ধার্মিকের সাথে কথোপকথন

এই লেখাটা অনেক দিন আগের। আমার এক তোন দেশের বাইরে থাকে। সে দেশে এলে কী ধরনের পরিস্থিতি হতে পারে? অথবা বলা যেতে পারে, বাংলাদেশের একজন স্বনাম ধন্য লেখিকার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে এদেশের আলেম সমাজে কী ধরনের ক্রিয়া- প্রতিক্রিয়া হতে পারে তার একটি নমুনা।
যদিও বাস্তবের সাথে কিছু অমিল আছে *sad*
যেমন, এইসব লোকেরা যুক্তিতর্কে যায় না। তারা তাদের ইমানী দন্ড সব সময় তুলে রাখে। আর এটা খুবই সেনসেটিভ। একটু সুরসুরী লাগলেই দাড়িয়ে যায়। আর রক্তপাত রক্তপাত করে।
তবে নাসরিনরা দেশে আসার পর এমন কোন সিচুয়েশনে পরলেও পরতে পারে।

এখানে আমার সাথে একজন জিহাদীর কথা হচ্ছে।

একজন জিহাদী হাতে চাপাতি নিয়ে দৌড়াচ্ছে। আমি তাকে থামিয়ে তাক এই ধরনের দৌড়ানোর কারন জিজ্ঞাস করার পর থেকেই এই কথোপকথনের শুরু……
> সে নাস্তিক, ধর্ম ত্যাগী, তাকে খুন করলে বেহেস্ত লাভ করা যাবে। তাকে খুন করে আমি সেটা লাভ করব।
>> আরে ভাই থামেন।
> না, বাংলায় নাস্তিকদের স্থান নাই ।
>> তাই বলে তাকে খুন করতে হবে?
> ইসলামের স্পস্ট বিধান। ধর্ম ত্যাগীদের খুন করার নির্দেশ আছে।
>> এই বিধান কে তৈরি করেছে?
> এটা আল্লার তরফ থেকে ফয়সালা।
>> তাই নাকি? কোরানে আছে?
> না মানে শুনেছি। হাদিসে আছে।
>> ওক্কে আপনে তাকে খুন কইরেন। খুন করে বেহেস্তে গিয়ে হুরদের কোলে শুয়ে জিলেপী খাইয়েন। আগে আসেন একটু পরামর্শ করি। টাইম আছে তো?
> বেশি টাইম নাই সে পালাবে।
>> পালাবে না।
>সে পালালে আপনাকে খুন করব।
>ওক্কে কইরেন *i-m_so_happy* (লোকটা শান্ত হয়েছে)
>>আপনাকে কিছু প্রশ্ন করব। আপনার কাছে উত্তর না থাকলে আলোচনা করে উত্তর নির্ধারন করব। ঠিক আছে?
>হঁ ঠিক আছে।
>>নাসরিন তার ধর্ম ত্যাঁগ করছে?
> হ্যাঁ করছেই তো?
>> তাহলে?
> তাহলে আবার কি? ধর্মত্যাগীর এক মাত্র শাস্তি মৃত্যু দন্ড।
>> বুঝলাম *i-m_so_happy*
>> এটা ইসলাম ধর্মের আইন?
> হঁ
>> ইসলামের ফরায়েজী আইন আছে?
> আছে ।
>> হাদিসে ভুল আছে?
> হাদিসের ভুল নাই। জাল আর জঈফ হাদিস আছে।
>>ওক্কে ঐ দিকে যাব না। *i-m_so_happy*
>> বাংলাদেশে অন্য আরো অনেক ধর্ম আছে?
> হঁ আছে
>> তারা কি ফরায়েজী আইন মানে?
> না । তারা মুসলমানদের ফরায়েজী আইন মানবে কেন?
>> ঠিক আছে। কিন্তু আইন তো সবার জন্য সমান?
> আরে ওরাতো অন্য ধর্মের ওদের উপর কি ইসলামী আইন চলবে?
>>না।
>তো এইসব বলে সময় নষ্ট করছেন কেন? আমি নাসরিনকে খুন করে বেহেস্তে যাব
>>আরে ভাই এইবার আসেন মুল পয়েন্টে আসি।
> কিন্তু ফাল্তু প্রশ্ন করবেন না।
>> ওক্কে করব না। আচ্ছা আপনিতো বললেন অন্য ধর্মের অনুশারীদের উপর ইসলামী আইন চলবে না। তবে নাসরিনও তো ধর্ম ত্যাগ করেছে তার উপর কি ভাবে ইসলামী আইন প্রয়োগ করবেন?
> না সে নাস্তিক।
>> আরে রাখেন আপনার আস্তিক আর নাস্তিকের প্রশ্ন। নাস্তিক খুনের বিধান ইসলামে নাই । খুনের বিধান হল ধর্ম ত্যাগীদের।নাসরিন
>নাসরিন ধর্ম ত্যাগ করছে।
>> আমি না করি নাই।
>প্যাঁচাচ্ছেন কেন?
>> সে তো এখন আর মুসলিম না। সে এখন অন্য ধর্মের । ইসলামী আইন যদি কারো উপর প্রয়োগ করতে হয় তাহলে যারা বাপ দাদার ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম হয়েছে বা হচ্ছে তাদেরকে খুন করতে হবে । কারন একজন যখন এবং যতক্ষণ ইসলাম ধর্মে থাকবে ততক্ষণ তার উপর ইসলামের বিধান বলবত্‍ থাকবে। তাহলে বিধর্মী যারা ইসলাম গ্রহণ করছে তাদেকে ধরে ধরে খুন করেন।
> না মানে, ওরা তো মুলমান
>>আচ্ছা। যুদ্ধ ছাড়া কাউকে খুন করলে তার শাস্তি কি জানেন?
> আচ্ছা ঠিক আছে তাকে খুন করব না। কিন্তু সে নাস্তিক, তার মাধ্যমে এখন নানা ধরনের পাপ কু কর্ম হবে।
>> তাকে যদি বিয়ে দিয়ে দেই, আর তার স্বামীর সাথে করলে কি আপনার ক্ষতি আছে?
>না
>>ঠিক আছে ওর বয়ফ্রেণ্ডকে ফোন দেই । সে এলে আজই বিয়ে। আপনে বিয়ে পড়াবেন । ঠিক আছে ?
ওর বয়ফ্রেণ্ড এসেছে। ওর গায়ে জ্বর। আর জল বসন্ত। তার পরেও চলে এসেছে এবং দুই জনের বিবাহ সম্পন্য হয়েছে , (সহীহ ইসলামী তরিকায় *biggrin*
এখন তারা আমাদের বাড়িতে। তাদের জন্য আমার ঘরটা ছেড়ে দিছি *wink*

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “ধার্মিকের সাথে কথোপকথন

জহিরুল ইসলাম শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 3 = 3