উদ্দেশ্যহীন পত্র

প্রিয়,
আজ তোমায় অনেক সুন্দর লাগছিল। যেন স্বর্গে থেকে নেতে আশা কোন অপ্সরি। পড়ন্ত বিকেলের আলো-আধারের খেলা তোমার সৌন্দর্য আরও বহু গুনে বাড়িয়ে দিয়েছিল। ক্ষনিকের জন্য আমি যেন হারিয়ে গিয়েছিলাম কোন এক অজানায়, আমি পৃথিবীতেই আছি তো? আমার সামনে আমার পরিচিত সেই প্রিয় মুখটিই কি এটা? চোখ দিয়ে তোমায় বহুবার দেখেছি, মন থেকে কখন সেভাবে দেখি নি। আজ দেখলাম তোমায়। তুমি বিশ্বাস করবে না খুব ইচ্ছে করছিল তোমায় বলি -জানো আজ তোমায় অনেক সুন্দর লাগছে। কিন্তু কি করবো বল তুমি যে শুনবে না! তুমি যে আমায় বোঝ নি কখনও। বুঝতে পার নি ।



প্রিয়,
আজ তোমায় অনেক সুন্দর লাগছিল। যেন স্বর্গে থেকে নেতে আশা কোন অপ্সরি। পড়ন্ত বিকেলের আলো-আধারের খেলা তোমার সৌন্দর্য আরও বহু গুনে বাড়িয়ে দিয়েছিল। ক্ষনিকের জন্য আমি যেন হারিয়ে গিয়েছিলাম কোন এক অজানায়, আমি পৃথিবীতেই আছি তো? আমার সামনে আমার পরিচিত সেই প্রিয় মুখটিই কি এটা? চোখ দিয়ে তোমায় বহুবার দেখেছি, মন থেকে কখন সেভাবে দেখি নি। আজ দেখলাম তোমায়। তুমি বিশ্বাস করবে না খুব ইচ্ছে করছিল তোমায় বলি -জানো আজ তোমায় অনেক সুন্দর লাগছে। কিন্তু কি করবো বল তুমি যে শুনবে না! তুমি যে আমায় বোঝ নি কখনও। বুঝতে পার নি । আমি যে স্বার্থপর হতে পারি নি, স্বার্থপর হলে আজ তোমার আর আমার মধ্যে এ দুরত্ব থাকতো না। তুমি আমার বহু কাছে তবুও যেন তোমার আর আমার মাঝের এ দুরত্ব অনেক বেশি। অভিমান করেছ তাতে সমস্যা নেই, অভিমানও যে ভালবাসারই অংশ কিন্তু তুমি যে আমায় ভুল বুঝেছো। তুমি বোঝনি আমি কি চেয়েছিলাম তোমায় কথায়। জাএদা যেমন অন্যের কথায় কান দিয়ে তার নিকটতম বন্ধু হাসান কে হারিয়েছিল তুমিও হারিয়েছো আমাকে। আমি এখনও স্বপ্ন দেখি তোমায় নিয়ে, বাতাসে দোলায়িত তোমার খোল চুল নিয়ে এখনও খেলতে ইচ্ছে করে।হয়তো অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। তুমি হয়তো বদলে গিয়েছো। নাহ! তোমাকে দোষ দেব না, আমিই হয়তো বদলে গিয়েছি।

তোমার জন্য সর্বদা আমার শুভ কামনা রইলো, ভাল থেক তুমি। কখন যদি এ অধমের সাহায্যের প্রয়োজন পড়ে নির্দ্বীধায় চেয়ে নিয়। আমি অবশ্যই তোমায় সাহায্য করবো। পথ চলতে প্রত্যকের বন্ধু প্রয়োজন, তুমি আমি কেউ ব্যতিক্রম নই। তুমি সেই বন্ধুটি পেলে আমায় বলবে প্লিজ? আহ! অনধিকার চর্চা হয়ে যাচ্ছে যে, আমি বলছি আমি একা নই, আমার ও পথ চলার সঙ্গী আছে, সে হল তোমার দেয়া সুখ স্মৃতি, তোমার সাথে কাটানো সেই দুপুর, বিকেল আর সন্ধ্যা গুলো। আর আমার হৃদয়ে তুমি তো আছোই। কখনও ভুলতে বলো না প্লিজ, পারবো না।

ইতি,
স্বপ্ন জগতের স্বপ্ন লেখক।

[সবাই দেখি চিঠি লিখে আমি লিখমু কারে! লিখার জন্য মানুষ লাগে নাকি আবার? কল্পনা করে লিখে এখানে দিয়ে দিলাম কেউ যদি পড়ে ইম্প্রেস হয় আর কি 😉 তারপর তারেই লিখা যাবে 😛 ]

<< অনুপ্রেরনা -রাহাত মুস্তাফিজ ও ডন সাহেবের লেখা প্রেম পত্র , অবশ্য তারা প্রেম করার পর লেখে আর আমি আগে >>

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১৬ thoughts on “উদ্দেশ্যহীন পত্র

  1. আপনি তো ইস্টিশনের ফেমাস
    আপনি তো ইস্টিশনের ফেমাস ব্লগার । যে কোন লেখায় আপনার কমেন্ট পাওয়া যায় । ৭৪ টা পোস্ট দিয়েছেন । আমার ৭৪ টা পোস্ট দিতে কমপক্ষে ৭৪ বছর লাগবে … হিহিহিহি। জাস্ট কিডিং !

    কয়েকটি স্পেলিং মিস্টেক আছে , রাইট করে নিয়েন । চিঠি পড়তে ভালই লাগে । এই আবেগঘন চিঠি পড়ে মন কিছুটা আদ্র হয়েছে । আশা করি নেক্সট টাইম আরও নাইস নাইস লেটার লিখবেন ।

    1. হাহাহা ৭৪ এর ৭০ টা পোস্টের
      হাহাহা ৭৪ এর ৭০ টা পোস্টের যগ্যতা নেই।
      মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।
      কোথায় আর ফেমাস!!!!!

      সামনে এক্সাম তাই একটু কমিয়ে এনেছি। হ্যাঁ বানান ভুল গুলো দেখেছি কিন্তু মোবাইলে হওয়ায় ঠিক করতে পারছি না।

      ধন্যবাদ আমার কোন পোস্টে এই প্রথম আপনাকে পেলাম।

  2. রিমান্ডে নেয়া জরুরী হয়ে গেছে।
    রিমান্ডে নেয়া জরুরী হয়ে গেছে। যাইহোক ভাল লিখেছেন। হৃদয়ে অরজিনাল প্রেম না থাকলে এমন লেখা যায় না। বয়স টা তো আমরাও পার করে এসেছি। এটা সুধু কল্পনা প্রসুত লেখা না। 😀

    1. হাহাহাহা আপনার লেখার অভ্যাস
      হাহাহাহা আপনার লেখার অভ্যাস আছে তাই তো। আর আমি তো পাগলা কখনও নিজেকে কল্পনাকরি সিমান্তে সৈনীক হিসেবে, কখনও মুক্তিযুদ্ধের যুদ্ধ ক্ষেত্রে যোদ্ধা আবার কখনও প্রেমিক হিসেবে অথবা শিক্ষক হিসেবে। আর বলিয়েন না খালি স্বপ্ন দেখেই যাই পূরন একটাও হয় না!!! :'(

      যাই হোক আপনি কয়জনেরে লিখেছিলেন

    1. এইভাবে বয়স নিয়া টানা টানি যান
      এইভাবে বয়স নিয়া টানা টানি যান এর পর ডেমোক্রেসি ফর নিন্দাজ্ঞাপন কর্মসূচি ঘোষনা করলাম ।

      তাউ তো কেহ ইম্প্রেস হয় না !! :'( :'( :'( :'(

    1. কেহ আমাকে মারিয়া ফেল!!!! আমি
      কেহ আমাকে মারিয়া ফেল!!!! আমি লিখলাম পত্র আমারে কয় এই বয়সে এই অবস্থা। দাড়ান এর পর থেকে ফেইক আইডি খুলে লিখতে হবে……

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 47 = 54