অপেক্ষা

রাতে যখন ঘুমাতে যাই,

এক বুক হতাশা থাকে গোটা মনজুড়ে,

সারাদিনে রোজ একটু একটু করে হতাশাগুলো জমা হয়,

ফাঁকে ফাঁকে মনে হয় তুমি নেই, – তবু তুমি আছো,

হয়ত দূরে আছো,

তবু আছো আমার সাথে!

ওই যে রাতে যে একরাশ হতাশা নিয়ে ঘুমাতে যাই,

সেই হতাশার সাথে একটা আশাও মনের এক কোণে রোজ জন্ম নেয়,

রোজ ভাবি, “এই তো কাল সে সকাল হবে,

কাল সূর্যের সাথে আমি তোমাকে আমার মতো করে একটুখানি দেখবো,

তোমার কথা শুনবো,

আর শুনবো – তোমার মুখে একটু ভালোলাগা ভালোবাসাখানি!”

না।

শুনি না।

শুনতে পাই না।

রোজ সারারাত ঘুমে – অঘুমে, চেতনে – অবচেতনে

যে অপেক্ষা করে থাকি,

সে অপেক্ষাকে আবারও আরও একটি দিন শেষে হতাশায় রূপ নিতে দেখি।

হয়ত একদিন,

কোনো এক দিন তুমি ডাকবে,

আসবে নিজের থেকে –

একটুখানি ভালবাসতে!

– সৌম্যজিৎ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 15 = 24