Posted in আন্তর্জাতিক রাজনীতি সমসাময়িক

হেফাজত- সরকারের প্রতিবন্ধকতা নাকি হাতিয়ার?

অর্ধমাস ফেসবুক জগতের বাইরে ছিলাম, ফিরে দেখি রাজনৈতিক ঘোরপ্যাঁচের একটা ঘোরতর জটলাক্রান্ত দেশ। দেশব্যাপী হরতাল, অবরোধ, বিক্ষোভ, ক্ষেত্রবিশেষে দাবী দাওয়া নিয়ে পক্ষবিপক্ষ সংঘর্ষ মাঝখানে দর্শক হিসেবে অনেকে। এর মধ্যে আমার কাছে একটা বিষয় প্রহসনের মতোন ঠেকছে- স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে দেশে এলো একজন, যাকে নিয়ে এতো বাকবিতন্ডা, ঘাত-প্রতিঘাত- সংঘাতের অলাতচক্র, তাকে একরকম…

বিস্তারিত পড়ুন... হেফাজত- সরকারের প্রতিবন্ধকতা নাকি হাতিয়ার?
Posted in রাজনীতি

ভাস্কর্য ইস্যু ও সরকারের সুবিধাবাদী অবস্থান

সরকার সমীপে প্রশ্ন- লালন সাঁই ও সাথে পাঁচ বাউলের ভাস্কর্য যেগুলো ২০০৮ সালে ধর্মনেতাদের দাবী মেনে অপসারণ করা হয়েছিলো তার সাথে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বৈশিষ্ট্যগত পার্থক্য কি? যদি ভাস্কর্যবিদ্যার নিরিখে পার্থক্য দাখিল করতে না পারেন তাহলে – সরকারকে স্বীকার করতে হবে, ক্ষমতায় পোক্ত থাকার জন্য ২০০৮ সালে আপনারা আপোষ করে বাউলদের…

বিস্তারিত পড়ুন... ভাস্কর্য ইস্যু ও সরকারের সুবিধাবাদী অবস্থান
Posted in গল্প দুর্নীতি স্যাটায়ার

একটি কুকুর উপজীব্য

১ যেসব শীতের কুয়াশায় প্রিন্ট করা ভোরবেলা হুইসেল কানে এলেও বিরক্তির উদ্রেক হয়, এমন একান্ত ঘুমোপযোগী ভোরবেলা উৎপাতকারী টেলিফোনে তাগাদা পেয়ে জিপ নিয়ে মেয়রের শালার বাড়িতে ছুটছেন ওসি শহীদুল সাহেব। তড়িঘড়ি ইন ভুল করা প্যান্টের ওয়েস্ট লুপ থেকে স্যান্ডোগেঞ্জির কানা বের হয়ে আছে- খাপের পিস্টল বিরক্তি নিয়ে ঘুমিয়ে আছে, বহুদিন…

বিস্তারিত পড়ুন... একটি কুকুর উপজীব্য
Posted in গল্প রাজনীতি সাহিত্য

রিসকা

১. “নাহ! কচি বউডারে আর মারুম না” -ভাবে বাদশা। “বাদশা নামটা কেডা রাখছিলো, দাদা সন্দ করি- বাপের বাপ, দুইন্না বড়োই আজব- নাম আর বাস্তব ম্যালা ফারাক নাজিল হইয়া আছে।” কিছুদিন আগে মাত্র, বউটারে বেদম পিডাইয়া বাপের বাড়ি পাঠাইছে, ট্যাকার লাইগা। যে ক’ডা ট্যাকা বিয়ার সময় দিলো- কাঁচামালের ব্যবসায় খোয়া গ্যাছে…

বিস্তারিত পড়ুন... রিসকা
Posted in কবিতা দুর্নীতি সাহিত্য

হিংস্র যখন বারুদ আমার

মর্সিয়া ওঠে বারুদ আমার, গর্জিয়া ওঠে ঝঞ্ঝা, খুনের-পিয়াসী পিঞ্জর মোর, রক্তে রাঙিছে পাঞ্জা। ইন্টোরোগেসন রুম, তখন উলঙ্গ বালবের নিচে থেঁতো হয়ে যেতো বামেদের হৃদযন্ত্র, তেঁতেঁ উঠতো স্নায়ু। ইদানীং ওসব শুনলেও মুর্ছা যায় পুলিশ, মুচকি হেসে মুচলেকা দ্যাখে জারজ। -এনকাউন্টার, ঠায়! ঠায়! বিকৃত ঢঙে চেঁচায় রাইফেল, এখানে পড়ে যাওয়াই শিল্পসম্মত। যখন…

বিস্তারিত পড়ুন... হিংস্র যখন বারুদ আমার
Posted in অধিকার কবিতা সমসাময়িক

তৃতীয় আঙুলে সিগারেট

যখন রাস্তায় দেখি আমার ভাইয়ের প্রিয় লাশ- ভাবি, বর্তুল পৃথিবীর ব্যাসার্ধ কতো বাড়লে সব লাশ পুড়ে ফেলা যাবে- পৃথিবীর গমগমে অস্থির পেটের ভেতর। আমি ভাবি, কেউ হরবার হড়কায়। -জিহ্বা বন্ধ কর, মাগী! কেউ চিৎকার করে -তবু বাক্সখানি ভরা আছে সাক্সোফোনে- তারা বেচারা নিরব- প্যাঁ পুঁ শব্দ করে না। তবু হরতাল…

বিস্তারিত পড়ুন... তৃতীয় আঙুলে সিগারেট
Posted in দুর্নীতি

বিদ্যালয় অথবা ব্যবসালয় বা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়!

প্রসঙ্গত আহমদ ছফার কিছু লাইন প্রথমেই মনে পড়ে-“যে দেশে প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষকেরা একবেলা খেতে পান না, বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকরা বেতন পান না, সে দেশে এক শ্রেণীর কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক কিভাবে বাড়ি-গাড়ির মালিক হতে পারেন? বাড়ি থাকাটা খারাপ নয়, কিন্তু যে টাকা দিয়ে ওসব করা হয়েছে, সে টাকা অর্জনের পদ্ধতিটাই সামগ্রিকভাবে…

বিস্তারিত পড়ুন... বিদ্যালয় অথবা ব্যবসালয় বা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়!
Posted in ব্যক্তিগত কথাকাব্য

পুলিশ

কলেজ গেটে দাঁড়িয়ে আছি, সামনের পুলিশ ভ্যান থেকে এক মহিলা কনস্টেবল নেমে রিকশাওয়ালাকে বলল জোড়াগেট যাবে। রিকশাওয়ালা ২০ টাকা চাচ্ছে, পুলিশ পনের টাকায় যেতে চায়। ভ্যানের ভেতর থেকে আরেক কন্সটেবল চেঁচায়- দশ টাকা ভাড়া, তুই দশ টাকায়ই যাবি। রিকশাওয়ালা গা করে না হয়তো, বলে আপনি অন্য রিকশায় যান। এদিকে পুলিশ…

বিস্তারিত পড়ুন... পুলিশ
Posted in সমসাময়িক

হায়রে! বাঙালির মোবাইল ফোন

আমারে মাইরেন না ও ভাই, আমি ছেলেধরা না,আমার দুইডা বাচ্চা আছে। কিন্তু মুহুর্মুহু রব উঠছিলো,”মার, মাইরা হালা” কয়েকটা নামও শোনা যায়,” জয়েন/জন মার।”(সম্পূর্ণ ভিডিওটিতে শোনা যায়) প্রকৃতপক্ষে, এই মহিলাই ৪ বছরের এক শিশুর মা, যাকে ভর্তি করাতেই স্কুলে খোঁজ নিতে এসেছিলেন । যখন মহিলাকে হেডমিস্ট্রিজের ঘর থেকে টেনে হিঁচড়ে বাইরে…

বিস্তারিত পড়ুন... হায়রে! বাঙালির মোবাইল ফোন
Posted in ব্লগ সমসাময়িক

রোহিঙা, অথবা অপমানুষ

মানুষই হয়ত একমাত্র যে বিনাকারনে স্বজাতিকে মেরে অমানুষিক আনন্দ পায়। অন্য ইতরবিশেষ অনেক প্রাণিই হয়ত আছে ও থাকবে যারা নিজ প্রজাতির সদস্যদের মারে, খাদ্যের জন্যে প্রতিদ্বন্দী কমাতে অথবা নিজ গোত্রে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে। কিন্তু অকারণে একমাত্র মানুষই হয়ত মানুষকে মারে, কেউ মেরে আত্মতৃপ্তি পায় আবার তা দেখতে জমায়েত হয় আরো…

বিস্তারিত পড়ুন... রোহিঙা, অথবা অপমানুষ