‘সবাই উপর মানুষ সত্য তাহার উপর নাই,

আমি কোনো অভিযোগ করবো না, শুধু সত্যের বর্ননা করবো।

আজ অনেক বছর আপনজনের সাথে দেখা সাক্ষাত নেই। আপনজন বলছি, কিন্তু বাস্তবতা হলো আমি যাদের আপন বলি তারা আমাকে শত্রু ভাবে, আঘাত করার হুমকি দেই। জীবন যেখানে অনিরাপধ এবং প্রতিনিয়ত আত্মগোপন করতে হয়। আমি এইসব কিছুর কারন বিশ্লেষন করতে গেলে ঘন্টার পর ঘন্টা যাবে কিন্তু কোনো কলকিনারা হবে। আবার সংক্ষেপে যদি না বলি, সব না বলাই রয়ে যাবে।

‘সত্য হলো সবার উপর মানুষ সত্য তাহার উপর নাই।,
এমন মানুষ কি সব মানুষ? সংক্ষেপে উত্তর না। খুবই অল্প সংখ্যক লোক মাত্র।

যে মানুষ বিশ্বাস করে সবার উপর মানুষ সত্য তাহার উপর নাই। সে আর যাই হোক মুসলিম হতে পারে না। কারন ইসলাম এমন একটি ধর্ম যার বাহিরটা যেমন রুক্ষ ঠিক ভিতরটা ততটা জটিল ঔ কল্পিত। ইসলাম ধর্ম তার আনুসারীকে মানুষের উপর বিশ্বাস রাখার শিক্ষা দেইনি, শুধু মুসলিমদেরকে বিশ্বাস করতে শিখাইছে।

তাতে কি ধারাই? মুসলিম বাদে বাকী সব মানুষ অবিশ্বাস্য এবং মানহীন। আজ জীবনে এইক্ষনে এসে আমি আবারও বুঝতে পারলাম কেনো এই ধর্মকে আমার কোনো বাস্তবসম্মত মনে হয়নি এবং বিশ্বাসযাগ্য মনে হয়নি। আমার মনে হয়নি এটি কোনোভাবে মানবজাতির উন্নতি করতে পারে। এই ধর্মটির সৃষ্টি যেমন বর্বরভাবে হয়েছে,ঠিক তেমনিভাবে আজ পর্যন্ত এর অনুসারীদের সেই অপসভ্য অমানবিক শিক্ষাই শিক্ষিত করে যাচ্ছে। আমি অন্য ধর্মের কথা বলছি না কারন আমি সেইগুলোতে বিশ্বাস কখনো করিনি এবং কেউ সেইগুলো আমার উপর চাপিয়ে দেইনি বা চাপানোর চেষ্ঠা করেনি।

ইসলাম ধর্ম বর্তমান আধুনিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার অন্তরায় এবং যেই জাতিতে এর অনুসারী ছড়িয়েছ সেই জাতিকে ভাইরাসের নেই বিশ্ব চোঁখের সামনে ধ্বংস করে দিয়েছে।কিন্তু ইসলামের অনসারী মুসলিমেরা তা কখনো অনুধাবন করতে পারেনি,এখন পারছে না।

ধর্মের প্রাচীন রাজনীতির চকে আটকে গেছে বিলিয়ন মানব গোষ্ঠি।এরা আজ এতো বিভাজিত এবং লোভাতুর সর্বাঙ্গে ভয়াংকর এক রুপ নিয়েছে।এখন কারো সাধ্য নেই এদের পরিশোধিত করে আধুনিক জগতের বসোবাস উপযোগী করে গড়ে তুলোর।

মানুষ ও মানবতার প্রকৃত শিক্ষাই শিক্ষিত করে এদের গড়া আদৌ কি সম্ভব? এরা কি কখনো বিশ্বাস করবে সবার উপর মানুষ সত্য তাহার উপর নেই?

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

94 − 85 =