আমি চলতে থাকি

বহির্মুখ চেতনার উষ্ণ অনুভূতি
দৈনিক ঝরে পড়ে-
ইতিহাস বিকৃত;বিকৃত মগজ;
ঠিকানাছাড়া চলন্ত জীবন
চিলেকোঠায় বসে আকাশের স্বাদ নেয়।

আমি প্রান্তিকের কথা বলতে গিয়ে-
সাম্যতার কোন এক প্রচ্ছদে
বিস্মিত হয়ে ওঠি;

প্রত্নতত্ত্বের ধুলো-
স্নায়ুর নিরেট রসায়নে
সঞ্চিত করে রাখে হাজার বছর,
স্তরে স্তরে যার প্রতিহত সভ্যতার
বিমর্ষ ক্লান্তি, যুগের বঞ্চনা, শতাব্দীর প্রাপ্তি।

উন্মুক্ত মানুষের সমাজে-
প্রথাবদ্ধ স্থিরতা
আঁকড়ে ধরে পিছন থেকে;

অগ্রবর্তী সংস্কৃতির শরীর চুয়ে
ঝরা রক্তের প্রবাহ-
আমাকে প্রতিবাদী করে;
আমাকে সংগঠিত করে;
আমাকে অনেক দূরের পথের
ঠিকানায় নিয়ে যায়।

আমি চলতে থাকি।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

60 − 52 =