ঘোষণাঃ বইমেলার তরুন লেখকদের উৎসাহিত করতে চায় ইস্টিশন

শুরু হয়ে গেছে বাঙালির প্রাণের উৎসব একুশের বইমেলা ২০১৩। লেখক পাঠকের পদচারনায় মুখর বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গণ। সারা বছর চাতক পাখির মতো বাঙালি অপেক্ষায় থাকে এই প্রাণের মেলায় মেতে ওঠার জন্য। বাকীসব গতানুগতিক মেলার গণ্ডি থেকে বের হয়ে একুশের বইমেলা এক অন্যরকম স্থান করে নিয়েছে বাঙালির হৃদয়ে। মেধা, মনন, মুক্তচিন্তা, বিনোদন, উৎসব, আড্ডা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সবকিছু মিলেমিশে এই মেলা হয়ে উঠেছে বাঙালির প্রাণের উৎসব।


শুরু হয়ে গেছে বাঙালির প্রাণের উৎসব একুশের বইমেলা ২০১৩। লেখক পাঠকের পদচারনায় মুখর বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গণ। সারা বছর চাতক পাখির মতো বাঙালি অপেক্ষায় থাকে এই প্রাণের মেলায় মেতে ওঠার জন্য। বাকীসব গতানুগতিক মেলার গণ্ডি থেকে বের হয়ে একুশের বইমেলা এক অন্যরকম স্থান করে নিয়েছে বাঙালির হৃদয়ে। মেধা, মনন, মুক্তচিন্তা, বিনোদন, উৎসব, আড্ডা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সবকিছু মিলেমিশে এই মেলা হয়ে উঠেছে বাঙালির প্রাণের উৎসব।

প্রতি বছরের মতন এবারের বইমেলাতেও প্রকাশিত হচ্ছে বা হতে যাচ্ছে প্রচুর সংখ্যক তরুণ লেখকের বই। গল্প, কবিতা, উপন্যাস, প্রবন্ধ, ইতিহাস, গবেষণা, লিটল ম্যাগাজিন; বিষয় শ্রেণীর বিভিন্নতায় তরুণ লেখকেরা তাঁদের শাণিত মেধার ঝলকে সমৃদ্ধ করছেন বাংলা সাহিত্যকে। ব্লগ হিসেবে একেবারে নবীন এবং এখন পর্যন্ত পরীক্ষা মূলক সংস্করণ অনলাইনে থাকা সত্ত্বেও ইস্টিশনব্লগ এইসব তরুণ লেখকদের পাশে দাঁড়াতে চায়। আমরা উৎসাহ দিতে চাই তরুণ লেখকদের, যেন তাঁদের মেধা-মননের ঝলকে শাণিত হয় এদেশের প্রতিটি সাহিত্যপ্রেমী মানুষের মন। সাথে সাথে তৈরি হয় নতুন নতুন পাঠক। এ উপলক্ষ্যে ইস্টিশনব্লগ থেকে বইয়ের প্রচারণার উদ্দেশ্যে একটা সাইড বারে বিজ্ঞাপন আকারে তুলে ধরতে চাই নতুন নতুন বইয়ের নাম। আর পাঠকদের গোচরে আনতে চাই নতুন নতুন লেখকদের বই। এ আমাদের প্রাণের তাগিদ থেকে করা। কোন প্রকার আর্থিক সংশ্লিষ্টতা থাকবে না এর সাথে।

তাই বইমেলায় প্রকাশিত বইয়ের লেখকদের দৃষ্টি আকর্ষন করছি- যেন উনারা উনাদের বইয়ের প্রচ্ছদের কপি আমাদের অফিশিয়াল ই-মেইল ঠিকানায় পাঠিয়ে দেন। অথবা আমাদের ফেসবুকের অফিশিয়াল পেইজেও ম্যাসেজ আকারে পৌঁছে দিতে পারেন আপনার বইয়ের প্রচ্ছদের কপি। আমরা বিজ্ঞাপনাকারে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করব ইস্টিশনের প্ল্যাটফরমে।

আমাদের ই-মেইল ঠিকানা- [email protected], [email protected]
আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেইজ লিংক- ইস্টিশন’র ফেসবুক পেইজ এইখানে ।

বিঃ দ্রঃ আমরা চাই নতুন যারা ইস্টিশনে রেজিস্ট্রেশন করে প্ল্যাটফরমের টিকেট পেতে চাইছেন তারা অনুগ্রহ করে তাঁদের ব্লগ নিক বাংলায় এপ্লাই করবেন। ইতোমধ্যে প্রচুর ইংরেজি নিকের আবেদন আমাদের কাছে এসে জমা হয়েছে। ইস্টিশন ভাষার মাসে তাদের পদযাত্রা শুরু করেছে। তাই নীতিগতভাবেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ইংরেজি নিকের আবেদন গ্রহণ করা হবে না। এটা আমাদের নীতিগত অবস্থান। তাই নতুন যারা আবেদন করবেন তাদের কাছে অনুরোধ বাংলা নিকের জন্য আবেদন করুন। আর ইতোমধ্যে যারা ইংরেজি নিকের আবেদন করেছেন তাদের কাছে অনুরোধ পুনরায় আপনারা নতুনভাবে বাংলা নিকের জন্য আবেদন করুন। আশা করি আপনারা আমাদের পাশে থেকে আমাদের অগ্রযাত্রার সহযাত্রী হবেন।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৮ thoughts on “ঘোষণাঃ বইমেলার তরুন লেখকদের উৎসাহিত করতে চায় ইস্টিশন

  1. যারা নিজেদের লেখা বিভিন্ন
    যারা নিজেদের লেখা বিভিন্ন গল্প নিয়ে পরের বইমেলায় কোন গল্প সংকলন বের করতে চায় তাদেরকে কি ইষ্টিশনের পক্ষ থেকে কোন সাহায্য করা যাবে? স্টেশন মাস্টার কি বলেন?

  2. আমার একটা বই বাইর হইব ২০১৯
    আমার একটা বই বাইর হইব ২০১৯ সালে। নাম হইব অখন্ড অবসর। প্রচ্ছদে থাকবে একটা ভুড়ির ছবি। হ্যাভি এটাকিং হবে না? 🙂

  3. ইস্টিশন অনলাইনে এসেই একুশকে
    ইস্টিশন অনলাইনে এসেই একুশকে সমানে রেখে যে উদ্যোগ নিয়েছে তার জন্য সাধুবাদ জানাই। আশাকরি ইস্টিশন সবার মনের মত একটা প্লাটফরম হবে। ইস্টিশনের অগ্রযাত্রায় সাথে থাকার ইচ্ছে পোষন করে গেলাম।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 7 = 1