গোলাপির প্রেম আর প্রেম

গোলাপি ম্যাডাম আর দেলুরে ও বন্ধু লাল গোলাপি গানটা উৎসর্গ করলাম 😀 ।
ফুল শয্যা সাজাইব
প্রেমও পাশা খেলাইব
আমার মনের যত গোপন আশা সবই মিটাইব
আরে আশা সবই মিটাইব
রাখিব তোরে আমার
রাখিব তোরে আমার
আদরে ……
এসো এসো বুকে রাখব তোরে
এসো এসো বুকে রাখব তোরে

গানের কিছু কথাও দিলাম, আমি বিশেষ ভাবে এই লাইন গুলা তাদের উৎসর্গ করলাম :D।

যারা ভাবছেন গোলাপি আপা হয়তো ঘোষণা দিব আমি আমরা জামাতের সঙ্গ তেগ করলাম তাদের জন্য আমার সমবেদনা রইল।

কুত্তার লেঞ্জা কোনদিন সোজা হয় না, গোলাপি কোনদিন ভালাহয় না।

উনি আপোষহীন নেত্রি তাই রাজাকারদের ব্যাপারে কোন আপোষ করলেন না।
কি ভাবছেন? রাজাকারদের ব্যাপারে কিসের আপোষের কথা বললাম?
এই কথাটা আসলে আমার না, আমার আম্মার। আম্মা বলল উনি তো আপোষহীন নেত্রি তাই আপোষ করলেন না জনতার সাথে। উনি রাজাকারদের পক্ষেই থাকলেন। যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষেই সাফাই গাইলেন।

উনি বললেন, উনি ক্ষুব্ধ, মর্মাহত বর্তমানে পুলিশের গনহত্যা দেখে।
কিন্তু তার চোখে পরল না জামাত শিবিরের নিসংশতা । গরীব ওই মানুষটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলা যার সম্বল একটি মাত্র ফলের দোকান। গরীব নিহত ওই লোকটাকেও দেখেন না যার দিন শেষে মহাজনের কাছে রিকশা জমাদেওয়ার কথা ছিল কিন্তু নিজের জীবনটাই দেশের কাছে জমা দিয়ে গেল। চোখে পরল না পুলিশকে মেরে ফেলাটাও।
কিছুক্ষন আগে এক বন্ধুর সাথে কথা হচ্ছিল হটাৎ ও আমাকে বলল আরে গাধা দেখস নাই মেডাম রঙ্গিন চশমা পরে, তাই ওইগুলা দেখে নাই।

একদিক দিয়ে তিনি গণজাগরণের বিরুদ্ধে বললেন আরেক দিক দিয়ে তিনি জামাতের সহিংসতাকে সাপোর্ট দিয়ে গেলেন।এই না হলেন আপোষহীন নেত্রী।
যেই গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন শুরুর এক সপ্তাহের মাথায় বিএনপি চোখের স্বাগত জানাল এখন আমারদেশ পত্রিকার মত সেই গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন ফ্যাসিবাদ হয়ে গেল।
হায়রে প্রেম এত প্রেম কই রাখে গোলাপি বিবি তা আল্লাহও জানে কিনা আমি জানি না।

মসজিদে আগুন দেয়া ভাংচুর করা, মন্দির ভাংচুর করা আগুন দেয়া। অন্য ধর্মের মানুষকে বাড়ি ছাড়া করা। এই সব সরকারে কাজ ছাড়া নাকি আর কিছুই নয়। হায়রে প্রেম।
এই প্রেমরে অমরত্ব দেওয়া উচিত।
সিরি-ফরহাদ, লাইলি-মজনু, রোমীয়-জুলিয়েটের পর “দেইল্লা-গোলাপি বা গু-গোলাপি” যেই কোন একটা উচ্চারন এখন সময়ের দাবি।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

২ thoughts on “গোলাপির প্রেম আর প্রেম

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

65 − 64 =