সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ১৫ তম কেন্দ্রিয় কাউন্সিলের মাধ্যমে ষোড়শ কমিটি ঘোষনা

ছাত্রসমাজের অগ্রবর্তী চিন্তার পথিকৃৎ সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের পঞ্চদশ কাউন্সিলের মাধ্যমে জনার্দন দত্ত নান্টুকে সভাপতি এবং ইমরান হাবিব রুমনকে সাধারণ সম্পাদক করে ষোড়শ কমিটি গঠিত হয়েছে।

সভাপতিঃ জনার্দন দত্ত নান্টু
সহ-সভাপতিঃ রাহাত আহমেদ
সাধারণ সম্পাদকঃ ইমরান হাবিব রুমন
সাংগঠনিক সম্পাদকঃ আল কাদেরী জয়
দপ্তর সম্পাদকঃ নাসির উদ্দিন প্রিন্স
অর্থ সম্পাদকঃ রুখসানা আফরোজ আশা
প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকঃ মৈত্রী বর্মণ
স্কুল বিষয়ক সম্পাদকঃ কিবরিয়া হোসেন
সদস্যঃ
সাদেক হোসেন,
মাসুদ রানা,
শ্যামল বর্মণ,
রাশিব রহমান,
জুনায়েদ ইসলাম,
কিশোর আহমেদ,
মনীষা চক্রবর্তী,
সোহরাব হোসেন।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর কেন্দ্রিয় কাউন্সিল ২৭-২৮মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টি.এস.সি’র মুনীর চৌধুরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ছাত্ররাজনীতির আদর্শবাদী ধারাকে শক্তিশালী করে সর্বজনীন শিক্ষার গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের সংগ্রামকে বেগবান করা, সাভারের রানা প্লাজাসহ সকল শ্রমিক হত্যার বিচার, যথাযথ ক্ষতিপূরণ এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও জামাত-শিবির সহ সাম্প্রদায়িক রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবিকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই কাউন্সিল। কাউন্সিলে রাজনৈতিক, সাংগঠনিক ও ভবিষ্যৎ আন্দোলনের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয়। শাসকশ্রেণীর শিক্ষাসংকোচনের নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে কাউন্সিল।
২৮ মে ২০১৩ সকাল ১১টায় অপরাজেয় বাংলা থেকে কাউন্সিল উপলক্ষে মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জনার্দন দত্ত নান্টু, ইমরান হাবিব রুমন, রাহাত আহমেদ, আল কাদেরী জয় এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতৃবৃন্দ।সমাবেশ পরিচালনা করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নাসির উদ্দিন প্রিন্স। বক্তারা শাসকশ্রেণীর শিক্ষাসংকোচনের নীতির বিরুদ্ধে দেশব্যাপী তীব্র প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে সন্ত্রাস-দখলদারিত্বের আদর্শহীন বুর্জোয়া রাজনীতি প্রত্যাখ্যান করে আদর্শবাদী রাজনীতির ধারাকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান। পরে একটি সুসজ্জিত মিছিল ক্যাম্পাস প্রদক্ষিন করে ডাকসুতে এসে শেষ হয়।
পরবর্তীতে বিকাল ৪টায় টি.এস.সি’র স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে আলোচনাসভা ও পঞ্চদশ কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত ষোড়শ কমিটি পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। আলোচনা সভায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাসদের সাধারন সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান, তেল-গ্যাস-বিদ্যুত-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এবং ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নজরুল ইসলাম রাসেল।
কমরেড খালেকুজ্জমান তার বক্তব্যে বলেন দেশের ক্রান্তিলগ্নে বারবারই ছাত্র-যুব সমাজ ঐতিহাসিক ভূমিকা রেখেছে। আজও দেশ এক গভীর ক্রান্তিকাল পার করছে। বুর্জোয়া দ্বিদলীয় পাল্টাপাল্টি রাজনীতির কবলে পড়ে সারা দেশের জনগন নাজেহাল হয়ে পড়েছে। শিক্ষা, সংস্কৃতি আর নৈতিকতাকে এরা ধ্বংস করেছে। জাতীয় সম্পদকে এরা সাম্রাজ্যবাদী সংস্থাগুলোর হাতে তুলে দিচ্ছে। মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পৃষ্ঠপোষকতা করে এদরকে মহীরুহে পরিণত করেছে ক্ষমতাসীন শাসকগোষ্ঠী। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার দায়িত্ব আজ পালন করতে হবে ছাত্রসমাজকে।
অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, জাতীয় সম্পদের উপর সাম্রারাজ্যবাদী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ছাত্রসমাজের রয়েছে অগ্রণী ভূমিকা। সম্প্রতি রামপালে তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের নামে সুন্দরবন ধ্বংসের যে পায়তারা সরকার করছে তার বিরুদ্ধে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টকে সক্রিয় লড়াইয়ের আহ্বান জানান তিনি। পরে ছাত্র ফ্রন্টের ষোড়শ কমিটি পরিচয় করিয়েদেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের প্রাক্তন সাধারন সম্পাদক ও ডাকসুর সাবেক সদস্য কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ। পরবর্তীতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনা করে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এবং গণসঙ্গীতশিল্পী মাহমুদুজ্জামান বাবু।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১৫ thoughts on “সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ১৫ তম কেন্দ্রিয় কাউন্সিলের মাধ্যমে ষোড়শ কমিটি ঘোষনা

  1. ছাত্রফ্রন্টের নতুন কমিটিকে
    ছাত্রফ্রন্টের নতুন কমিটিকে বিপ্লবী শুভেচ্ছা ! ছাত্রফ্রন্ট এগিয়ে যাক দৃপ্ত পথে , লেজুড়মুক্ত হয়ে । আশা করি বাসদের মত ছাত্রফ্রন্ট দ্বিখন্ডিত হবেনা ।

  2. সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট,
    সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বিপ্লবের অঙ্গীকার!

    ছাত্ররাজনীতির লড়াকু বিপ্লবী ও আদর্শবাদী ধারাকে শক্তিশালী করুন!

  3. এদেশে বাম দলগুলোর আরো অনেক পথ
    এদেশে বাম দলগুলোর আরো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। খালি কমিটি করলেই হবে না।

    কাজ করতে হবে তৃণমূল পর্যায়ে।

  4. মনে হলো একটি পত্রিকার
    মনে হলো একটি পত্রিকার রিপোর্ট পড়লাম, যাই হোক, বিশুদ্ধ রাজনীতি চর্চা যেন হয় ।।

  5. তৃণমূল পর্যায়ে বাম দল গুলার
    তৃণমূল পর্যায়ে বাম দল গুলার এখনো অনেক কিছু করা লাগবে । এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ । যাই হোক। অভিনন্দন । :ফুল:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

57 − 52 =