মন্দিরটা ভাঙতে হলে আমাদের লাশের উপর দিয়ে যাবি

“তিন দিন পর পর হরতাল । চলে আসছি বাড়িতে । বাঁশ আর লোহার রড নিয়ে বসে আছি পুকুর ঘাটে । সাথে আছে আরো অনেকে । ভাই চাচারা মিলে ৫০-৬০ জন হব । সবার হাতে লাঠি । পালা করে পাহারা দিচ্ছি । মন্দির টা ভাঙতে হলে আমাদের লাশের উপর দিয়ে যাবি”

এক মিনিট শুনুন ।

ভাই ! সংখ্যালঘুরা কি মানুষ না? ওদের পাশে দাঁড়ান । আপনি আমি মুসলমান । ভাই। আসলেই কি আমরা মুসলমান???

একজন মুসলমানের দায়িত্ব অন্য ধর্মের মানুষদের রক্ষা করা । আমরা আজ কি করতেছি?? । আল্লাহ’র কসম । আমার বাড়ির আশে পাশের এলাকার একটা হিন্দুর শরীরে একটা টোকা ও পড়তে দিব না । আমার শরীরে মুসলমানের রক্ত । আমার শরীরে বাঙালীর রক্ত ।
আল্লাহ’র কসম । আমরা ৫০-৬০ জনের শরীরে জান থাকতে মন্দির টা ভাঙতে দিব না ।

মরলে মরব । আমার বাপ দাদারা যেমন ‘৬৪ , ‘৭১ এ পাশে ছিল তাদের । আজ আমরা আছি ।

সবাইকে বলছি । ‘৬৪ সালে যখন দাঙ্গা লাগছিল , অনেক মুসলমান সংখ্যালঘুদের বাঁচাতে নিজেরা প্রাণ পর্যন্ত দিছিলো । আজ প্রাণ দিতে হবে না ভাই । শুধু একটু এক হয়ে তাদের পাশে দাঁড়ান । ওরা মনে একটু জোর পাবে ।

ভাই আমরা বাঙালী । আজ তারা আমাদের পতাকা ছিড়ে । শহীদ মিনার ভাঙে । মসজিদে আগুন লাগায় । মন্দির ভাঙে । আর এখন তো তারা ৭১স্টাইলে লুটপাট শুরু করছে ।

এসব তো কোন বাঙালীর কাজ না । যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে । আপনি ঠিক করেন । আপনি কোন দিকে থাকবেন । শুধু অনুরোধ করব । নিজ নিজ অবস্থান হতে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন । সংখ্যালঘুদের পাশে দাঁড়ান । ওরাও তো মানুষ ।

জয় বাংলা ।।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১২ thoughts on “মন্দিরটা ভাঙতে হলে আমাদের লাশের উপর দিয়ে যাবি

  1. আমার দেখা মতো সবচেয়ে সুন্দর
    আমার দেখা মতো সবচেয়ে সুন্দর একটা সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতী স্ট্যাটাস রেহান নামে একজনের –

    “নামজটা পড়ে আসি , তারপর মন্দির পাহারা দিবো । দেখি কোন রাজাকার আসে “‘

    1. আপনি ঠিক বলেছেন, এই সহজ
      আপনি ঠিক বলেছেন, এই সহজ স্ট্যাটাসটা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনেক বড় বার্তা বহন করে।

  2. আপনাদের স্যালুট। সব এলাকায়
    আপনাদের স্যালুট। সব এলাকায় সবাই এভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুললে জামাত-শিবির পালানোর পথ পাবেনা।

  3. হুম । স্যালুট আমার বন্ধুদের ।
    হুম । স্যালুট আমার বন্ধুদের । ওরা জানিয়েছিল ব্যপার টা । আমি শুধু তাদের কথা গুলো লিখলাম । আর , তারা শুরু করেছিল , পরে আমরা সহ গিয়েছি ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

80 + = 85