Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-চৌদ্দ)

দশ জামালপুর শ্মশানের বয়স কত, কে বা কারা কবে প্রতিষ্ঠা করেছিল, সেই ইতিহাস আজ আর এই অঞ্চলের কেউই যথাযথভাবে বলতে পারবে না; বহুকাল আগে থেকেই এই অঞ্চলের অর্থাৎ আশপাশের অনেকগুলো গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ এখানে মৃতদেহ সৎকার করে আসছে। তবে এটুকু অনুমান করা যায় যে শ্মশানটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল চন্দনা…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-চৌদ্দ)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-তেরো)

নয় মেহগনি বাগান থেকে বেরিয়ে রুক্ষ মাটির ডেলার জমিটুকু পেরিয়ে নিচু ভূমির ধানক্ষেতের ভেতরের আলপথ ধরে ওরা তিনজন যখন শ্মশানের সীমানায় পা রাখে তখন চন্দনা নদীর ওপারের গাছপালার মাথার দিকে ঝুঁকে পড়েছে চাঁদ, শ্মশানযাত্রীরা জল ঢেলে চিতা নিভিয়ে চলে যাবার পরও কাঠ পোড়া ছাইয়ের গাদার ভেতর থেকে মৃদু ধোঁয়া উঠছে,…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-তেরো)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-বারো)

অমল শ্মশানের দিকে তাকায়, শ্মশানের উত্তর-পশ্চিমদিকে দাউ দাউ করে জ্বলছে চিতার আগুন, বাঁশ দিয়ে মাঝে মাঝে চিতার কাঠ খুঁচিয়ে দেওয়ায় ফুলকি উঠছে ঊর্ধ্বমুখে। শ্মশানের মাঝখানে শ্মশানযাত্রীদের জন্য বানানো পাকা করা ছাউনির নিচে যেখানে বসে গান গাইছে শ্মশানযাত্রীরা, সেখানে জ্বলছে বৈদ্যুতিক চার্জার লাইটের সাদা আলো, হয়ত একাধিক তাই আলোর ঔজ্বল্য অনেক…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-বারো)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-এগারো)

সাত রাস্তার ধারে মাত্র কয়েকটা বাড়ি, বাড়িগুলো পিছনে ফেলে রাস্তা থেকে নেমে ওরা মাঠের ভেতর দিয়ে হেঁটে শ্মশানের দিকে এগোতে থাকে, এখান থেকে ওরা জ্বলন্ত চিতা স্পষ্ট দেখতে পায়, দাউ দাউ করে জ্বলছে চিতা। চিতার আগুনের লাল আভা ছড়িয়ে পড়েছে চারিদিকে, শ্মশানের পাশের সুবজ ধানক্ষেতে নাচচে আগুলের লাল আভা। ওরা…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-এগারো)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-দশ)

ছয় বেশ কিছুক্ষণ দৌড়নোর পর পাকা রাস্তার কাছাকাছি এসে আবার হাঁটতে থাকে ওরা তিনজন, ওদের ডানদিকে গাছপালা-ঝোপঝাড়ের পরেই চন্দনা নদী, বামদিকে রাস্তার পাশে যাদবপুর কালী মন্দির, মন্দির চত্ত্বরে বিশাল অশ্বত্থগাছ। পাকা রাস্তাটি চন্দনা নদীর ওপরের ব্রিজ থেকে শুরু হয়ে ঈষৎ দক্ষিণে বেঁকে মন্দিরের পিছন দিয়ে চলে গেছে পশ্চিমদিকে গ্রামের ভেতর…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-দশ)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-নয়)

বন্ধুর মুখে সব শুনে ব্যথিত হন তেজরাজ, কিন্তু এত সহজে দমে যাবার পাত্র তিনি নন, আখড়ায় আসা তিনি বন্ধ করেন না, বরং একদিন সাহস করে সরাসরি কথা বলেন দেবী বৈষ্ণবীর সঙ্গে, তাতেও দেবী বৈষ্ণবীর মন গলে না। শেষে তেজরাজ একদিন দুপুরবেলা আখড়ার প্রধান দীনবন্ধু গোঁসাইকে ধরেন, ‘আমি আপনার কাছে দেবীকে…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-নয়)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-আট)

পাঁচ রাস্তার দু-পাশে বড় বড় গাছ আর কিছু দূর পর পর গৃহস্থবাড়ি, অন্ধকারে ওরা তিনজন দ্রুত পা চালায়। স’মিলের শ্রমিক সাধনের বাড়ির পিছন দিয়ে যাবার সময় ওদের কানে ভেসে আসে নারী কণ্ঠের শীৎকার- ‘আহ…, উহ…, ইস…!’ ওরা বুঝতে পারে যে সাধন আর সাধনের স্ত্রী এখন সঙ্গমে রত। ওদের পায়ের গতি…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-আট)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-সাত)

সোনার বালাজোড়া খুঁজে না পেয়ে একসময় রণে ভঙ্গ দেন যতীন ডুবুরি, আর তার অভিজ্ঞতা থেকে এই সিদ্ধান্ত দেন যে বালাজোড়া নদীতে পড়েনি, নদীতে পড়লে তিনি পেতেনই। অভিজ্ঞ যতীন ডুবুরির এই সিদ্ধান্তের পর পার্বতীর আগে কে কে এই ঘাটে স্নান করে গেছে চলে সেই খোঁজ, একজন জানায় যে সে পাড়ার অকাল…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-সাত)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-ছয়)

চার অতুলদের বাড়ি অতিক্রম করে কিছুদূর এগিয়ে ওরা তিনজন ডানদিকের একটা সরু পথ ধরে, পথের ডান দিকে একটা পুরোনো পোড়ো বাড়ি, লোকে বলে জজবাড়ি, বাড়িটার দেয়ালের নানা জায়গা থেকে ইট খসে পড়েছে, দেয়াল ফুঁড়ে বট-অশ্বত্থ গাছ বেড়িয়েছে আর বেয়ে উঠেছে লতা-পাতা, কক্ষগুলোর ভেতরে ময়লা-আবর্জনা। জজ পরিবার তাদের এই বাড়ি এবং…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-ছয়)
Posted in উপন্যাস

লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-পাঁচ)

ওরা তিনজন যখন রাস্তার পাশের পুরোনো দিনের ওয়াল করা ঘরটার খুব কাছে এসে পড়ে তখন অতুলের একদা চর্চিত সুরেলা গলার গান থেমে যায়, আর যাত্রার সংলাপ বলার ঢঙে আবেগঘন কণ্ঠে বলতে থাকে, ‘রাধা, রাধা, রাধা; দুঃখিনী রাধা, অভাগিনী রাধা, বিরহিণী রাধা…!’ অতুলের ঘরের রাস্তার দিকের জানালাটা খোলা, জানালা বরাবর এসে…

বিস্তারিত পড়ুন... লৌকিক লোকলীলা (উপন্যাস: পর্ব-পাঁচ)