রাজাকার হটাও

জামাত শিবির রাজাকার সহ এদের সাপোর্টারদের মাথায় যদি গোবরও থাকতো, তাও তাদের মাথা কিছুটা উর্বর হইতো। এইগুলা যে আসলে কি চিড়িয়া, বুঝা মুশকিল! ৭১ থেকে এই পর্যন্ত আকাম তো করছেই, আজকের কাহিনী করে নিজেদের মারা খাওয়ার পরিমাণ বাড়াইয়া নিলো। সবগুলা “ে-কার” ওয়ালা চাদ।


জামাত শিবির রাজাকার সহ এদের সাপোর্টারদের মাথায় যদি গোবরও থাকতো, তাও তাদের মাথা কিছুটা উর্বর হইতো। এইগুলা যে আসলে কি চিড়িয়া, বুঝা মুশকিল! ৭১ থেকে এই পর্যন্ত আকাম তো করছেই, আজকের কাহিনী করে নিজেদের মারা খাওয়ার পরিমাণ বাড়াইয়া নিলো। সবগুলা “ে-কার” ওয়ালা চাদ।

বায়তুল মোকাররমে নামাজের জন্য পাতা গালিচায় আগুন ধরিয়ে দিলো, জাতীও পতাকা ছিঁড়লো, সাংবাদিকদের মারলো, ক্যামেরা ভাংচুর করলো, সিলেটে কেন্দ্রীও শহীদ মিনার ভাঙলো, ট্রাস্ট ব্যাংকে আগুন দিলো, ব্লাড ব্যাংকে ভাংচুর করলো, কাঁটাবনে এ্যাম্বুলেন্সে করে এসে ককটেল ফাটালো, একুশে হল ও এশিয়াটিক সোসাইটিতে হামলা করলো, মিরপুর ১০ নম্বরে পুলিশের সাথে মারামারি করলো, চট্টগ্রামের প্রেসক্লাবে ভয়ঙ্কর ভাঙচুর চালালো, রাজশাহীতে পুলিশের সাথে মারামারি করলো, আরো কয়টা বলবো! প্রাথমিক শাস্তি হিসেবে এই গুলারে ধরে ধরে ল্যাংটা করে মান্দার গাছের ডাল দিয়া পিটাইলেও কম হবে।

আবারও প্রমাণ হলো যে, ইতিহাস কথা বলে। রাজাকারের ছাগশিশুরা কখনো মানুষ হতে পারবে না। প্রজন্ম যোদ্ধাদের ভিড়ে শাহবাগ আবার উত্তাল। কাউকে ডেকে আনতে হয়নি, রক্তের টানে এসেছে সবাই। এখন আর শান্তিপুর্ণ প্রতিবাদ করে লাভ নাই। যুদ্ধে নামার সময় হয়ে গেছে। রক্ত পুরাই গরম।

আন্দোলন চলছে, চলবে। সাথে আছি সবসময়। বাঁশের লাঠি তৈরি কর, জামাত-শিবির ধোলাই করো। জয় বাংলা।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 77 = 80