রঙ্গ সংবাদ-২ : ‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’ – তারেক মোহাম্মদ জিয়া

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের জন্য আন্দোলন করার কারণে সরকারের অতিরিক্ত চাপে বিএনপি’র স্বঘোষিত জেঠু চেয়ারম্যান এবং জামাতে ইসলামীর বিএনপি শাখার মাহাথীর মোহাম্মদ তারেক জিয়া হঠাৎ করে অতিরিক্ত সুস্থ হয়ে আজ লন্ডনের অভিজাত ‘পাম ট্রি রেস্তোরা’র এক সভায় বক্তৃতায় বলেন, গত পাঁচ বছরের তুলনায় বিগত দিনগুলোতে সরকার আমাকে এবং ইসলামী-জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের কর্মীদের অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগ করায় আমি দ্রুত আরোগ্য লাভ করেছি। এই চাপ আরো আগে প্রয়োগ করা উচিত ছিল বলে তিনি মত প্রকাশ করেন। তাহলে তিনি আরো আগেই আরোগ্য লাভ করে সরকারকে ক্ষমতা থেকে হটিয়ে বাংলাদেশে ইসলামী-জাতীয়তাবাদী বিপ্লব সংগঠিত করতে পারতেন।

হেফাজতি ফর্মূলা দেরীতে প্রয়োগ করায় তিনি মগবাজারীদের কড়া সমালোচনা করে বলেন- ক্ষমতা আরোহনের স্বার্থে আপনাদের এই অপরাধ আমি ক্ষমা করে দিয়েছি। আসুন, সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাংলাদেশে ইসলামী-জাতীয়তাবাদী বিপ্লব ঘটাই। ইসলামে নারী নেতৃত্ব হারাম, তাই আগামী ইলেকশনে প্রধানমন্ত্রী পদে নারী চেয়ারম্যান পরিবর্তন করে জাতীয়তাবাদী রাজপরিবারের ধারানুযায়ী আমাকে সেই সুযোগ আপনারা দিয়েছেন বলে আমি আগে থেকেই ধরে নিয়েছি।

এর আগে বাংলার মাহাথীর তারেক জিয়ার লন্ডনের ‘ডকল্যান্ড ক্রাউন প্লাজা হোটেলে‘ -এ বক্তব্য রাখার কথা ছিল। কিন্তু রাজপুত্তুর সে সভায় পৌছানোর আগে বিএনপি’র বাংলাদেশী-জাতীয়তাবাদী ও ইসলামী-জাতীয়তাবাদী দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি-কিলাকিলির কারণে লন্ডন পুলিশ সভার উপর ১৪৪ ধারা জারি করেন। যার ফলে ইসলামী-জাতীয়তাবাদী নেতা ‘তারেক মোহাম্মদ মাহাথীর জিয়া’ সরাসরি পাম ট্রি রেস্তোরার সভায় চলে আসেন।

বিভেদ ভুলে বিএনপি নেতাদের ইসলামী-জাতীয়তাবাদী চেতনায় ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে এক্ষেত্রে ওয়ান-ইলেভেনের কথা স্মরণ করিয়ে দেওয়ার জন্য উত্তেজিত হয়ে ডায়াসের উপর উঠতে গেলে ‘আহ’ করে কঁকিয়ে উঠে পাছায় হাত দিয়ে বসে পড়েন। সভায় উপস্থিত সবাই তারেক জিয়ার হঠাৎ এই চিটপটাং-এ হইহই রৈরৈ করে উঠেন। তিনি সবাইকে শান্ত হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, সরকারের চাপে তিনি সুস্থ হয়ে উঠলেও ১/১১-র কথা স্মরণ হলে তিনি ডিম প্রবেশ স্থানে প্রচন্ড ব্যাথা অনুভব করেন। তাই তিনি ………।

সভায় উপস্থিত সকলে রাজপুত্তুরকে জায়গায় বসেই বক্তৃতা দেওয়ার অনুরোধ জানালে তিনি বলেন- “আমাদের বসে থাকার সময় আর নেই। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন যেন হয়, এই জন্য যার যার অবস্থান থেকে সবাইকে সক্রিয় হতে হবে।”

তিনি বলেন- দেশের সকল মাদ্রাসা, এতিমখানা, মসজিদের সকল মুসল্লিদের নিয়ে মগবাজারীদের পরামর্শ মত দেশে ইসলামী-জাতীয়তাবাদী মতাদর্শ প্রতিষ্ঠায় সরকারের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলুন। আমার সকল দূর্নীতি এক করলেও আওয়ামীলীগ ও শেখ হাসিনার ‘পদ্মাসেতু’ দুর্নীতির সমপরিমান হবেনা। তাই তিনি সরকারের সবাইকে পদ্মাসেতুর দুর্নীতি’র কারণে আগামীতে তার মত ভাগ্যবরণ করার প্রস্তুতি নিতে বলেন।

পাছায় হাত রেখে ছয় বছর আগে প্রাপ্ত পায়ুদেশে ডিম্বথেরাপীর ব্যাথায় মুখ বিকৃত করে আগামী দিনের বাংলার খলিফা বলেন- “শেখ হাসিনা কিছুদিন আগে পার্লামেন্টে একটি আনপার্লামেন্টারি কথা বলেছিলেন, ‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’। আমিও একদিন সংসদের ঐ সিটে বসে (খলিফারা দাঁড়িয়ে কথা বলেনা) আপনার মত বলব, ‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’। আমাদের আপনাদের চেয়েও অনেক দক্ষ বেয়াদ্দপ পার্লামেন্টারিয়ান আছে। তারা সংসদে আপনাদের এখনকার সব কিছুর জবাব দেবে একদিন এনশাল্লাহ”

২০০৭ সালে জরুরি অবস্থা জারির পর গ্রেপ্তারকৃত তারেক মোহাম্মদ জিয়া পরের বছর জামিনে মুক্তি নিয়ে যুক্তরাজ্যে যান। ডজন খানেক মামলার আসামি তারেক এরপর আর দেশে ফেরেননি। তিনি ইসলামী-জাতীয়তাবাদী সালতানাতের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নির্বাচিত হয়ে তারপর দেশে ফিরবেন বলে সভায় দৃঢ়কণ্ঠে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৮ thoughts on “রঙ্গ সংবাদ-২ : ‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’ – তারেক মোহাম্মদ জিয়া

  1. তারেক চুরার চেহারা এইরকম
    তারেক চুরার চেহারা এইরকম ক্যান? ডিম্বথেরাপীর ব্যাথা কি পুর্নিমা অমাবস্যায় চাগাড় দিয়ে উঠে? :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + 4 =