রাগান্বিত হওয়া বা যথেষ্ট হতাশ হবার শক্তিটুকু হারিয়ে ফেলেছি।

Posted in ধর্ম-অধর্ম

উনবিংশ শতাব্দীর শুরুতেই সমগ্র পৃথিবীতে বিশ্বের সেরা শিক্ষাব্যবস্থা প্রসার লাভ করে বা বিবেচিত হয়েছিল। যে কোনও শিক্ষা ব্যবস্থা যদি মানুষকে বর্বরতা থেকে জীবাণুমুক্ত করতে পারতো তবে জার্মানি সেই পথেই এগিয়ে যাবার কথা ছিল, জার্মানিতে তো কোন স্বৈরশাসক জন্ম নেবার কথা ছিলনা। জার্মানরা সে সময় থেকেই আধুনিক গবেষণামূলক বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তুলেছিল,…

বিস্তারিত পড়ুন...

১৯৫: মক্কা বিজয়-৯: নবীর ভাষণ ও দলে দলে ইসলাম গ্রহণ!

Posted in দর্শন ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা

“যে মুহাম্মদ (সাঃ) কে জানে সে ইসলাম জানে, যে তাঁকে জানে না সে ইসলাম জানে না।” আদি উৎসের বিশিষ্ট মুসলিম ঐতিহাসিকদের বর্ণনায় আমরা জানতে পারি, স্বঘোষিত আখারি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তাঁর মক্কা বিজয় সম্পন্ন করার পর, কাবার চারিপাশে উপস্থিত ভীত-সন্ত্রস্ত কুরাইশদের সম্মুখে ভাষণ দিয়েছিলেন। এই ভাষণ-টি তিনি প্রদান করেছিলেন…

বিস্তারিত পড়ুন...

স্ববিরোধী বিবেকানন্দ | অভিজিৎ রায়

Posted in ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা সমালোচনা

আমাদের মুক্তচিন্তার আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃত অভিজিৎ রায়। তিনি তাঁর অসামান্য লেখনির মাধ্যমে বিবেকানন্দকে নিরপেক্ষ দৃষ্টিকোণ থেকে তুলে ধরেছেন। আজ যখন চারিদিকে ভক্তদের জোয়ার তখন এই লেখাটি ভক্তি দূরে সরিয়ে মানুষ বিবেকানন্দকে বুঝতে সাহায্য করবে। তাই অভিজিৎ রায়ের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করে আর এই অসামান্য লেখাটি প্রকাশ করা হল। আশাবাদী এতে…

বিস্তারিত পড়ুন...

১৯৪: মক্কা বিজয়-৮: ‘প্রতিমা ধ্বংস’- মক্কার ঘরে ঘরে!

Posted in দর্শন ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা

“যে মুহাম্মদ (সাঃ) কে জানে সে ইসলাম জানে, যে তাঁকে জানে না সে ইসলাম জানে না।” স্ব-ঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর “মক্কা আক্রমণ ও বিজয়” ইসলাম বিশ্বাসী মুমিন মুসলমান ও অবিশ্বাসী কাফেরদের অন্তরে সম্পূর্ণ বিপরীত ধর্মী গুরুত্ব ও তাৎপর্য বহন করে। ইসলাম বিশ্বাসী মুমিন মুসলমানরা যা মনে প্রানে…

বিস্তারিত পড়ুন...

ধর্ম নিরপেক্ষতা ৭৫ পর থেকেই প্রশ্নের মুখে !

Posted in ধর্ম-অধর্ম

ধর্ম নিরপেক্ষ বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অবদান সব চাইতে বেশী হলেও সংবিধানে রাষ্ট্র ধর্ম ও ধর্মের বাণী ঢুকিয়ে দিয়ে স্বৈরচার এরশাদ সরকার ও সামরিক শাসক থেকে রাজনীতিবিদ জিয়াউর রহমানের শাসন আমল থেকেই বাংলাদেশের ধর্ম নিরপেক্ষ অবস্থানকে আজ প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছে ৷ ধর্ম গুরুরা আজ আওয়ামীলীগ সরকারের নাকের ডগায়…

বিস্তারিত পড়ুন...

কাবা বিষয়ক একটা জটিল প্রশ্ন

Posted in ধর্ম-অধর্ম ব্যক্তিগত কথাকাব্য মুক্তচিন্তা

খৃস্টান আবরাহা বাদশা যখন ৫৭০ খৃস্টাব্দে কাবাঘরে ৩৬০-টি মূর্তিপুজার বদলে একেশ্বরবাদী খৃস্টান ধর্মের পক্ষে কাবাঘর ভাঙতে এলো, যখন আবাবিল পাখি দিয়ে আল্লাহ একেশ্বরবাদী আবরাহাকে ধ্বংস করে দিলেন, ৩৬০-টি মূর্তিসহ কাবাঘরকে রক্ষা করলেন। মূর্তিগুলো কিন্তু ধ্বংস করলেন না!   অপর দিকে ১৯৭৯ সনে সৌদি জোহাইমান আল ওতাইবি, আল-কাহাতানি ও তার লোকজন…

বিস্তারিত পড়ুন...

উগ্র হিন্দুত্ববাদ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র কি মাথা ঘামাবে?

Posted in ধর্ম-অধর্ম

ভারতীয় সংসদের উভয় কক্ষে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাস হলে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অন্যান্য শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা চাইতে পারে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক ফেডারেল কমিশন। ইউএস কমিশন ফর ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডমের (ইউসিআইআরএফ) এমন হুমকির মুখে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার পিছিয়ে যাবে, এমনটা কেউ…

বিস্তারিত পড়ুন...

মানুষের জন্ম বা মৃত্যুর সাথে আল্লাহর কোন হাত নেই।

Posted in ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা

প্রায়শই আমরা মুমিন ভায়েদের বলতে শুনি মৃত্যুর পরে বুঝবেন বা আল্লাহকে যদি বিশ্বাসই না করবেন তাহলে অনন্তকাল জীবিত থেকে দেখাতে পারেন না কেনো? অথবা দেখা যায় কোন বিজ্ঞানের উদাহরন দিয়ে যদি মুমিন ভায়েদের সাথে কথা বলতে যায় তাহলে তারা আরেকটি প্রশ্ন করে বসে যে, বিজ্ঞানের উপরে যদি এতই আস্থা থাকবে…

বিস্তারিত পড়ুন...

হিন্দু ধর্ম এবং টেস্টটিউব বেবী

Posted in অনুবাদ ধর্ম-অধর্ম সমাজ ও সভ্যতা সমালোচনা

লেখকঃ ড. সুরেন্দ্র কুমার শর্মা অজ্ঞাত অনুবাদকঃ  অজিত কেশকম্বলী II   ভারতে এমন অনেক লোক আছেন, আধুনিক বিজ্ঞান কিছু আবিষ্কার করার পর তারা দাবী করতে থাকেন যে, “ আমাদের পূর্বপুরুষেরা তো আগেই এসব আবিষ্কার করে ফেলেছিলেন।“ এর সমর্থনে তারা বেদ পুরাণের নানা উদাহরণ দিয়ে থাকেন।   যখন থেকে আধুনিক বৈজ্ঞানিকেরা…

বিস্তারিত পড়ুন...

১৯৩: মক্কা বিজয়-৭: ‘প্রতিমা’ ধ্বংসের সূচনা – কাবায় প্রথম!

Posted in দর্শন ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা

“যে মুহাম্মদ (সাঃ) কে জানে সে ইসলাম জানে, যে তাঁকে জানে না সে ইসলাম জানে না।” যদি প্রশ্ন করা হয়, “আজকের পৃথিবীতে ‘ধর্মানুভূতিতে আঘাত’ করার অজুহাতে কোন্ ধর্মে বিশ্বাসী লোকেরা তাঁদের ধর্মের সমালোচনা-কারী ও কটাক্ষ-কারীদের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশী মারমুখী প্রতিবাদ, সহিংসতা ও অরাজকতার আশ্রয় নেয়?” এই প্রশ্নের নিঃসন্দেহ জবাব হবে,…

বিস্তারিত পড়ুন...