মুহাম্মদ জাফর ইকবাল স্যারের অরিজিন্যাল ফেসবুক ফ্যান পেইজ খোলা হোল

মুহাম্মদ জাফর ইকবাল


মুহাম্মদ জাফর ইকবাল

মুহাম্মদ জাফর ইকবাল স্যার উনার বিভিন্ন লেখায় উল্লেখ করেছেন যে উনি ফেসবুক ইউজ করেন না। কিন্তু বিভিন্নজন নিজ উদ্যোগে জনপ্রিয় এই লেখকের বেশ কিছু ফ্যান পেইজ ফেসবুকে অনেক আগে থেকেই খুলেছেন। স্যারও এটা নিয়ে এর আগে খুব একটা আপত্তি বা সরাসরি সম্মতি জ্ঞ্যাপন করে কিছু বলেননি। কিছু কিছু ফ্যান পেইজের সদস্য সংখ্যা প্রায় ২ লক্ষের উপরে ছিল। কিন্তু শাহবাগ আন্দোলনের পর পর কিছু কিছু ফ্যান পেইজের আড়ালের মানুষগুলোর মুখোশ খুলে যায়। উনার নাম ব্যবহার করে আন্দোলন নিয়ে আপত্তিকর কিছু পোস্ট ফেসবুকে আসে। এটা দেখে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু তরুণ শিক্ষক উনাকে অবহিত করেন এবং অফিশিয়াল আপত্তি জানিয়ে এরকম একটি ফ্যান পেইজ বন্ধ করার ব্যবস্থা করেন। এরপর স্যারের অনুমতি সাপেক্ষে উনারাই একটি ফ্যান পেইজ আজ খুলেছেন, যেটা উনারাই মেইনটেইন করবেন বলে জানিয়েছেন। পেইজ খোলার পর উনারা একটি ঘোষণা দিয়ে এটা জানিয়ে দেন। নীচে ঘোষণাটি হুবুহু দেওয়া হোল-

এই পেজ নিয়ে তৈরী হওয়া সব কনফিউশান শীঘ্রই দূর করা হবে, একটু সময় দিতে হবে, আশা করা যায় কালকের মধ্যেই গ্রহনযোগ্য কিছু স্যারের ফ্যানদের কাছে তুলে দেয়া যাবে। এই পেজ নিজের অবস্থান ক্লীয়ার না করে কোন ধরণের কর্মকান্ড নিয়ে এখন কোন কথা বলবে না, এবং অংশ নেবে না। আপাতত শুধু এই পেজ তৈরী হওয়ার পেছনের ছোট্ট একটা গল্প বলা যেতে পারে।
“স্যারের নামে অনেক পেজ আছে, যার সাথে স্যারের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। কিন্তু স্যারের ফ্যানরা এগুলো তৈরী করেছে ভেবে স্যারও কিছু করেন না, আমরা যারা স্যারের খুব কাছাকাছি থাকি তারাও কিছু করি না। কিন্তু গত এক সপ্তাহে অনেক কিছুই ঘটছে যেখানে অনেকের মুখোশ সরে গিয়ে যেতরের চেহারা দেখা যাচ্ছে। গতকাল স্যারের নামের সবচেয়ে জনপ্রিয় পেজের একটা বিতর্কিত পোষ্টের পর আমাদের প্রথম সন্দেহ হয় যে ওটা যারা চালাচ্ছে তারা আদৌ স্যারের ফ্যান কিনা। যেহেতু কয়েক লক্ষ লাইকযুক্ত ফ্যান পেজ ছিল, তাই আমরা কেউ চাইনি ওটা হুট করে বন্ধ করে দিতে। আমরা গতরাতে স্যারের কাছ থেকে প্রথমে কনফার্ম করি যে স্যার কোন পেজের অনুমোদন দেন নি। ওই পেজের এডমিনকে তার অবস্থান ক্লিয়ার করার কথা বলি, আমাদের নিজেদের পরিচয় দেই, এবং প্রায় এক দিন সময় অপেক্ষা করি, মাঝখানে কিছু রিমাইন্ডারও দেই। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কোন রেসপন্স পাইনি। বর্তমান পরিস্থিতিতে এর বেশী সময় দেয়াটা রিস্কি মনে হওয়ায় আমরা দ্রুত স্যারের পক্ষ থেকে অফিশিয়াল কমপ্লেইন পাঠাই এবং ওই পেজটি ৩/৪ ঘন্টার মধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়। আমরা স্যারের সাথে বসে এই সিদ্ধান্তও নেই যে স্যারের নামে এত প্রকারের পেজের কারণে অনেক কনফিউশান হয়, এবং রিস্ক বাড়ে। সবচেয়ে ভাল হয় স্যারের অনুমোদন সাপেক্ষে ফেইসবুক ফ্যান পেজ খোলার অফিশিয়াল নিয়ম অনুযায়ী অনুমোদিত প্রতিনিধি হিসাবেই আমরা একটা পেজ খুলে ফেললে। এই পেজটি সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তৈরী করা একটা পেজ।”

ফ্যান পেইজটির লিংক এখানে পাবেন।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১০ thoughts on “মুহাম্মদ জাফর ইকবাল স্যারের অরিজিন্যাল ফেসবুক ফ্যান পেইজ খোলা হোল

      1. এটা পরের দিন স্যারের কলিগ ও
        এটা পরের দিন স্যারের কলিগ ও এক্স-স্টুডেন্টরা তৈরী করেছেন এবং পেইজে শেয়ার দিয়েছে। আপনি স্যারের কথাগুলো শুনেন।

        1. ভিডিওটা মিস করছিলাম। আজকে
          ভিডিওটা মিস করছিলাম। আজকে নিজের পোস্টগুলা দেখতে গিয়ে পেলাম। দুলাল ভাইকে ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

25 + = 35