যমুনাপাড়ের ইস্টিশন

যমুনাপাড়ের ইস্টিশন
কীর্তিবতী মনান্তরের ইশতেহার,
যুগান্তরের সাক্ষ্য
যেন নৃতত্ত্বের বধ্যভূমি,
হাওয়া খেতে খেতে স্কুল শার্ট খুলে
যমুনাপাড়ের ইস্টিশন তোমায় ভালবেসে।

হুইশেল ভেঙ্গে ফেলে, আসর যেখানে
সমান্তরাল পথ অতিদূরে চোখ ফেলে;
বয়েসি লোকের স্মৃতিমেদুর
আসাম-বেঙ্গল মালগাড়ী,
কালের দেয়ালে স্তব্ধ থাকে পুরনো
কালো কাটার ঘড়ি।
তবে বর্তমানে নিয়ম করে মানুষের শেষ ঘটে
যমুনাপাড়ের ইস্টিশন এখনো তোমায় ভালবেসে।

লাল ইটের দেয়াল, পুরনো সিক্ত শৈবাল
হ্যাজাকের স্থলে উজ্জ্বল বাতি,
আগমনে উল্লাস ঢেলে দেয়
বিভূঁইয়ের পথিকের জন্য
রমণীর সঙ্গম উতলা হয়।
এখন থেকে অনেকদিন
মানুষের বিষাদ বাড়ায় টনটন ঘন্টাধ্বনি
যমুনাপাড়ের ইস্টিশন তোমায় ভালবাসি।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

51 + = 58