অনুগল্পঃ সেক্স সিম্বল

মুজাহিদ। গত ১০ বছর ইসলামী আন্দোলনের পরিক্ষীত মুজাহিদ হিসাবে বড় মুহ্‌তারামদের কাছে পরিচিত। আল্লাহ্‌র একজন পিয়ারের বান্দা। একনিষ্ট ইসলামী আন্দোলনের কর্মী। “কা-আন্নাহুম বুনিয়ামুন মারচুছ” (সীসা ঢালা প্রাচীরের মত সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়ানো)-এর মত মুজাহিদ ১০ টি বছর পার করে দিল আল্লাহ্‌র দ্বীন ইসলাম কায়েম ও জিহাদী কর্মে। জীবন ও যৌবন আল্লাহ্‌র রাহে উৎসর্গ করা মুজাহিদের জীবন নিয়ে ভাবে সংগঠন, কিন্তু প্রতিদিন রাতে যৌবনের ভাবনা এসে জিহাদী জজ্‌বা চুরমার করে দিয়ে যায়। রাতের এই সময়টা মুজাহিদকে প্রগতিবাদী আন্দোলন না করার অনুশোচনা কুরে কুরে খায়। বড় মুহ্‌তারামের হাতে জিহাদী বায়াত গ্রহন করার প্রথম রাতে ক্লান্ত জিহাদীর গেলমান ছহবতের কথা মনে থাকলেও সুযোগ হয়ে উঠে নি।

….আজই সে সুযোগ। উচ্চ শিক্ষার উচ্চাশায় গ্রাম থেকে আগত, তারই হাতে বায়াত প্রাপ্ত এই অষ্টাদশ কিশোর বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসন সংকটের ঝঞ্ঝাটে তার কাছে রাতের আশ্রয় নিয়েছে। ঠিক ১০ বছর আগে যেমনি নিয়েছিল মুজাহিদ, এখনকার বড় মুহতারাম’র কাছে।

অষ্টাদশ কিশোরের নিঃশ্বাস থেকে এলাচীর গন্ধ মুজাহিদকে মাতম করে দিল। লোডশেডিং’র ফাঁফরে অষ্টাদশ’র ঘর্মাক্ত দেহ থেকে বেহেস্তী আঁতর-লোবানের গন্ধ মুজাহিদের নিম্নাংশের উত্তপ্ততায় সাহারার বালি কনাও যেন গলে যাবে। শীশ্নের হিস্‌ হিস্‌ শব্দ ক্রমেই উর্ধ্বগামী হয়ে মুজাহিদের কন্ঠে এসে ভর করল। আশ্বিনী পাগলা কুকুরের ন্যায় গর্‌গর্‌ শব্দে পাশে ঘুমন্ত অষ্টাদশকে ঝাপটে ধরে বলল, “কা-আন্নাহুম বুনিয়ামুন মারচুছ”…….।

অন্ধকারে আচম্‌কা তপ্ত শীশ্নের নীচ বরাবর অষ্টাদশ কর্তৃক সজোরে একলাথিতে মুজাহিদ ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেল। সঙ্গে অষ্টাদশীর খিস্তি – “মর! রাজাকারের বাচ্চা”।

[পূর্বে অন্য একটি ব্লগে প্রকাশিত]

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১৯ thoughts on “অনুগল্পঃ সেক্স সিম্বল

  1. অবশেষে সেই এপিকের স্বাদ পেতে
    অবশেষে সেই এপিকের স্বাদ পেতে যাচ্ছে নতুনেরা।

    “কা-আন্নাহুম বুনিয়ামুন মারচুছ”…….।

    :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: ভাই পারলে ছবিটাও দিয়া দিয়েন।

  2. ওয়া ইলাইহি জালাইকাল গেলমানুম
    ওয়া ইলাইহি জালাইকাল গেলমানুম মাদারচুদ…

    অর্থাৎ, গেলমান মাদারচুদরে উপযুক্ত লাথি দিলেন ভাই।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

40 + = 41