) আয়োজনে থাকে ভরপুর।কয়েকটা ঘরে ঢুকেই বের হয়ে গেছি,সন্দেশ বা ফিরনী না খেয়ে। রিয়াজ চাচার ঘরে ঢুকে আর বের হবার উপায় নাই,দাদী জোরজবরদস্তি শুরু করছেন সন্দেশ খেতে হবে,এতোদিন পর আসছি,আর কবে আসবো,তিনি বেঁচে থাকবেন কি মারা যাবেন!
ভাবলাম এরকম কথা আর ফেলা যায়না।

নাস্তার ট্রে নিয়ে একজন আসলেন, দেখে চেনা চেনা মনে হচ্ছে।
আরে এ তো মীম,আমার স্কুল জীবনের বান্ধবী!
স্কুলে থাকতে হই-হুল্লোর, ছুটোছুটি,কুতকুত খেলা বা ঘোল্লারছুট খেলাগুলো একসাথে খেলেছি।প্রাইমারি স্কুলে থাকাকালীন সময়ে তো কতো মারামারি করেছি যার জন্য স্কুলের হেডস্যার একবার আমাকে বেত দিয়ে মেরেছেন,যে আঘাত মনে হচ্ছে এখনো হাতে লেগে আছে।কলেজে উঠে আমি চলে যাই ঢাকায়,মিমরা ভর্তি হয় এলাকার কলেজে।সেই থেকে আজ প্রায় ৪ বছর তার সাথে দেখা।

মিমকে আমরা ‘পঁচা ডিম’ বলে ডাকতাম!
যেমনি বলতে যাবো, “কিরে পঁচা ডিম,এতোদিন পর তোর সাথে দেখা হলো।” তখনই রিয়াজ চাচার আম্মা বলে উঠলেন, “এই হলেন তোমার চাচী (রিয়াজ চাচার বউ)।”

আকাশ যেনো আমার মাথায় ভেঙ্গে পড়লো!
পঁচা ডিমকে কখনো ‘মিম’ বলে ডাকিনি,তাকে কিনা এখন ‘চাচী’ বলে ডাকতে হবে!
আমার সামনের টেবিলে ট্রে রেখে পঁচা ডিম বলে “বাবা, তুমি চা খাও?”
কী সহজে পঁচা ডিম আমাকে ‘বাবা’ বলে ডাকলো!
কবি শামসুর রহমানের ভাষায়,
“কী সহজে হয়ে গেলো বলা,
কাঁপলো না গলা!”

আমিও শ্রদ্ধার সহিত বললাম, “হ্যা চাচীআম্মা, আমি চা খাই।”
স্কুল জীবনের বান্ধবীকে আজ চাচী বলে ডাকতে হচ্ছে!সামনের ঈদে হয়তোবা চাচাতো ভাইয়ের(বান্ধবীর ছেলে) হাত ধরে হাটা শেখাবো।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “বান্ধবী যখন…

  1. ভাল লাগলো
    ভাল লাগলো

    ==============================================
    আমার ফেসবুকের মূল ID হ্যাক হয়েছিল ২ মাস আগে। নানা চেষ্টা তদবিরের পর গতকাল আকস্মিক তা ফিরে পেলাম। আমার এ মুল আইডিতে আমার ইস্টিশন বন্ধুদের Add করার ও আমার ইস্টিশনে আমার পোস্ট পড়ার অনুরোধ করছি। লিংক : https://web.facebook.com/JahangirHossainDDMoEduGoB

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

6 + 4 =