বর্তমান বিতর্ক , উত্তপ্ত ইস্টিশন।

কষ্টে আছে আইজুদ্দিন এর পোস্টে মন্তব্য প্রতি মন্তব্য নিয়ে ইস্টিশন বেশ উত্তপ্ত।
সেখানে আলোচনার প্রেক্ষিতে এক দলকে বলা হচ্ছে দল কানা (যারা আওয়ামি সাপোর্ট দিয়েছে) তারা কোথাও উক্ত অধ্যাপকের কথার সাপোর্ট দিয়েছে আমি দেখি নি। কিন্তু তারা যেটা করছে সমালোচনার বিরোধিতা করছে কারণ সেখানে উপস্থিত আসাদুজ্জামান উক্ত অধ্যাপকের কথার সাথে সহমত পোষন করেন নি।


কষ্টে আছে আইজুদ্দিন এর পোস্টে মন্তব্য প্রতি মন্তব্য নিয়ে ইস্টিশন বেশ উত্তপ্ত।
সেখানে আলোচনার প্রেক্ষিতে এক দলকে বলা হচ্ছে দল কানা (যারা আওয়ামি সাপোর্ট দিয়েছে) তারা কোথাও উক্ত অধ্যাপকের কথার সাপোর্ট দিয়েছে আমি দেখি নি। কিন্তু তারা যেটা করছে সমালোচনার বিরোধিতা করছে কারণ সেখানে উপস্থিত আসাদুজ্জামান উক্ত অধ্যাপকের কথার সাথে সহমত পোষন করেন নি।

উক্ত পোস্টে ইস্টিশন মাস্টারেরও হস্তক্ষেপ হয়েছি। কিন্তু তিনি যেই দোষ একদলকে সাবধান করেছেন সেই দোষে কিন্তু অপর দলের লোকও দুষ্ট। ইস্টিশন ব্লগের অন্যতম সিনিয়ার ব্লগার ডাঃআতিক ভাই ও আপত্তি কর কথা বলেছে।
উনারই একটা মন্তব্য কোট করছি

উনি যেমন রিপ্লাই দিয়েছেন আমি তেমনই প্রতিউত্তর দিয়েছি। গায়ে লাগলে কিছু করার নাই।

হ্যাঁ এক হাতে তালি বাজে নি একজনের কথার প্রেক্ষিতেই অপরজন উত্তর দিয়েছে। বিজ্ঞ ইস্টিশন মাস্টার এর উচিত ছিল উভয়কেই সতর্ক করা।

এখানে আতিক ভাই এর দেয়া বাংলা নিউজ এর নিউজ এর

ছাত্রলীগের সব কর্মীকে চাকরি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামী লীগপন্থি শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের আহ্বায়ক ও রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল আজিজ।

সোমবার বঙ্গবন্ধুর ৯৫তম জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের বঙ্গবন্ধু হল শাখার আয়োজনে আলোচনা সভায় তিনি সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপির কাছে এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, বিভিন্ন কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমন্ত্রিত অতিথির কাছে বিভিন্ন দাবির ফিরিস্তি তুলে ধরেন। আজ তারা কোনো দাবি জানাননি। তাদের পক্ষ থেকে আমিই দাবি জানাচ্ছি যে, ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীকে চাকরি দিতে হবে।

অধ্যাপক আবদুল আজিজ বলেন, আমি ছাত্রলীগের এক নেতাকে নিয়ে এক মন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম চাকরির জন্য। কিন্তু ওই ছাত্রলীগ নেতার সব কয়টিতে ‘থার্ড ক্লাস’ থাকায় মন্ত্রী চাকরি দিতে অস্বীকৃতি জানান। তখন আমি ওই ছাত্রলীগ নেতার জামা খুলে তার গায়ে থাকা ক্ষতচিহ্ন দেখাতে বলি।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগের নেতাদের রেজাল্টের প্রয়োজন নেই। তাদের গায়ে থাকা ক্ষতচিহ্নই তাদের বড় যোগ্যতা। তাদের আর কোনো যোগ্যতার প্রয়োজন নেই।

এত টুকু বিষয় নিয়ে সমালোচনা করছেন পুরো দলের। বিপরীত দলও এর সাথে এক মত নয়। কিন্তু তারা শুধু এই অধ্যাপকের কথার জন্য পুরো আওয়ামিলীগের সমালোচনার বিরুদ্ধে কথা বলছেন কারণ উক্ত নিউজের পরবর্তী অংশ

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর অবশ্য তার দাবির সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন।

মন্ত্রী বলেন, ছাত্রলীগের প্রত্যেকে অবশ্যই চাকরি পাবেন। তবে সেটা তার মেধার জোরে পাবেন, প্রতিভার জোরে পাবেন, শিক্ষাগত যোগ্যতার জোরে পাবে। কারো অনুকম্পা বা করুণার জোরে নয়। কারণ, ছাত্রলীগ কারো করুণা বা অনুকম্পার পাত্র নয়।

এই টুকু সমালোচক বৃন্দ বারবার পাশ কাটিয়ে যাচ্ছেন।

আপনাদের(সমালোচকদের) অভিযোগ যদি সেই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে হয় তবে আপনারা কেন তর্ক করছেন ? অন্যরা কি সেই অধ্যাপকের কথার সাপোর্ট দিয়েছে? উপস্থিত মন্ত্রি তো প্রতিবাদ করেছেন, তিনিও কিন্তু এর সমর্থন দেন নি । আপনারা কেন এ অংশ টুকু দেখছেন না???

সমস্যাটা কোথায় উক্ত অধ্যাপকের বক্তব্যে নাকি আওয়ামিলীগে?

বলতে বাধ্য হচ্ছি

এখানে প্রসাব করবেন। না করলে ৫০০টাকা জরিমানা।
(‘।’ টা যে না এর পর থেকে কেটে না এর আগে লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে তাহা কিন্তু কেউ দেখে না। )
উপস্থিত আসাদুজ্জামান কি বলেছেন তা কারো চোখে পরে না! নিউজটা কি তার আগেই শেষ হয়ে যায়?

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৮৯ thoughts on “বর্তমান বিতর্ক , উত্তপ্ত ইস্টিশন।

  1. আমিও জয়ের সাথে একমত জানাচ্ছি
    আমিও জয়ের সাথে একমত জানাচ্ছি এবং আমার ব্যান দাবী করছি। ইস্টিশন একটা খাঁটি আওয়ামী ব্লগ হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাক। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

    1. আজব আতিক ভাই আমি আপনার ব্যন
      আজব আতিক ভাই আমি আপনার ব্যন কই দাবী করলাম!! ইদানিং এত রেগে আছেন কেন ভাইয়া। একটু শান্ত হোন। আমার অবস্থান কি আপনার জানা নয়?? কেন এমন করছেন বুঝতেছি না!! এর আগেও যখন ইস্টিশনে ঝামেলা হয়েছে আমি এমন করে পোস্ট দিয়েছি।

      আপনারা তো মনে হচ্ছে কনফিউজড হয়ে আছেন সমালোচনা টা কার করবেন অধ্যাপক নাকি আওয়ামিলীগ!!

      1. যে বুঝে সে এক কথাতেই বুঝে। আর
        যে বুঝে সে এক কথাতেই বুঝে। আর যে বুঝতে চাইবে না তাকে হাজার কথাতেও বুঝানো সম্ভব না। একজন ব্যক্তি যখন কোন দলের প্রতিনিধিত্ব করে, এবং দলীয় কোন সভায় কোন বক্তব্য দেয় তখন আর সেটা তার ব্যক্তিগত বক্তব্য থাকেনা। এই ধরণের স্টুপিড তেলবাজদের জন্যই বঙ্গবন্ধুকে করুন পরিণতি বরণ করতে হয়েছিল। এটা যতো দ্রুত আওয়ামী লীগ বুঝবে ততোই লাভ।
        আমার মূল রাগের জায়গা সেটাও না। কে এম মুত্তাকীর পোস্টে গিয়ে একেবারে প্রথম থেকে সবগুলো মন্তব্য পড়ে দেখেন কে আগে আক্রমন করে মন্তব্য দিয়েছে। কারো সম্পর্কে না জেনে তাকে জামাতি ছাগু, ম্যাতকার এইসব শব্দের ব্যবহার কেন? উনি মন্ত্রীর বক্তব্যকে না তুলে ধরে সেই পা চাটা শিক্ষকের সমালোচনা করেছেন বলে তাকে এইসব বলতে হবে? এটা কি ধরণের দেশপ্রেম? যাই হোক এসব নিয়ে কথা বাড়াতে ইচ্ছা করছে না। ভাবছি ব্লগিংই ছেঁড়ে দিবো। টায়ার্ড লাগতেছে বাজে বিতর্ক করে করে। শুধুমাত্র দলের কারনে যখন কাউকে ইসলামী ব্যাংকের পক্ষে সাফাই গাইতে দেখি, দলের একজন তেলবাজকে সমালোচনা করার কারনে কাউকে ছাগু বলতে দেখি তখন টায়ার্ড না হয়ে উপায় থাকে না। যারা যারা আমার মন্তব্যে কষ্ট পেয়েছেন তাদের সবার কাছে দুঃখিত।

        1. যে বুঝে সে এক কথাতেই বুঝে। আর

          যে বুঝে সে এক কথাতেই বুঝে। আর যে বুঝতে চাইবে না তাকে হাজার কথাতেও বুঝানো সম্ভব না।

          :bow: :bow: :bow:

          ভাই কে এম মুত্তাকীকে এভাবে বলাতে ক্ষিপ্র বা রাগান্বিত হবার কিছু নেই, তাছাড়াও কালকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি মুত্তাকী সাহেবের পোস্টে আর পা দিয়ে পরিবেশ নোংরা করবো না। উমি যেভাবে লিখেছিলেন ঠিক সেভাবেই একজন দলীয় সমর্থক হিসেবে উত্তর দিয়েছিলাম বা দেয়ার চেষ্টা করেছি মাত্র। এতে যে তাপ এসেছে তার থেকেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

          শুধুমাত্র দলের কারনে যখন কাউকে ইসলামী ব্যাংকের পক্ষে সাফাই গাইতে দেখি, দলের একজন তেলবাজকে সমালোচনা করার কারনে কাউকে ছাগু বলতে দেখি তখন টায়ার্ড না হয়ে উপায় থাকে না।

          দলের কারণে ইস্লামি বেনকের জাতীয় সংগীত অনুদানকে সমর্থন জানাই নাই এবং এর জন্য একটি পোস্টত লিখেছি সেই সাথে নিজের ওয়ালেও অনেক চাপ খেয়েছি। এরপরেও সহ্য করে নিয়েছি। আর হ্যাঁ এটা ঠিক ট্যাগিং করাটা আজকাল বেড়েছে তবে এই যত্রতত্র ট্যাগিং করাটা কমানোর দায়িত্বও আপনাদের মতো সিনিয়র ব্লগারদের।

    2. আতিক ভাই ক্ষুব্ধ হলে কি চলে?
      আতিক ভাই ক্ষুব্ধ হলে কি চলে? অন্তত একজন সিনিয়র ব্লগার হিসেবে নয়ই, আপনিতো এরকম নন; যতটুকু জানি। খুবই শান্ত স্বভাবের বন্ধুবৎসল আপনি আর তাই আপনার উপর আস্থাও অনেক। আশা করি এইসকল টুকটাক মনোমালিন্যকে প্রাধান্য না দিয়ে সবাইকে নিয়ে সামনের পথে এগিয়ে যাওয়াটুকুকেই প্রাধান্য দিবেন।

      1. ভাই আমার অতো দেশপ্রেম নাই যে
        ভাই আমার অতো দেশপ্রেম নাই যে দেশপ্রেমের জন্য ইসলামী ব্যাংকের কাছে দল হাত পাতলেও সেটা মেনে নেবো। আমার অতো দেশপ্রেম নাই যে একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের এই ধরণের নির্লজ্জ তেলবাজি হালকা করে দেখব। একদিক এইসব তেলবাজরাই আশকারা পেয়ে যা খুশী তাই করে। এটা যদি না বুঝেন তাহলে মন্ত্রীর কথায় হাততালি বাজিয়ে যান কেউ মানা করছে না। দিনশেষে ক্ষতি আপনার দলেরই। আপনাদের দেশপ্রেমের জয় হোক।

  2. দারুণ সাহসিকতা দেখিয়েছো জয়
    দারুণ সাহসিকতা দেখিয়েছো জয় :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:
    তবে আসাদুজ্জামান নূরের পাশাপাশি আরেকটি বক্তব্য উঠে আসা দরকার ছিলো

    অধ্যাপক আবদুল আজিজ বলেন, আমি ছাত্রলীগের এক নেতাকে নিয়ে এক মন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম চাকরির জন্য। কিন্তু ওই ছাত্রলীগ নেতার সব কয়টিতে ‘থার্ড ক্লাস’ থাকায় মন্ত্রী চাকরি দিতে অস্বীকৃতি জানান।

    এই অংশটুকুও উল্লেখ্যযোগ্য। এখানেও সায় পায়নি ঐ শিক্ষক। সাধারণ একটি ব্যাপার কেন জানি বুঝের মানুষগুলো বুঝেও না বুঝার ভান করে। এখানে যারাই আলোচনা-সমালোচনা করছেন তাদের কেউ কিন্তু দাবী করেনি যে তারা নিরপেক্ষ। যেহেতু নিরপেক্ষ নয় সেহেতু দলের পক্ষে যৌক্তিক কিছু না কিছু বক্তব্য উপস্থাপিত হচ্ছে। একইভাবে অন্যপক্ষ থেকেও বক্তব্য আসছে। যদিও ইস্টিশন কোন নির্দিষ্ট দলের প্ল্যাটফর্ম নয় তবুও এখানে যারা আলোচনা-সমালোচনা করেন তারা সকলেই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষেরই লোক এবং ইস্টিশন ব্লগ অবশ্যই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের প্ল্যাটফর্ম হিসেবেই জানি।

    এটা সত্য কর্তৃপক্ষের মনোভাবটা ভীষণভাবে নাড়া দিয়েছে সেই সাথে থাকা না থাকা নিয়েও মন্তব্যসমূহ। আর যদি প্রসঙ্গ আসে দলকানা কিনা তখন বলতেই হবে “হ্যাঁ ভাই আমি দলকানা”, কিছুই করার নেই। কেননা খারাপের ভালো আওয়ামীলীগ, এর চাইতে কিছুটা ভালো আর একটি দল বর্তমানে নেই যার উপর কিছুটা আস্থা রাখতে পারি। তাই আমাদের উচিত হবে সমালোচনা যেন যৌক্তিক হয়, গঠনমূলক হয়। আওয়ামীলীগ আর জামাতকে যেন এক পাল্লায় মেপে না ফেলি। বুঝতে হবে ক্ষমতার আসনে বসলে অনেক দিক সামলিয়ে চলতে হয়। রাজনৈতিক বিজ্ঞজনেরা যদি এসব বুঝেও এড়িয়ে যান অবুঝের মতন তখন আফসোস করা ছাড়া কিছুই থাকেনা।

    পরিশেষে বলবো, ইস্টিশন যদি সত্যিই পরিবার হয়ে থাকে। অন্তত এই পরিবারের কর্তার উচিত বুঝিয়ে-সুঝিয়ে সমঝোতার মাধ্যমে পরিবারের সদস্যদের একসাথে রাখা।

  3. বব ডিলান থেকে কিছু লাইন খুব
    বব ডিলান থেকে কিছু লাইন খুব মনে পরছে…

    Blowing in the wind

    How many roads must a man walk down
    Before you call him a man?
    Yes, ‘n’ how many seas must a white dove sail
    Before she sleeps in the sand?
    Yes, and how many times must the cannon balls fly
    Before they’re forever banned?

    The answer, my friend, is blowing in the wind,
    The answer is blowing in the wind.

    Yes, ‘n’ how many years can a mountain exist
    Before it is washed to the sea?
    Yes, ‘n’ how many years can some people exist
    Before they’re allowed to be free?

    মানুষের সবার আগে দরকার নিজেকে জাজ করতে পারা, অন্যের কাছে নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করায় নয়। সবার জন্যে শুভ কামনা… ভাল থাকুন… সুস্থ থাকুন!!

  4. ইস্টিশন ব্লগ একটি সম্পুর্ন
    ইস্টিশন ব্লগ একটি সম্পুর্ন নিরপেক্ষ ও মুক্তচিন্তার ব্লগ প্ল্যাটফরম। কোন রাজনৈতিক, ধর্মীয় গোষ্ঠি বা নির্দ্দিষ্ট কোন দল, গোষ্টি, বর্ণ, গোত্রের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এখন থেকে মডারেশন প্যানেল জিরো টলারেন্স দেখাবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ব্লগে ব্যক্তি আক্রমণ করে এই ধরনের পোস্টের ক্ষেত্রে পুর্বেও মডারেশন প্যানেলের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয়েছিল। কারো কোন ধরনের অভিযোগ থাকলে ‘শিকল টানুন’-এ অভিযোগ জানিয়ে মডারেশন প্যানেলের দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারবেন।

    ইস্টিশন’র মডারেশন প্যানেল সব সময়ই তথ্য, তত্ত্ব ও যৌক্তিক আলোচনার মাধ্যমে মুক্তচিন্তার প্রকাশ ঘটার সুবিধার্থে অন্যান্য ব্লগ প্ল্যাটফরমের মত সকল বিষয়ে ছড়ি ঘোরানোর পক্ষে ছিল না, এখনো নেই। যখনই যাত্রীরা তাদের রাজনৈতিক অবস্থান ও মতাদর্শ জোর পুর্বক বাস্তবায়নের নিমিত্তে ব্লগের পরিবেশকে অস্থিতিশীল করে তোলে, তখনই মডারেশন প্যানেল হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হয়।

    ব্লগের যে কোন পরিস্থিতিতে মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত বলে যাত্রীদের বিবেচনা করা উচিত। মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তকে প্রশ্নবিদ্ধ করা ব্লগের নীতিমালা ভঙ করার সামিল। এই পোস্টে ব্লগের মডারেশ প্যানেলের সিদ্ধান্তকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে বলে প্যানেল মনে করছে বিধায় ব্লগার দুরন্ত জয়‘কে চুড়ান্তভাবে সতর্ক করা হল এবং পোস্টটি প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেওয়া হল।

    মডারেশন প্যানেলের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অহেতুক কোন ধরনের বিতর্ক তৈরী করার চেষ্টা করা হলে পুর্ব ঘোষনা ছাড়াই মডারেশন প্যানেল নীতিমালা অনুযায়ী যে কোন ধরনের কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবে। পাশাপাশি ব্লগার সুমিত চৌধূরী‘কে পরিবেশ উত্তপ্ত করার নিমিত্তে বিভিন্ন ধরনের উষ্কানীমুলক মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার জন্য শেষবারের মত সতর্ক করা হল এবং ব্লগার ডাঃ আতিক‘কে মন্তব্য করার ক্ষেত্রে আরো সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য দৃষ্টি আকর্ষন করা হলো।

    ইস্টিশনব্লগ শুধুমাত্র কোন রাজনৈতিক দলের মতাদর্শ প্রচারের ক্ষেত্র হিসাবে ব্যবহার করা হলে ভবিষ্যতে ব্লগ কর্তৃপক্ষ আরো কঠোর হতে বাধ্য হবে।

    1. কারো কোন ধরনের অভিযোগ থাকলে

      কারো কোন ধরনের অভিযোগ থাকলে ‘শিকল টানুন’-এ অভিযোগ জানিয়ে মডারেশন প্যানেলের দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারবেন।

      এই বিষয়ে যেনো আমরা সতর্ক থাকি।

      কিছু প্রশ্ন ছিলো, আশা করছি আক্রমণাত্মক বক্তব্য হিসেবে নিবেন না। মডারেশন প্যানেলের প্রতি সম্মান জ্ঞাপন করেই জানতে চাইছি আমি কোথায় কোথায় উষ্কানীমূলক বক্তব্য দিয়েছি। আমার ভূল শোধরানোর নিমিত্তেই জানতে চাওয়া।

    2. প্রিয় ইস্টিশন মাস্টার কিছু
      প্রিয় ইস্টিশন মাস্টার কিছু বলার নেই!!

      আমি আমার পোস্টের কোথায় কাকে আক্রমণ করেছি জানি না। ইস্টিশনকে আপনমনে করেই উভয় পক্ষের ভুল বোঝা বোঝির সমাধানের জন্য পোস্ট টা দিলাম, এর আগেও যখন ইস্টিশনে এমন ঝামেলা লেগেছিল আমি এমন পোস্ট দিয়েছিলাম। ইস্টিশনে নতুন নই আমার সম্পর্কে ইস্টিশন মডারেশন প্যনেলের ধারণা থাকার কথা। কিন্তু কি আর করার বোঝা গেল ইস্টিশন আর পাঁচটা ব্লগের মতই। এখানে নিজের মনে করে আর বলতে পারবো না প্রানে প্রান মেলাবোই।

      আমি কোথাও বলি নি যে কেন রণ রাজ কে ব্যন করা হল কেন সুমিত চৌধুরিকে সতর্ক করা হল। তবুও যখন সিদ্ধান্ত নিয়ে নাকি সম্যা করেছি কি আর বলার্। হ্যপি ব্লগিং……
      আর মন্তব্য দেয়ার প্রয়োজন অনুভব করছি না।

    1. চলেন গান গায়…
      চলেন সবাই গান

      চলেন গান গায়…

      চলেন সবাই গান গায়…

      “The answer, my friend, is blowing in the wind,
      The answer is blowing in the wind.”

      জয় তোর লিখা দিন দিন ভাল হচ্ছে…
      :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :bow: :bow: :bow:

      আজকে চমৎকার একটা খবর পড়লাম বিডি নিউজ টুয়েন্টি ফোরে…
      “বিড়াল খেল ময়ূর, চাকরি হারালো পুলিশ”

      1. ব্লগার তারিক লিংকনকে সতর্ক
        ব্লগার তারিক লিংকনকে সতর্ক করা হচ্ছে পুনরায় উস্কানি না দেওয়ার জন্য। যে পোস্ট মডারেশন প্যানেল প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে মন্তব্য দিয়েছে সেই পোস্টে এই ধরণের মন্তব্য প্রদান মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শনের সামিল। এবং এই মন্তব্যের পর আর কেউ যদি এ বিষয়ে অহেতুক উস্কানি বা বিতর্ক তৈরির চেষ্টা চালায় তাকে কোন ঘোষণা ছাড়াই ব্যান করা হবে। কারণ এরপরেও এ বিষয়ে বিতর্ক চালু রাখার মানে তার উদ্দেশ্য অসৎ।

  5. ইস্টিশনে এগুলো কি হচ্ছে আবার
    ইস্টিশনে এগুলো কি হচ্ছে আবার বুঝতেছি না ।ঝামেলা ব্যাপারটা আমার চরম অপছন্দের ।তাই বলবো ব্লগের শ্লোগানের সাথে সবাই তাল মিলিয়ে প্রাণে প্রাণ মিলাক ।

  6. জয় এমন পোস্ট মোটেও কাম্য নয়।
    জয় এমন পোস্ট মোটেও কাম্য নয়। এমন কিছু হয় নাই যেটার জন্য এমন ব্লগ পোস্ট দিতে হবে।
    তুমি অবশ্যই একটি ভুল কাজ করেছ।
    সবে মাত্র তোমার দেখার শোনার জানার বুঝার বয়স। এত দ্রুত সিদ্ধান্তে আসার সময় না এটা।

      1. বক্তব্যের গ্রহণযোগ্যতা নয়

        বক্তব্যের গ্রহণযোগ্যতা নয় বক্তায় হোক বিবেচ্য…

        ভাল তো ভাল না?

        এই ধরনের খোঁচা দিয়ে আপনি কি বুঝাইতে চাচ্ছেন? স্পষ্ট করে বলেন। আপনাকে মডারেশন প্যানেল থেকে সতর্ক করে দেওয়ার পরও বারবার একই ধরনের আচরণ করছেন কেন? আপনি নিজেকে কি মনে করছেন? আপনার উদ্দেশ্যটা আসলে কি? এই ধরনের প্ল্যাটফরমে খোঁচাখুঁচি করে লাভের চেয়ে লসের বোঝা বেশী হয়, সেটা কি আপনি এখনো টের পাননি?

        কথাটা আবারও বললাম, দুষ্ট গরুর চেয়ে শুন্য গোয়াল অনেক ভাল।

        1. তারিক লিংকন, আপনাকে সতর্ক করা
          তারিক লিংকন, আপনাকে সতর্ক করা স্বত্বেও আপনি উস্কানিমূলক মন্তব্য দেওয়া অব্যহত রেখেছেন। এইজন্য আপনাকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যান করা হচ্ছে। কৃত অপরাধের জন্য আপনাকে ব্যাখ্যা প্রদান করতে বলা হচ্ছে এবং ইস্টিশনের ফেইসবুক পেইজে কিংবা মেইলে দুঃখ প্রকাশ করার জন্য বলা হচ্ছে। মডারেশন প্যানেলের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে যেই প্রতিক্রিয়া দেখাবেন তাকে/তাদেরকেও একইভাবে ব্যান করা হবে। মডারেশন প্যানেলকে কঠোর হতে কেউ বাধ্য করবেন না বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে।

          1. দেরীতে হলে আমি বলব ভাল
            দেরীতে হলে আমি বলব ভাল সিদ্ধান্ত নিয়েছে মডারেশন প্যানেল। :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য:

          2. দেরীতে হলে আমি বলব ভাল

            দেরীতে হলে আমি বলব ভাল সিদ্ধান্ত নিয়েছে মডারেশন প্যানেল।

            চন্দ ভাই, একটু বাজনা হলে ভালো হত না? :থাম্বসআপ: নাচে একটা নতুন মাত্রা আসত তাহলে… :ভাবতেছি: :দিবাস্বপ্ন: :নৃত্য:

          3. ধিঙ্কা চিকা ধিঙ্কা চিকা
            ধিঙ্কা চিকা ধিঙ্কা চিকা ধিঙ্কা চিকা…
            এ এ এ….

            😀 :গোলাপ: :ধইন্যাপাতা: :এখানেআয়: :মানেকি: :ভেংচি: :চশমুদ্দিন: :ভালুবাশি: :চিন্তায়আছি: :কলদে: :বুখেআয়বাবুল: :ভাঙামন: :ক্ষেপছি: :মাথাঠুকি: :হাহাপগে: :ফেরেশতা: :লইজ্জালাগে: :মুগ্ধৈছি: :তালিয়া: :কনফিউজড: :কানতেছি: :নৃত্য: :থাম্বসআপ: :bow: :খাইছে: :মাথানষ্ট: :পার্টি: :মনখারাপ: :ভাবতেছি: :অপেক্ষায়আছি: :কেউরেকইসনা: :হাসি: :জলদিকর: :খুশি: :দেখুমনা: :ঘুমপাইতেছে: :টাইমশ্যাষ: :শয়তান: :আমারকুনোদোষনাই: :ভালাপাইছি: :-B :ফুল: :salute: :নিষ্পাপ: :ক্লান্তকাছিম: :চিঠি: :বিগবস: :জ্ঞান: :ট্যাকা: :টেকোবস: :টাল: :চা: :প্রশ্ন: :বিস্ময়: :কল্কি: :দিবাস্বপ্ন: :চুম্বন: :শিস: :রকঅন: :জলদস্যু: :খাড়া: :চোখমারা: :হয়রান: :আমিওআছি: :থাম্বসডাউন: :আমিকিন্তুচুপচাপ: :বিষয়ডাকী: #-o =P~ :দীর্ঘশ্বাস: :অসুস্থ: :কথাইবলমুনা: :ঘুমাইতেছে:

          4. ইস্টিশন মাস্টার সাহেব, যে
            ইস্টিশন মাস্টার সাহেব, যে কাউকে ব্যান করার বিরোধী আমরা। বিপক্ষ মত হলেই তাকে ব্যান খেতে হবে এটা দেখে কষ্ট হয়, তার চেয়ে ভয় হয়। এতদিনের স্মৃতি জড়ানো কোনো অন্তর্জালিক অবস্থান থেকে এভাবে ব্যান হতে কেউই চায়না। ব্যাপারটা অনেকের আত্মসম্মানেও লাগে। কাউকে ব্যান করে কয়েক দিন পর আবার ব্যান প্রত্যাহার করে নিলে সে আত্মসম্মানের জায়গাটা থেকেও ফিরে আসতে চায়না আগের মত করে। তারিক লিংকন বিগত বছরের সেরা ব্লগার নির্বাচিত হয়েছেন। সেরা ব্লগার নির্বাচন করেছে মডারেশন প্যানেল অবশ্যই। তার মানে তারিক ভাইয়ের কৃতিত্ব ও ব্লগে তার বুদ্ধিদীপ্ত অবস্থান, মন্তব্য এবং পোস্ট বিবেচনা করেই তো তাঁকে সেরা ব্লগার ঘোষনা করা হয়েছে তাইনা?? আর তাকে এভাবে সাময়িক কলহের জের ধরে ব্যান করে দেয়াতে আমাদের আসলেই কোনো লাভ হয়েছে? আমরা জাস্ট একজন গঠনমূলক সমালোচককে হারালাম। আমরা ব্লগাররাই যদি অন্য ব্লগারের মুখ বন্ধ করে দিতে তোলপাড় কান্ড ঘটিয়ে ফেলি তাহলে, আমরা রাষ্ট্রীয় ও সামাজিকভাবে সম্মান পাবো? ইস্টিশনে লীগ সরকারের সমালোচনা করে অনেক পোস্ট হয়। সেই পোস্ট গুলোতে বিপক্ষের মতামতকে যেভাবে আক্রমন করা হয় সেটা আপনি মডারেশন প্যানেলে বসে ভালো ভাবেই দেখার কথা। এমনকি আমি নিজেও এমন অনেক লীগের সমালোচনামূলক পোস্টে বিরোধীতা করেছি, কিন্তু আমি বাম বিদ্বেষী হয়ে যাইনি!! বামদের অবদান নিয়ে আমারই একটি পোস্ট আপনিই স্টিকি করেছেন!! ব্লগে এইসব ব্যাপার খুবই স্বাভাবিক মনে হয় আমার কাছে। কিন্তু সম্পূর্ণ বিনা কারনে হঠাৎ করেই নেমে আসে মহামারী ব্যান!! এটা যদি ইস্টিশনের স্বাভাবিক সংস্কৃতি হয়ে যায়, তাহলে বলবো এখানে সুস্থধারার ব্লগিং করা অসম্ভব পর্যায়ের হয়ে যাবে। বাংলা ব্লগে গঠনমূলক সমালোচকের বড়ই অভাব। সেখানে এভাবে কোনো সুস্থ মস্তিষ্কের এবং পরিচ্ছন্ন একজন ব্লগারকে ব্যান করায় ভীত হলাম, লজ্জা পেলাম এবং নিরাশ হলাম।

            পরিশেষে বলি, প্লিজ, আমার কোনো মতামত যদি কখনো কারো অপছন্দ হয়, ব্যক্তিগত আক্রমন বলে মনে করে বসেন, ব্যান করবেন না। আমাকে অবগত করলেই আমি নিজ দায়িত্বে ইস্টিশন ছেড়ে চলে যাবো; কথা দিলাম। ব্যান সংস্কৃতি কারোই ভালো লাগার কথা নয়। মতামত দিয়ে গেলাম। আর ইস্টিশনে চূড়ান্তভাবে আগ্রহ হারালাম। ভালো থাকবেন সবাই। ভালো রাখবেন সবাই-নিজেকে;একে অপরকে…………………

          5. ব্যান কইরা দিছেন। বিশাল
            ব্যান কইরা দিছেন। বিশাল ব্যাপার!! যাই হোক,
            একটা কথা কইমু মাস্টার,

            মডারেশন প্যানেলের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে যেই প্রতিক্রিয়া দেখাবেন তাকে/তাদেরকেও একইভাবে ব্যান করা হবে। মডারেশন প্যানেলকে কঠোর হতে কেউ বাধ্য করবেন না বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে।


            এই কথাটা কেমন যেন লাগল। কেও কোন কথা বলতে পারবে না এমন নীতি কঠোর ভাবে মেনশন করাটা কি জরুরী?
            প্রতিক্রিয়া দেখালেই ব্যান!! গলা চিপ্লেই কি স্বর বন্ধ হয়? যাই হোক, কিছু বলার নেই আর। ভালো থাকবেন

          6. কাউকে ব্যান করার আমিও
            কাউকে ব্যান করার আমিও পক্ষপাতী না। কিন্তু সবকিছুর একটা লিমিট থাকে। সতর্ক করার পরও উনার উস্কানি দেওয়ার কোন প্রয়োজন ছিল না। ব্লগ চালায়ে কেউ পেট চালায় না। কিন্তু এভাবে উস্কানি দিয়ে দিয়ে দুইদিন পরপর ব্লগের পরিবেশ উত্তপ্ত করে দিয়ে মজা দেখার মানে কি? মডারেশন প্যানেলে যারা কাজ করেন তাদের কি আর কাজ নাই? সারাদিন ব্লগে বসে পাহাড়া লাগাইতে হবে কে কোথায় কখন কি ক্যাচাল লাগায়, আর সেটা সামলাইতে হবে? ব্লগার অব দ্যা ইয়ার নির্বাচিত হওয়ার পর উনার দায়িত্ব কিন্তু আরও বেড়ে যাওয়ার কথা। সেটা কি উনি করেছেন? বিশেষ করে এই পোস্টে একবার উনাকে সতর্ক করে দেওয়ার পরও? কেন এই ঔদ্ধত্ব? উনার সম্মান আছে, আর মডারেশন প্যানেল থেকে যে উনাকে সতর্ক করার পরও উনি সেই ব্যাপারে গ্রাহ্যই করলেন না সেক্ষেত্রে প্যানেলের কথার কোন মূল্য নাই? বাক-স্বাধীনতা কেউ কাউকে দিয়ে দেয় না, সেটা অর্জন করে ধরে রাখতে হয়। আমরা নিজেরাই বিচার করে দেখি, আমরা কতটুকু দায়িত্বিশীল আচরণ করেছি।

          7. কিন্তু
            এভাবে উস্কানি দিয়ে

            কিন্তু
            এভাবে উস্কানি দিয়ে দিয়ে দুইদিন পরপর
            ব্লগের পরিবেশ উত্তপ্ত
            করে দিয়ে মজা দেখার মানে কি?

            প্রমাণ চাই। এভাবে উস্কানি দাতা বলার মানে হয় না। আর কোথায় গেঞ্জাম লাগালো বলুন।

          8. স্বদিচ্ছা থাকলে নিজেই খুঁজে
            স্বদিচ্ছা থাকলে নিজেই খুঁজে দেখো। বিগত দুইদিনের উনার মন্তব্যগুলো এবং আগে যখনই কোন গ্যাঞ্জাম লাগছে সেখানে উনার মন্তব্যগুলো খুঁজে খুঁজে পড়ে দেখো উত্তর মিলে যাবে। এই পোস্টেই প্রমান আছে। দেখার চোখ থাকলে দেখে নাও। আর চোখ বন্ধ করে উত্তর খোঁজার চেষ্টা করলে কিছু বলার নাই।

          9. “ইস্টিশন ব্লগ একটি সম্পুর্ন

            “ইস্টিশন ব্লগ একটি সম্পুর্ন নিরপেক্ষ ও মুক্তচিন্তার ব্লগ প্ল্যাটফরম। কোন রাজনৈতিক, ধর্মীয় গোষ্ঠি বা নির্দ্দিষ্ট কোন দল, গোষ্টি, বর্ণ, গোত্রের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এখন থেকে মডারেশন প্যানেল জিরো টলারেন্স দেখাবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

            আমার উপরোক্ত মন্তব্যটি কোন দল , গোষ্টি, বর্ণ, গোত্রের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়েছে আমি জানি না।

            যাহোক একটা কথা মহামান্য মাষ্টার সাব,

            আপনি বলতে চাচ্ছেন ‘ইস্টিশন ব্লগ একটি সম্পুর্ন নিরপেক্ষ ও মুক্তচিন্তার ব্লগ প্ল্যাটফরম।’ আপনি নিজে কি এইটা বিশ্বাস করেন? গত একসপ্তাহের এই ঝগড়া বিবাদে আমি কতটা অংশজুড়ে ছিলাম? কয়টা মন্তব্য করেছি?

            নিরপেক্ষতার মানদণ্ড যেন কি? আমার একটা পোস্ট ছিল ইস্টিশনে এখনও পড়ে দেখতে পারেন সবাই! ইস্টিশন এতোই নিরপেক্ষ যে এযাবৎ কালের সকল ব্যান (স্থায়ী বা অনির্দিষ্টকালের জন্যে ব্যান) করা সকলেরই পোস্ট দেখা যায় না। খালি আমারগুলো আছে… ভাল তো ভাল না! নিরপেক্ষতার নিরপক্ষ নিদর্শন!!
            এখন কি আমার কথাটা যথার্থ মনে হচ্ছে না যে “বিড়াল খেল ময়ূর, চাকরি হারালো পুলিশ”…

            কোন নিরপেক্ষ, আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন মানুষ যদি গত কয়েকদিনের মন্তব্য-প্রতিমন্তব্য পড়ে মনে করে আমি ব্যান হওয়ার মত কিছু করেছি তবে আসলেই ইস্টিশন সাচ্ছা নিরপেক্ষ ব্লগ…

            আর এই পোস্ট প্রথম পাতা থেকে সরানোর পর কেবল আমি না অনেকেই মন্তব্য করেছে!! কিন্তু মাষ্টার সাব এতোই নিরপেক্ষ যে আমাকেই ওয়ার্নিং দিল!! স্টিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে আরও অনেক কিছু বলে মন্তব্য দীর্ঘ করতে চাই না।

            এইবার আসি পরের প্রসঙ্গে,
            “কোন রাজনৈতিক, ধর্মীয় গোষ্ঠি বা নির্দ্দিষ্ট কোন দল, গোষ্টি, বর্ণ, গোত্রের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এখন থেকে মডারেশন প্যানেল জিরো টলারেন্স দেখাবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”
            এখন দেখছি শর্ষের মধ্যেই ভুত। যদি তাই হয়ে থাকে তবে ইস্টিশন মাষ্টার নিজে ক্যান তা করছে। এইটা কি ধরণের মুক্তমনার নিদর্শন?

            শ্রদ্ধাস্পদ হুজুর মাষ্টার সাব,
            আপনি আমাকে কৃত অপরাধের জন্য আমাকে ব্যাখ্যা প্রদান করতে বলেছেন এবং ইস্টিশনের ফেইসবুক পেইজে কিংবা মেইলে দুঃখ প্রকাশ করার জন্য বলেছেন।… আমি সুস্থ মস্তিষ্কেই ভেবে দেখেছি আমি তেমন কোন প্রকার অন্যায় করি নি। তারপরও যদি আপনার তাই মনে হয় তবে আমাকে বিধি বা ধারা দেখান। কোন বিধির কোন ধারায় আমি ব্যান হতে পারি? হওয়া উচিৎ…

            মজার ব্যাপার কি জানেন গতকাল চট্টগ্রাম থেকে বেড়াতে আসা আমার ভাগিনা বলে তাহলেতো আমাদের মত সাধারণেরাই ভাল। আর আওয়ামীলীগ সরকারও কখনও কাউকে পুরুস্কার দিয়ে পরের দিন কতল করে না। এইটা কেবলই জামাতি-হেফাজতিরা করতে পারে। কিসের মুক্তজ্ঞান চর্চায় আপনি এতো শ্রম দিলে বছর ধরে… আমি লজ্জা পাইছি!! কিন্তু জানি ইস্টিশন মাষ্টার সাব লজ্জা পাবে না…

            শুরুতেই কিছু প্রশ্ন করে শেষকথা বলছি,

            মুক্ত মন কি? মুক্তমনা কারা?
            মানুষের মানসিকতা কতটা উদার হলে তাকে মুক্তমনা বলা যায়?
            মুক্তমনা কি কেবলই একটি শব্দ?
            এই ট্যাগকি মানুষ নিজেই নিতে পারে?
            প্রতিক্রিয়াশীলতার সুদীর্ঘ অন্ধকার কি এখনো কাটেনি?

            কিছু মানুষের ভিতরের নগ্ন কুকুর না থাকলে আসলেই মানুষের মানবিকতাকে উপলব্ধি করা দুষ্কর হত। মানুষের জয় হোক…

            “কুকুরের কাজ কুকুর করেছে কামড় দিয়েছে গায়,
            তাই বলে কুকুরকে কামড়ানো কি মানুষের শোভা পায়?”

          10. আর আওয়ামীলীগ সরকারও কখনও

            আর আওয়ামীলীগ সরকারও কখনও কাউকে পুরুস্কার দিয়ে পরের দিন কতল করে না।

            পুরুস্কার পেয়েছেন দেখে মডারেশন প্যানেলের সতর্কবার্তাকেও আপনি আমলে নিবেন না বা ইস্টিশন আওয়ামী ব্লগ হয়ে গেছে, এই ধারনা আপনি মনে পোষন করেন কেমনে?

            ইস্টিশন এতোই নিরপেক্ষ যে এযাবৎ কালের সকল ব্যান (স্থায়ী বা অনির্দিষ্টকালের জন্যে ব্যান) করা সকলেরই পোস্ট দেখা যায় না। খালি আমারগুলো আছে… ভাল তো ভাল না! নিরপেক্ষতার নিরপক্ষ নিদর্শন!!

            আপনার এই কথাটি সম্পুর্ণ ভুল। ব্যান করলেও সবার পোস্ট পড়া যায় এবং দেখা যায়।

          11. শুধুমাত্র আওয়ামীলীগের
            শুধুমাত্র আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে আমাকেও ব্যান করা হয়েছিল। মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখাইনি। মেনে নিয়ে অপেক্ষা করেছি। কারণ এখনো পর্যন্ত ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের প্রতি আমার আস্থা আছে। আর আপনি কোন জায়গার আবদুল্লা হয়ে গেছেন যে, মডারেশন প্যানেল সতর্ক করার পরও প্যানেলকে খোঁচা মেরে কথা বলবেন আর মডারেশন প্যানেল আপনাকে হুজুর হুজুর করবে? আপনার এটা বোঝা উচিত ছিল, ব্লগার অব দ্যা ইয়ার হওয়ার পর ব্লগের প্রতি আপনার ডেডিকেশন এবং ব্লগার হিসাবে আপনার দায়িত্ববোধ অনেক বেশী আশা করে সবাই।

            আমাকে অনায্যভাবে ব্যান করলেও আমি ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের প্রতি এখনো ভরসা রাখি। ভবিষ্যতেরটা পরে দেখা যাবে।

          12. আমাকে অনায্যভাবে ব্যান করলেও

            আমাকে অনায্যভাবে ব্যান করলেও আমি ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের
            প্রতি এখনো ভরসা রাখি।

            প্রথমত -অন্যায় যে করে আর অন্যায় যে সহে, তব ঘৃণা যেন তারে তৃণসম দহে।

            দ্বীতিয়ত -আপনি বলছেন ইস্টিশন মাস্টার আপনাকে অন্যায় ভাবে ব্যন করেছিল। এটা কি ইস্টিশন মাস্টারের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে হল না?? এখন আপনার বিরুদ্ধে ইস্টিশন মাস্টার কি পদক্ষেপ নেয় দেখা যাক।

          13. ব্লগে কথায় কথায় ব্যান করার
            ব্লগে কথায় কথায় ব্যান করার জন্য আপিল করার সংস্কৃতি যারা শুরু করেছে, তারাই এখন চিপায় পড়েছে। বড়ই আপসোস! এখন আবার আমার ব্যান দাবী করেন। সমস্যা নাই। তারপরও যে ব্লগের প্ল্যাটফরম ব্যবহার করে কথা বলি, সেই ব্লগের মডারেশন প্যানেলের উপর আমার আস্থা আছে।

          14. জনাব বৃত্তবন্দী আপনার
            জনাব বৃত্তবন্দী আপনার মন্তব্যই প্রমান করে আপনি আপনিই আর তারিক লিংকন তারিক লিংকনই।তো সুজোগে কাউকে দেখে নেবার আগে নিজের যোগ্যতাটা যাচাই করে নেয়া ভাল।

          15. যখন সবাই আমার ব্যান দাবী
            যখন সবাই আমার ব্যান দাবী করেছিল, তখন আপনাদের এই বাক স্বাধীনতা কোথায় ছিল? আমাকে ব্যানের পর সবার উলঙ্গ নৃত্য কি আপনাদের চোখে পড়ে নাই? কথায় কথায় ব্যান দাবী করা বা ব্যান করা কোনটাই কাম্য নয়।

          16. আমিও আমার নিজের মত প্রকাশ
            আমিও আমার নিজের মত প্রকাশ করেছি মাত্র। ঘটনাটি হয়ত আপনাদের মনে না থাকতে পারে, আমার মনে আছে। ব্যানের সংস্কৃতি কখনই ভাল কিছু হতে পারেনা। এই কথাটিও বলেছিলাম তখন। কিন্তু আমাকে ব্যান করার পর ব্লগে আপনাদের উল্লাসের চিত্রটা একটু ভাবুন। যেই কষ্টটা আপনাদের লাগছে এখন, একই কষ্ট আমারও লেগেছিল। এই ব্লগের সাথে প্রথম দিন থেকে আছি, তাই মেনে নিয়েছি শাস্তি। আবার ফিরে এসেছি। তবে আমি কখনই কারো ব্যান দাবী করিনি, করবো না। নিজের গর্তে নিজে পড়লে আপসোস করা ছাড়া আর কিছুই কি করার আছে?
            হ্যাপি ব্লগিং।

          17. মিস্টার বৃত্তবন্দী, আপনাকে
            মিস্টার বৃত্তবন্দী, আপনাকে কোনো পোস্টে ভালো কোনো মন্তব্য করতে দেখিনা। যেখানে ইস্টিশন মাস্টার হস্তক্ষেপ করে এবং কাউকে ব্যান করে সেখানে আপনি অলওয়েজ বাম হাত ঢুকাইয়া দেন। এটা যথেষ্ট সন্দেহজনক। কারণ, দেখা যায় একমাত্র ইলেভেন্থ আওয়ারে আপনি এসে সাফাই গেয়ে যান। আপনি কি আসলেই আলাদা কোনো মানুষ? নাকি ম্যান ইন মাস্ক?? আপনি উক্ত কমেন্টের মাধ্যমে মডারেশান প্যানেলের প্রতি আপাত সম্মান দেখাইলেও আপনি বলেছেন,

            আমাকে অনায্যভাবে ব্যান করলেও আমি ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের প্রতি এখনো ভরসা রাখি।

            এই কথা দ্বারা আমরা সবাই বুঝে গেছি আপনি মডারেশন প্যানেলকে খোঁচা মেরে কথা বলতেছেন। দেখা যাক মডারেশন প্যানেল আপনার উপর কি ব্যবস্থা নেয়। তাছাড়া আপনার কমেন্ট দেখে মনে হয় আপনি বিশেষ কয়েকজন ব্লগারের বিরোধীতা করতেই নিক তৈরী করছেন। আপনার উপর বিশেষভাবে বিরক্ত। লড়াই করতে হলে আসল নিক থেকেই করবেন। আশা করি, মাস্টার সাহেব বিষয়টা ভেবে দেখবেন।

          18. সমস্যা নাই ভাই। ব্যান দাবী
            সমস্যা নাই ভাই। ব্যান দাবী করতে পারেন। এটাই আপনাদের সংস্কৃতি। কিন্তু একজন ব্যান হওয়ার পর কতটা হতাশাজনক হয় ঘটনাটি আশাকরি বুঝতে পারছেন।

          19. আমাদের সংস্কৃতি মানে?? আপনি
            আমাদের সংস্কৃতি মানে?? আপনি কি বিশেষ কয়েকজন ব্লগারের পিছনে শুরু থেকেই লাগেন নাই??? আপনি এখানে বেনিফিট অব সিম্পাথি দাবী করলে ক্যামনে হবে?? উপরিউক্ত কমেন্টে আপনি মডারেশান প্যানেলকে খোঁচা দিলেন কেন?? কাউকে অযথা কষ্ট দেয়ার ইচ্ছা আমার নাই। কিন্তু কেউ সেটা অর্জন করে নিলে আমার আর কি করার আছে?? কি করার থাকতে পারে??

          20. আমরা দাবী না করলেও ইস্টিশব
            আমরা দাবী না করলেও ইস্টিশব মাস্টার এর কথা অনুযায়ী আপনি ব্যন হতে পারে। মাস্টার সাহেব যা ভাল বুঝেন করবেন।

  7. আমি জানিনা জয় পোস্টটি কি মনে
    আমি জানিনা জয় পোস্টটি কি মনে করে দিয়েছে বা কারো প্ররোচনায় পড়ে দিয়েছে কিনা! অথবা, তার বয়সজনিত বা আবেগঘটিত কারণেও হতে পারে। তবে আমরা সবাই যে প্ল্যাটফরমে দাঁড়িয়ে প্রতিদিন অন্তত একবারের জন্য হলেও প্রাণে প্রাণ মিলাতে আসি, সেই প্ল্যাটফরমের উপর সর্বশেষ মহুর্ত পর্যন্ত আস্থা রাখা উচিত আমাদের সবার। অতীতেও ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তগুলো চমৎকার ছিল, আস্থা না আসার মত কোন বিশেষ কিছু ঘটে নাই। এ ক্ষেত্রেও তোমার এই পোস্টটি আসা ঠিক হয় নাই।

    ….. ব্যাপার না। আমরা সবাই ভুল করতে করতেই শিখি। জয় আমাদের পাগলাটে ছোট ভাই। তার জন্য সবার ভালবাসা যেমন আছে আবার শাসন করারও অধিকার আছে। …… যত কিছুই ঘটুক, আমাদের প্রাণে প্রাণ মিলানো কেউ ঠেকাতে পারবেনা। সকল মৌলবাদের পতন ঘটুক, জয় একজন বড় অনলাইন এক্টিভিস্ট হিসাবে গড়ে উঠুক।

    হ্যাপী ব্লগিং জয়!

    1. আমরা সবাই ভুল করতে করতেই

      আমরা সবাই ভুল করতে করতেই শিখি। জয় আমাদের পাগলাটে ছোট ভাই। তার জন্য সবার ভালবাসা যেমন আছে আবার শাসন করারও অধিকার আছে। …… যত কিছুই ঘটুক, আমাদের প্রাণে প্রাণ মিলানো কেউ ঠেকাতে পারবেনা। সকল মৌলবাদের পতন ঘটুক, জয় একজন বড় অনলাইন এক্টিভিস্ট হিসাবে গড়ে উঠুক।
      হ্যাপী ব্লগিং জয়!

      শুধু আমার ভুল মাফ হয় না, আমারে কেউ পাগল ভাবে না :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

      তয় ভালোবাসা, শাসনডা বরাবর আছে 😀 😀 😀

      এবং পরের কথাগুলোই সত্য, দিনশেষে আমরা পরিবারের সদস্য :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:

      আর সবাই কি ভাবছেন জানিনা তবে জয় যদি পরিবার ছাড়াছাড়ির মত কিছু উদ্ভট চিন্তা করে তবে তার কপালে খারাবি আছে। সেই তো বলে তারে এই ব্লগে আমি এনেছি সুতরাং আমার অনুমতি না নিয়া সে কেমনে যাবে? :ভাবতেছি: :ভাবতেছি:

      শুধু জয় কেনো কেউই যাবে না।

      1. এই পাগলা উচিত কথায় কাউকে ছাড়ে
        এই পাগলা উচিত কথায় কাউকে ছাড়ে না, সম্মান সম্মানের জায়গায় নিজের মতামত নিজের জায়গায়। সে আতিক ভাই হোক রাহাত ভাই হোক লিংকন ভাই কিংবা অন্যকেউ আমার কাছে যেটা ভাল লাগে না অন্যায় মনে হয় তা সরাসরি বলি।

        সেই তো বলে তারে এই ব্লগে আমি এনেছি সুতরাং আমার অনুমতি না নিয়া সে কেমনে যাবে?

        কথা টা আমি সবসময়ই বলি। এই কথা বলার জন্য কি আপনি আমাকে শিখিয়ে দিয়েছিলেন??? আমি কারোও কথায় চলি না, আমার চিন্তা ভাবনা আমার নিজের।

        1. উচিত কথায় কাউরে ছাড় দিতে
          উচিত কথায় কাউরে ছাড় দিতে নাই।

          এই কথা বলার জন্য কি আপনি আমাকে শিখিয়ে দিয়েছিলেন??? আমি কারোও কথায় চলি না, আমার চিন্তা ভাবনা আমার নিজের।

          না শিখাই তো দেই নাই, বারবার তুমি বলো তাই আমিও কইলাম আজকে 😀 😀 😀 কারো কথায় চলতে হবে না কাউকে, শুধু কথার দাম দিলেই হবে :হাসি: :হাসি: :হাসি:

    2. মন্তব্যটি সকলের জন্য।
      আমি

      মন্তব্যটি সকলের জন্য।

      আমি জানিনা জয় পোস্টটি কি মনে করে দিয়েছে বা কারো প্ররোচনায় পড়ে দিয়েছে কিনা!

      এই ছেলে জয় নয়।

      তার বয়সজনিত বা আবেগঘটিত কারণেও হতে পারে।

      এটা হতে পারে, ইস্টিশন ব্লগটাকে আপন মনে করতাম তো, নিজের বাসার মতই। তাই ঝামেলা মেটাতে হস্তক্ষেপ করেছিলাম। যা ইতি পূর্বে বহুবার করেছি। আমার পুরাতন পোস্ট ঘাটলেই দেখতে পারবেন। কিন্তু আজ আতিক ভাই এর মেজাজ টা একটূ গরম থাকেয় তিনি ভুল বুঝেছেন। সেই সাথে সকলেই সেভাবেই নিয়েছে পোস্টটিকে। সমাধানের উদ্দেশ্য নিয়ে লিখেছি এ দৃষ্টি নিয়ে আরেকবার পড়ুন তার পর বলুন আমি আক্রমণ করতে দিয়েছি কিনা। যেখানে অন্যব্লগার আপনার ও আতিক ভাই এর মত সিনিয়ার ব্লগারকে আক্রমণ করায় আমি গায়ে পরে ঝগড়া করেছিলাম সেই ছেলে আমি আতিক ভাইকে আক্রমণ করবো এটা বলার আগে আপনার আর আতিক ভাই এর এটা অন্তত একবার ভাব উচিত ছিল।

      অতীতেও ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের সিদ্ধান্তগুলো চমৎকার ছিল, আস্থা না আসার মত কোন বিশেষ কিছু ঘটে নাই। এ ক্ষেত্রেও তোমার এই পোস্টটি আসা ঠিক হয় নাই।

      হ্যাঁ ইস্টিশন মাস্টার এর সিদ্ধান্ত ভুল ধরি নি আগে।। মানুষের দ্বারা ভুল হয়, আমি ইস্টিশন মাস্টারকে ছোট একটা ভুল ধরিয়ে দিয়েছি মাত্র, কিন্তু আমার পোস্টের মূল উদ্দেশ্য এটা ছিল না। কিন্তু ইস্টিশন মাস্টারও ভুল বুঝেছে যে তার বিরুদ্ধে পোস্ট।

      আমরা সবাই ভুল করতে করতেই শিখি। জয় আমাদের পাগলাটে ছোট ভাই। তার জন্য সবার ভালবাসা যেমন আছে আবার শাসন করারও অধিকার আছে।

      অবশ্যই আছে। আমি সর্বদাই বলি ইস্টিশন নানা মতাদর্শের সদস্যদের নিয়ে একটা পরিবার আমি সেই পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ, তাই অনেকটা আবদার নিয়েই কথা বলি।

      যত কিছুই ঘটুক, আমাদের প্রাণে প্রাণ মিলানো কেউ ঠেকাতে পারবেনা।

      হাহা আমিও এখন বিতর্কিত একজন যাকে ইস্টিশন মাস্টার পর্যন্ত সতর্ক করেছেন। সে প্রাণ মেলাতে পারবে বলে মনে হয়না, কারণ আগে যেমন কথা বলেছি রসিকতা করে এখন তার চেয়েও কম বললে সেটাকে নেয়া হবে ব্যক্তিগত আক্রমণ হিসেবে।

      বড় ভাই হিসেবে আতিক ভাই এর মত মানুষের কাছে এমন আশা করি নি। সেই প্রথম থেকে তিনি আমাকে সহায়তা করে আসছে, এবং আমার কাছে সম্মানিত একটা স্থানে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। তাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করবো এমন ছেলে এই জয় নয়।

      ধন্যবাদ ভাল থাকবেন।

  8. জয় তোমাকে বলি তুমি জে ইস্যু
    জয় তোমাকে বলি তুমি জে ইস্যু নিয়ে পোস্ট দিয়েছ, এটা কি কোন আলোচনার বিষয় হতে পারে? তার উপর পোস্ট এর শুরুতে তুমি কষ্টে আছে আইজুদ্দিন এর পোস্ট এর রেফারেন্স টেনে পোস্ট শুরু করেছ। শোন জয়, এইসব ইস্যুতে কথা বলা মানে বিতর্কে জড়ানো, এবং সেটা অহেতুক। আর তাছাড়া সবার এইসব ব্যাপারে আলোচনা বন্ধের, বিশেষ করে পোস্ট প্রদান থেকে বিরত থাকতে আহবান জানাবো।
    সবার একটা বিষয়ে স্পষ্ট উদ্দেশ্য থাকা উচিত ব্লগে লেখার ক্ষেত্রে।
    ব্লগকে কেও যদি, পক্ষ নেওয়া, দলগত আক্রমন, মন্তব্য যুদ্ধের বিভ্রান্তি, তর্কের উত্তেজনা, ইস্যু ভিত্তিক সমালোচনার অসামঞ্জস্যতা, এসব বিষয়ে আলোচনা করেন তাহলে বলব ব্লগিং ছেড়ে দেন। ইদানিং ব্লগে ব্লগে যে কেচাল গুলা লাগতেছে, ইষ্টিশনেও সেটা হচ্ছে, এয়া খুবই দুঃখজনক। অযথা সময় নষ্ট থেকে শুরু করে এসব ভিত্তিহীন বিষয়ে তর্ক বিতর্কে, দলগত খোঁচাখুচি, আদর্শগত পাল্টা আক্রমন, প্রভাব বিস্তার ইত্যাদি না করে, লিখুন, জানুন, যুক্তিবাদী এবং সহনশীল হতে শিখুন। আর ভাল্লাগে না ব্লগে এসব দেখতে। অসহ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

    1. তার পোস্টে যান সেখানের
      তার পোস্টে যান সেখানের মন্তব্য গুলো দেখুন কবের আর আমার মন্তব্য গুলো দেখুন কবের। ঝামেলার অবসানের জন্যই ভুল বোঝাবোঝির অবসানের জন্য এমন করেছি আগেও। আমার পোস্ট ঘেটে দেখুন……।

      1. জয় একটা কথা বলি, এভাবে ভুল
        জয় একটা কথা বলি, এভাবে ভুল বুঝাবুঝির অবসান হয় না। আর সত্যিকার অর্থে , তোমার এই পন্থাটা ভুল। শোন, কোন বিষয় ভুল, এবং সেই ভুল বিশয়কে নতুন ভাবে টেনে এনে ভুল শব্দ উচারনের মাধ্যমে নতুন সমাধান দাড় করানোর চেষ্টা আর একটা ভুল। আশা করি বুঝবে। মাথা ঠাণ্ডা কর। 🙂

        1. হুম
          হুম বুঝলাম…

          আপনাদের(সমালোচকদের) অভিযোগ যদি সেই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে হয় তবে আপনারা কেন তর্ক করছেন ? অন্যরা কি সেই অধ্যাপকের কথার সাপোর্ট দিয়েছে?

          আমি এতটুকুই প্রধানত বুঝাতে চেয়েচি। উভয়ের অভিযোগই এক। কিন্তু যাদের দলকানা বলা হচ্ছে তারা নিউজের পরের অংশের কথাটা বলছেন কারণ যখন আওয়ামিলীগের সমালোচনা করছেন তখন তারা মন্ত্রির কথা বলবেই, কারণ এটা ওটার সাথে জড়িত। ।

          পুনরায় বিতর্ক বাড়াতে চাই না ধন্যবাদ।

  9. প্রায় কনফিউজড। অনেকদিন
    প্রায় কনফিউজড। অনেকদিন ইস্টিতে নাই। কি ঘটতেছে কিছুই বুঝতেছিনা। তবে অভিজ্ঞতা থেকেই বলতেছি, ইস্টিশনে এমন ক্যাঁচাল নতুন কিছু না। আমিও আবেগ তাড়িত হয়ে অনেক আগে মডারেশান প্যানেল নিয়ে পোস্ট দিছিলাম। যদিও সেটার পেছনে যথেষ্ট কারণ ছিলো। ইস্টিশনে ক্যাঁচাল লাগে, দুইদিন পর আবার সব ঠান্ডা। জয়, তুমিও যথাসম্ভব আবেগতাড়িত হয়ে পোস্ট করে দিয়েছো। তাৎক্ষনিক আবেগতাড়িত হওয়া ঠিক না। আর ক্যাঁচাল মিটানোর কিছু নাই। অকারনে আর এই বৃথা চেষ্টাটা না করারই পরামর্শ দেবো তোমাকে। কেউ কারো প্রতি বিশ্বাস হারালে সেই বিশ্বাস আবার পুরোপুরি ফিরিয়ে আনা যায়না। তাই বিবাদ মিটাতে গিয়ে মাঝে পড়ে তুমিই আবার ব্যান খেয়ে যাও সেটা আমি চাইনা, কেউই চায়না। আর ইস্টিশন মাস্টার যথাসাধ্য দ্রুততার সাথেই ব্যবস্থা নিচ্ছেন ইদানিং। বস্তুত এইসব মামুলী ব্যাপার সিনিয়র ব্লগাররাই সমাধান করার চেষ্টা করতে পারেন। কথায় কথায় ইস্টিশন মাস্টারকে ডেকে এনে হুমকি দেয়া মোটেই ভালো কাজ নয়। আরেকটা কথা। আপীল না করলে যেমন আম্পায়ার আউট হলেও দেয় না, তেমনি শিকল না টানলে ইস্টিশন মাস্টারও হস্তক্ষেপ না করলেই বোধহয় ভালো হয়। কারণ দেখা যায় অনেকে হয়তো সামান্য কারনেও আবেগতাড়িত হয়ে ইস্টিশন মাস্টারকে ডেকে বসেন। এই অভ্যাস ত্যাগ করা উচিত। ব্যক্তিগত আক্রমন করা হলে সে নিয়মানুযায়ী “শিকল টানুন” ট্যাবে গিয়ে অভিযোগ করবে, ইস্টিশন মাস্টার সেটা বিবেচনা করবেন।

    আমরা ব্লগিং করি কাউকে ব্যান করানোর জন্য না। কেউ আমার বিরুদ্ধে কথা বললো আর আমি তাকে ব্যান করানোর জন্য আবেদন করলাম সেটা ভালো হতে পারেনা। বরং আমার উচিত হবে ব্যক্তিগত আক্রমনকারীর পোস্টের ত্রিসীমানায় না ঘেঁষা, ব্লগে তার সকল পোস্ট এভয়েড করা। সে যাই হোক, ইস্টিশন আছে এবং থাকবে। মডারেশন প্যানেল আগের চেয়ে সক্রিয় হয়েছে দেখে ভালো লাগছে বরং। আর সবাইকে অনুরোধ করবো, বিরুদ্ধ সমালোচনাকে ফেইস করুন, সমালোচকের মুখ বন্ধ করে দেবেন না। কথায় কথায় কারো ব্যান দাবী করবেন না। ব্লগ একটা মুক্ত প্লাটফর্ম। আমি লীগার বলে সবাইকেই লীগার হতে হবে, আমি বামপন্থী বলে সবাইকে বামপন্থী হবে এমন তো কোনো কথা নাই। লড়াই চলুক সমানে সমানে।

    1. পুরোটার সাথে সহমত।
      বিশেষ করে

      পুরোটার সাথে সহমত।
      বিশেষ করে এ লাইন গুলো……

      জয়, তুমিও
      যথাসম্ভব আবেগতাড়িত হয়ে পোস্ট
      করে দিয়েছো। তাৎক্ষনিক আবেগতাড়িত
      হওয়া ঠিক না। আর ক্যাঁচাল মিটানোর কিছু
      নাই। অকারনে আর এই
      বৃথা চেষ্টাটা না করারই পরামর্শ
      দেবো তোমাকে। কেউ কারো প্রতি বিশ্বাস
      হারালে সেই বিশ্বাস আবার
      পুরোপুরি ফিরিয়ে আনা যায়না।

      এখন থেকে সে হিসেবেই চলব। কাকে কোথায় কি বলল সেটা দেখবে না আর এই। জয়। ইস্টিশনটাকে শুধু ‘ব্লগ’ হিসেবেই দেখবো। এই সামান্য ব্যপারে যে পরিবারের বন্ধন ছুটে যায় সেটা আর কি পরিবার বুঝি না। ভাল থাকবেন আতিক ভাই, আপনাকে ধন্যবাদ আমার লেখার ইনপ্রুভমেন্টের পেছনে আপনার অবদান অনেক। আর আমি কোথায় আপনার ব্যন দাবী করেছি তাই বুঝলাম না!! সমাধান করতে গিয়ে নিজেই খারাপ হয়ে বসে রইলাম।

      1. তুমি আমার ব্যান দাবী করছ এটা
        তুমি আমার ব্যান দাবী করছ এটা আমি বলছি নাকি? আমি তোমার পোস্টের সাথে সহমত জানিয়ে নিজেই নিজের ব্যান দাবী করেছিলাম। বুঝতে ভুল হলে কি আর করা… :মাথাঠুকি:
        আর অনেকেই প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। আলাদা করে সবাই দেখছি আমাকেই দোষারোপ করা শুরু করল, তাই নিজেই নিজের ব্যান দাবী করেছিলাম, নাথিং এলস্‌… :ভাঙামন:

    2. তাৎক্ষনিক আবেগতাড়িত হওয়া ঠিক

      তাৎক্ষনিক আবেগতাড়িত হওয়া ঠিক না।

      :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

      ইস্টিশন মাস্টার যথাসাধ্য দ্রুততার সাথেই ব্যবস্থা নিচ্ছেন ইদানিং। বস্তুত এইসব মামুলী ব্যাপার সিনিয়র ব্লগাররাই সমাধান করার চেষ্টা করতে পারেন। কথায় কথায় ইস্টিশন মাস্টারকে ডেকে এনে হুমকি দেয়া মোটেই ভালো কাজ নয়। আরেকটা কথা। আপীল না করলে যেমন আম্পায়ার আউট হলেও দেয় না, তেমনি শিকল না টানলে ইস্টিশন মাস্টারও হস্তক্ষেপ না করলেই বোধহয় ভালো হয়। কারণ দেখা যায় অনেকে হয়তো সামান্য কারনেও আবেগতাড়িত হয়ে ইস্টিশন মাস্টারকে ডেকে বসেন। এই অভ্যাস ত্যাগ করা উচিত। ব্যক্তিগত আক্রমন করা হলে সে নিয়মানুযায়ী “শিকল টানুন” ট্যাবে গিয়ে অভিযোগ করবে, ইস্টিশন মাস্টার সেটা বিবেচনা করবেন।

      :bow: :bow: :bow: :bow:

      আমরা ব্লগিং করি কাউকে ব্যান করানোর জন্য না। কেউ আমার বিরুদ্ধে কথা বললো আর আমি তাকে ব্যান করানোর জন্য আবেদন করলাম সেটা ভালো হতে পারেনা। বরং আমার উচিত হবে ব্যক্তিগত আক্রমনকারীর পোস্টের ত্রিসীমানায় না ঘেঁষা, ব্লগে তার সকল পোস্ট এভয়েড করা। …… সবাইকে অনুরোধ করবো, বিরুদ্ধ সমালোচনাকে ফেইস করুন, সমালোচকের মুখ বন্ধ করে দেবেন না। কথায় কথায় কারো ব্যান দাবী করবেন না। ব্লগ একটা মুক্ত প্লাটফর্ম। আমি লীগার বলে সবাইকেই লীগার হতে হবে, আমি বামপন্থী বলে সবাইকে বামপন্থী হবে এমন তো কোনো কথা নাই। লড়াই চলুক সমানে সমানে।

      :bow: :bow: :bow: কি বলবো জাস্ট মনের কথাগুলো তুলে ধরেছেন ভাইডি।

    3. আপীল না করলে যেমন আম্পায়ার

      আপীল না করলে যেমন আম্পায়ার আউট হলেও দেয় না, তেমনি শিকল না টানলে ইস্টিশন মাস্টারও হস্তক্ষেপ না করলেই বোধহয় ভালো হয়।

      সামনে এইচএসসি পরীক্ষা। তাই তারিক ভাইয়ের কথা মতই এখন আর ব্লগে আসি না। কিসের মধ্যে থেকে কী হয়ে গেল, কিছুই বুঝতেছি না।

  10. জয়ের উদ্দেশে একটা কথাই বলবো –
    জয়ের উদ্দেশে একটা কথাই বলবো – তোমার জন্য বইমেলা থেকে কিছু বই কিনেছি । বইগুলো বাসায় এসে নিয়ে যেয়ো । ব্লগটাকে সৃজনশীলতা ও মননশীলতা চর্চার কেন্দ্র হিসেবে নাও । এর জন্য জ্ঞান অর্জন করা প্রাথমিক শর্ত । তুমি বেশ যুক্তিবাদী একটা ছেলে সন্দেহ নাই । কিন্তু মনে করনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার সবরকমের ক্ষমতা তুমি অর্জন করে ফেলেছ ।

    রাজনীতির পুস্তকে রাজনীতি বিষয়ে লেখা থাকে বটে , কিন্তু কেবলমাত্র রাজনীতির বই পড়ে কেউ রাজনীতিবিদ হয়েছে বলে আমার জানা নাই । আর রাজনীতির মধ্যে পলিট্রিক্স বুঝার ক্ষমতা তোমার এখনো হয়েছে বলে আমি মনে করি না । যেহেতু তোমাকে অনেকদিন ধরে চিনি । কেনা বেচা চলছে সবখানে । কে কাকে কখন কীভাবে কিনছে, কীভাবে বেঁচে দিচ্ছে স্বয়ং ‘ভালো মানুষটি ‘ বুঝতে পারছে না ।

    তোমার উদ্দেশ্য হয়তো মহৎ , কিন্তু তুমি আসলে সঙ্কটটা পুরোপুরি বুঝতে পারো নাই বলেই আমি মনে করি । আর একটা কথা , এই ব্লগে আমরা সবাই তোমাকে স্নেহ করি এবং একজন ব্লগার হিসেবেই কাউন্ট করি । আর ব্লগ চলে কিছু নিয়ম নীতির আলোকে – সেখানে স্নেহ দেখানোর কোন সুযোগ নাই । আশা করি তুমি তোমার বয়সের সাথে চলবা , আর যদি বয়সের আগে হাঁটতে চাও – দায় দায়িত্ব তোমার ।

    কথাগুলো তোমাকে স্নেহ করি বলে বললাম । এই শহরে দের কোটি মানুষ কিন্তু মানুষ চিনতে ভুল করনা ব্রাদার । শুভ কামনা ।

    1. জয়, ভাইয়া তোমার দৃষ্টি আকর্ষণ
      জয়, ভাইয়া তোমার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি!!
      রাহাত ভাইয়ের এই কথাগুলো ভাল করে আরও একটি বার পড়। আশা করি তোমার উপকার হবে!!!
      অনেক ভালোবাসা আর শুভ কামনা থাকলো তোমার জন্য… 🙂

  11. শুরু থেকেই সবকিছু দেখছি।
    শুরু থেকেই সবকিছু দেখছি। রুচিতে বাধে ব্লগে এসব ক্যাচাল করতে। ফেসবুক আছে, সেখানে সবাই স্বাধীন। ব্লগে এসব কেনো ?

  12. রুশো বলিয়া গিয়াছিলেন – আমি
    রুশো বলিয়া গিয়াছিলেন – আমি তোমার মতের সহিত একমত না হইতে পারি, কিন্তু তোমার মত প্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষা করিবার জন্য আমি জীবন দান করিতে প্রস্তুত আছি।

    আমরা ক্ষণে ক্ষণে এই উদ্ধৃতিখানা দিতে বড়ই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করিয়া থাকি। কিন্তু, উহা অন্তরে ধারণ করিবার বেলায় আমাদিগের বিশেষ চুলকানি পরিলক্ষিত হয়। আমরা প্রাণে প্রাণ মিলাইবার ব্যাপারে বিশেষ লম্ফঝম্ফ প্রদর্শন করিতে পারঙ্গম। তথাপি, প্রাণে প্রাণ মিলাইতে আসিলে আগে ভাল করিয়া দেখিয়া লই, উহা কী চিড়িয়া? আম নাকি বাম? জাম নাকি কাম? আমরা সমালোচনা করিতে বিশেষ পারদর্শিতা প্রদর্শন করি। কিন্তু, প্রশংসার ক্ষেত্রে তার কিয়দংশও প্রকাশ পায় না। আমরা ক্ষণে ক্ষণে একজনকে ধরিয়া মাথায় তুলিয়া লাফাইতে ভালবাসি। তখন তাহার হাগুও মেশক আম্বরের ন্যায় সুগন্ধযুক্ত মনে হয়। আবার তাহার মাসাধিককাল পার হইতে না হইতেই তাহাকে আছাড় মারিয়া ভূতলে ফেলিয়া দিই। তখন তাহার কথাকে মুরগির cock cock ছাড়া কিছুই মনে হয় না।

    অতঃপর আমরা আমরা হইয়াই থাকি। তুমি কথা বলিলে, তোমার মুখ অতঃপর তোমার গলা চাপিয়া ধরি। ধরিয়া থাকি। আর যখন তোমার মৃত্যু ঘটিয়া যায়, তখন আমরা পুনরায় মুক্তচিন্তা-বাকস্বাধীনতা বলিয়া রব তুলি।

    জয় মুক্তচিন্তা
    বাক স্বাধীনতার জয় হউক
    প্রাণে প্রাণ মিলাইবই।

    1. (……………………….
      😀 :গোলাপ: :ধইন্যাপাতা: :এখানেআয়: :মানেকি: :ভেংচি: :চশমুদ্দিন: :ভালুবাশি: :চিন্তায়আছি: :কলদে: :বুখেআয়বাবুল: :ভাঙামন: :ক্ষেপছি: :মাথাঠুকি: :হাহাপগে: :ফেরেশতা: :লইজ্জালাগে: :মুগ্ধৈছি: :তালিয়া: :কনফিউজড: :কানতেছি: :নৃত্য: :থাম্বসআপ: :bow: :খাইছে: :মাথানষ্ট: :পার্টি: :মনখারাপ: :ভাবতেছি: :অপেক্ষায়আছি: :কেউরেকইসনা: :হাসি: :জলদিকর: :খুশি: :দেখুমনা: :ঘুমপাইতেছে: :টাইমশ্যাষ: :শয়তান: :আমারকুনোদোষনাই: :ভালাপাইছি: :-B :ফুল: (……………………………………………. ইমোতেই ন্যস্ত হওয়া ছাড়া কি বলিব বুঝিতে পারিতেছি না………..)

  13. রুশো বলিয়া গিয়াছিলেন – আমি

    রুশো বলিয়া গিয়াছিলেন – আমি তোমার মতের সহিত একমত না হইতে পারি, কিন্তু তোমার মত প্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষা করিবার জন্য আমি জীবন দান করিতে প্রস্তুত আছি।

    :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

  14. ডাঃ আতিকের এই কথাটির সাথে
    ডাঃ আতিকের এই কথাটির সাথে একমত না হয়ে পারলাম না।

    যে বুঝে সে এক কথাতেই বুঝে। আর যে বুঝতে চাইবে না তাকে হাজার কথাতেও বুঝানো সম্ভব না।

    ধন্যবাদ ডাঃ আতিক। এটা আমিও বলতে চেয়েছিলাম।

  15. বাহ্ রে বাহ্!!!! মাস্টার
    বাহ্ রে বাহ্!!!! মাস্টার সাব!!!!

    কষ্টে আছে আইজদ্দিন এর

    আহা রে! আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা ক্যান দেবদুত হইয়া জন্মাইল না?

    পোস্টে আতিক ভাই ৩য় নম্বরে মন্তব্য
    করেছেন……

    মন্তব্য করেছেন : ডাঃ আতিক>> সময় বুধ, 19/03/2014 – 7:10অপরাহ্ন

    ভালো একটা টেকনিক। কেউ খারাপ কিছু করলেই- এ আওয়ামী লীগের কেউ না। ঠগ বাছতে গা উজাড় না হইলেই হয়।
    তারিক লিংকন ভাইয়ের কাছে জানতে চাই এই লেখাটা কি ব্যক্তি আক্রমণ কিনা?
    লেখার সম্বোধন থেকে শুরু করে ভাষা সবকিছু বিবেচনায় রেখে বইলেন। আমি কনফিউজড।

    তারিক লিংকন ভাইয়ের কাছে জানতে চাই এই লেখাটা কি ব্যক্তি আক্রমণ কিনা?

    কোন কথা নাই বার্তা নেই হঠাৎ করে তারিক লিংকন ভাই-এর কাছে কেন এর উত্তর জানতে চাওয়া হল???
    তবে কি কেউ একজন চাচ্ছিলেন যেন তারিক লিংকন ভাই কোন মন্তব্য করুক??? এবং এর পেক্ষিতে তারিক লিংকন ভাই এর বিরুদ্ধে মডারেশন প্যানেল ব্যবস্থা গ্রহণ করুক???

    ভাগ্য ক্রমে তারিক লিংকন ভাই ঐ পোস্টে কোন মন্তব্য না করাই ঐ যাত্রায় বেঁচে গিয়েছিলেন কিন্তু জয়ের এই পোস্টে তারিক লিংকন ভাই মন্তব্য করা মাত্রই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হল!!!!!

    তবে আমরা কি ধরে নিবো সবটাই একটা খেলার অংশ ছিল???!!!!

    মাস্টার সাহেব এই একটা প্রশ্ন আপনার কাছে রেখে গেলাম।আশা করি উত্তর দিবেন…..

    1. দুই লাইন বেশী বুঝে ফেলছেন।
      দুই লাইন বেশী বুঝে ফেলছেন। তার আগে কে এম মুত্তাকীর পোস্টে তারিক লিংকন যত্রতত্র ব্যক্তিয়াক্রমন খুঁজে পাচ্ছিলেন দেখেই উনাকে মেনশন করে বলা হয়েছে।

          1. একটু খেয়াল করে মন্তব্য করলে
            একটু খেয়াল করে মন্তব্য করলে ভালো হয়। কারণ বিষয়টা আমরাই জটিল করে তুলেছি। তারিক লিংকন ভাই কেন ব্যান হয়েছেন সেটা আশা করি ভালোভাবে লক্ষ্য করেছেন। ব্যক্তিআক্রমণের দায়ে কিন্তু নয়। একটু ঠাণ্ডা মাথায় চিন্তা করার অনুরোধ রইল, তারিক লিংকনকে সতর্ক করার পরও উনার এই ধরণের আচরণ করা উচিৎ ছিল কিনা। যাই হোক, আপনাদের যা ইচ্ছা মনে হয় মনে করতে থাকেন। আমার আর কিছু বলার নাই এখানে।

          2. জ্বী আতিকভাই আসলেই আমি খেল
            জ্বী আতিকভাই আসলেই আমি খেল করিনাই তাই ইস্টিশন বিধিটা বেশ কয়েকবার পড়লাম,সেখানে উস্কানি বলে কোন শব্দ পাইলামনা।
            :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট:

          3. ভাই ইচ্ছা করে কথা বাড়াইতে মন
            ভাই ইচ্ছা করে কথা বাড়াইতে মন চাইতেছে না। এখানে কেউই বাচ্চা না। আপনি উপরে ইস্টিশন মাস্টারের সতর্ক করে দেওয়া মন্তব্যখানা দেখেন। আমি সেইটার কথা বলছি। ভালো থাকবেন। এই পোস্টে আর কোন মন্তব্য করার অভিরুচি পাচ্ছিনা।

    2. উত্তর পাবেন না শুভ ভাই। বাদ
      উত্তর পাবেন না শুভ ভাই। বাদ দেন… সবাই জপেন, জয় নিরপেক্ষ বিচারের জয়… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :মুগ্ধৈছি: :মুগ্ধৈছি: :bow: :bow:

  16. আমি ইস্টিশন কে খুব ভালোবাসি
    আমি ইস্টিশন কে খুব ভালোবাসি আর আপনাদের কেও ! প্লিজ কেউ কারো সাথে ঝামেলা করবেন না । কষ্ট পাই ! জয় বাংলা! :মনখারাপ: :মনখারাপ: :মনখারাপ:

  17. “অঘূর্ণায়মান ইলেকট্রন”এর দুটো
    “অঘূর্ণায়মান ইলেকট্রন”এর দুটো কমেন্টের সাথেই সহমত পোষণ করলাম। এছাড়া আর কিছু বলার নাই। আমার যা বলার তা বিশ্লেষণ করে ইলেকট্রনই বলে দিয়েছে।


  18. ইস্টিশন’ বিধি সমূহঃ
    ১.

    ইস্টিশন’ বিধি সমূহঃ

    ১. ‘ইস্টিশন’ স্পষ্টভাবেই বাংলাদেশ রাষ্ট্র, বাঙালী জাতি, মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা, বাঙালী সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের মত স্পর্শকাতর বিষয়গুলোকে আক্রমণ করে পোস্ট, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও এবং পর্ণো প্রকাশ করার ক্ষেত্রে আপোষহীণ ভূমিকায় থাকবে। কোন সতর্কবাণী ছাড়াই সংশ্লিষ্ট পোস্ট ও ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে ‘ইস্টিশন’ কর্তৃপক্ষ।

    ২. ‘ইস্টিশন’কে কখনই ধর্ম প্রচারের ক্ষেত্র হিসাবে ব্যবহার করা যাবেনা। যে কোন ধরণের সাম্প্রদায়িকতা, বর্ণবাদ, লিঙ্গ বৈষম্য, ধর্মীয় গোড়ামী এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শত্রু ও গোষ্টি সম্পর্কে ‘ইস্টিশন’ জিরো টলারেন্স দেখাবে।

    ৩. পূর্বে অন্য কমিউনিটি ব্লগে প্রকাশিত লেখা ‘ইস্টিশন’-এ প্রকাশ করার ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ নিরুৎসাহিত করছে (ব্যক্তিগতব্লগ বা ফেসবুকের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়)। ‘ইস্টিশন’-এ প্রকাশিত নতুন লেখা ২৪ ঘন্টার মধ্যে অন্য কমিউনিটি ব্লগে প্রকাশ করা যাবেনা। অন্য কমিউনিটি ব্লগে পূর্বে বা একই সময়ে প্রকাশিত কোন লেখা ‘ইস্টিশন’-এ স্টিকির জন্য মনোনীত হবেনা এবং ইস্টিশনের কোনোরূপ প্রকাশনায় (ই-বুক কিম্বা সম্মিলিত বই) স্থান পাবে না বা কোন বিশেষ বিবেচনার ক্ষেত্রে মনোনয়ন পাবে না। কোন মুদ্রণ মাধ্যম এই নীতির আওতায় পড়বেনা।

    ৪. কপিরাইট লঙ্ঘন করে, এমন কোনো উপাদান ইস্টিশন-এ প্রকাশ করা যাবে না। পোস্ট বা মন্তব্যে অন্যত্র প্রকাশিত উপাদান ব্যবহার করলে তার সূত্র উল্লেখ করতে হবে।

    ৫. প্রথম পাতায় একজন যাত্রী’র দুই’য়ের অধিক পোস্ট এলে ফ্লাডিং বলে গণ্য করা হবে। কোন যাত্রী’র প্রথম পাতায় দুই’য়ের অধিক পোস্ট দেখা গেলে পুর্বের পোস্টের গুরুত্ব বিবেচনায় যে কোন দুইটি রেখে অন্য পোস্টগুলো প্রথম পাতা হতে সরিয়ে দেয়া হবে। যে কোনো ধরনের স্প্যামিং, কোডিং মুছে দেয়া হবে।

    ৬. ‘ইস্টিশন’-এ যাত্রী হিসাবে একে অপরের প্রতি দলবদ্ধ আক্রমণ, অশিষ্টাচার মন্তব্য, এজেন্ডাভিত্তিক ব্লগিং প্রভৃতি থেকে বিরত থাকতে হবে। কোন যাত্রী আক্রান্তবোধ করলে তাঁর করা অভিযোগের ভিত্তিতে ইস্টিশন মাষ্টার বা ইস্টিশন মাষ্টারের মনোনীত মডারেটর সেই আক্রমণাত্মক পোস্ট, মন্তব্য বা উপাদান সরিয়ে দিতে পারেন। উপরন্ত প্রথম সর্তক সংকেত হিসাবে সাতদিন, দ্বিতীয়বার একমাস তৃতীয়বার অনির্দ্দিষ্ট কালের জন্য সংশ্লিষ্ট যাত্রীর টিকেটটি মডারেশনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

    ৭. ইস্টিশন-এ প্রকাশিত সকল লেখা এবং মন্তব্যের দায় লেখক ও মন্তব্যকারীর। কোন পোস্ট এবং মন্তব্যের দায় কোন অবস্থায় ‘ইস্টিশন’ কর্তৃপক্ষ বহন করবে না। ইস্টিশন-এ প্রকাশিত লেখা লেখকের অনুমতি বা সুত্র উল্লেখ ব্যতিত অন্য কোন মাধ্যমে প্রকাশ করা যাবেনা।

    ৮. ইস্টিশন-এ টিকেট কেটে যাত্রী হতে হলে অবশ্যই বাংলায় নিকের জন্য আবেদন করতে হবে। ইংরেজী নিকে টিকেটের আবেদন গ্রহন করা হবেনা। বাংলা ব্যতিত অন্য কোন বর্ণমালায় ইস্টিশন-এ পোস্ট বা মন্তব্য গ্রহনযোগ্য নয়।

    ইশটিশন বিধির কোথায় তারিক লিঙ্কন লঙ্ঘন করলো! উনি উস্কান মূলক মন্তব্ব করেছেন বুঝলাম কিন্তু উস্কানিটা কি এতই ভয়াবহ ছিল যে ব্যান করতে হবে! যদিও ইস্টিশন মাস্টার বলেছেন প্যানেলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে পারবে না। এটাও কতটুকু মুক্তমনার পরিচয় বা নিরপেক্ষতার পরিচয় সেটা বুঝতে আমি অপারগ। এখন যদি আমি কোন কিছু বুঝার জন্য ইশটিশন মাস্টারকে কিছু জিজ্ঞেস করি তবে কি সেটা ব্যানের যোগ্য হয়ে যাবে????
    শুধু মাত্র মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে বা জামাত শিবিরের পক্ষে কেউ লিখলে তাকেই ব্যান করার পক্ষে। কিন্তু এখানে বা সমসাময়িক অন্য যে কোন পোস্টে এমন কোন অপরাধ মূলক কাজ হয় নাই যে কারণে তারিক লিঙ্কঙ্কে ব্যান করতে হবে।
    উনি একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্লগার এই ব্লগে। অনেক গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট দিয়েছেন অতীতে। সেগুলোর কোন গুরুত্ব বিবেচনা না করে উনার কিছু মন্তব্যের জন্য ব্যান করা সমর্থন করি না।
    মাস্টার মশাই আপনার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বলার যোগ্য মনে করেন না আমাদের। তারপরও যেহেতু বলেছেন এটা “মুক্ত” ব্লগ তাই নিজের অভিমত দিলাম।

    1. উনি উস্কান মূলক মন্তব্ব

      উনি উস্কান মূলক মন্তব্ব করেছেন। কিনত উস্কানিটা কি এতই ভয়াবহ ছিল যে ব্যান করতে হবে!

      — প্রশ্নটা আমারো । যদিও ইস্টিশন মাস্টার কারণ জানিয়েছেন । ইস্টিশন মাস্টারের সিন্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলছি এটাও সত্য উনি একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্লগার । অনেক অবদান আছে তার এই ব্লগে । এটাও মাথায় রাখতে হবে ।

      – আশা করি তারিক লিংকন ভাই আবার ফিরে আসবেন ইস্টিশন ব্লগে এবং মননশীল পোস্ট দিয়ে আমাদেরকে সমৃদ্ধ করবেন । আর এরকম ছেলেমানুষি উস্কানি দেবেন না ভবিষ্যতে । কারণ ওনাকে জুনিয়র ব্লগার’রা অনুসরণ করে, রোল মডেল ভাবেন । জুনিওর’রা চায় উনার মতো ব্লগার হতে । ওনার ফিরে আশার অপেক্ষায় নয় প্রতীক্ষায় থাকলাম ।

  19. ব্যান করা কোন সমাধান না…
    ব্যান করা কোন সমাধান না… কেউ হয়তো সাময়িক উত্তেজনায় অনেক কিছুই বলে বসে কিন্তু একটা জায়গা থেকে বিতাড়িত হওয়ার, নিজেকে ডিফেন্ড করতে না পারার ফিলিংসটা খুব বাজে…বিশেষ করে যে সবসময় এখানে পড়ে থাকে। এক ফেসবুক সেলিব্রিটি শুধুমাত্র মজা নেয়ার জন্য আমাকে ব্লক করে দিছিল, এবং ব্লক করার সময় কমেন্ট করলো “ব্লক করে দিলাম যাও পড়তে বস” যেনো সবাই হাসাহাসি করতে পারে, অথচ আমার অপরাধ ছিল আমি ভিন্ন প্রসঙ্গে একটা কমেন্ট করেছিলাম (আমার কাছে জরুরী মনে হয়েছিল), যাই হোক, সবাই ফিরে আসুক, সংযত হয়ে বস্তুনিষ্ঠ আলোচনা সমালোচনা করুক, এই প্রত্যাশা করছি

  20. অনেকেই আমাদের মত ইস্টিশন
    অনেকেই আমাদের মত ইস্টিশন বর্জন করেছেন । আমি কিছু বলি নি এই কয়েক দিন ডন ভাই এর পোস্টে তাই মনের অবস্থা ব্যক্ত করলাম।
    বিদায় সহ ব্লগার বৃন্দ https://istishon.blog/node/7378

  21. উইকিপিডিয়া থেকেঃ
    থেকেঃ

    উইকিপিডিয়া থেকেঃ

    থেকেঃ Karma (Sanskrit कर्म; [ˈkarmə]; Pali: kamma) means action, work or deed; it also refers to the principle of causality where intent and actions of an individual influence the future of that individual. Good intent and good deed contribute to good karma and future happiness, while bad intent and bad deed contribute to bad karma and future suffering

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

8 + 1 =