হায় রে ধর্মানুভূতি, হায় ধর্মান্ধতা।

Posted in ধর্ম-অধর্ম মানবতাবাদ সমসাময়িক সমাজ ও সভ্যতা

আবারও কথিত ‘ধর্মানুভুতিতে’ আঘাতের কারনে অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি হলো বাংলাদেশের দক্ষিণের দ্বীপ জেলা ভোলায়। শুরুতে ধর্মানুভূতি নিয়ে লেখা শ্রদ্ধেয় অধ্যাপক হুমায়ুন আজাদ স্যারের ‘ধর্মানুভূতির উপকথা’ নামক প্রবন্ধ হতে কয়েক লাইন উদ্ধৃতি দিয়ে শুরু করি- “একটি কথা প্রায়ই শোনা যায় আজকাল, কথাটি হচ্ছে ‘ধর্মানুভূতি’। কথাটি সাধারণত একলা উচ্চারিত হয় না, সাথে…

বিস্তারিত পড়ুন...

অশ্বমেধ যজ্ঞঃ  হিংসা আর অশ্লীলতার তাণ্ডব নৃত্য

Posted in ইতিহাস ধর্ম-অধর্ম সমাজ ও সভ্যতা সমালোচনা

লেখকঃ ড. সুরেন্দ্র কুমার শর্মা ‘অজ্ঞাত’ অনুবাদক- অজিত কেশকম্বলী II [ লেখাটি ১৮+। কমবয়সীরা এটা পড়বেন না। এখানে এমন অনেক তথ্য পাওয়া যাবে যা বর্তমান সময়ের মানুষদের কাছে অশ্লীল এবং নিন্দনীয় বলে মনে হতে পারে। অনেকে একে চটিসাহিত্যের সাথেও তুলনা করতে পারেন। কিন্তু হিন্দু ধর্মের ইতিহাসের সাথে এ বিষয় সম্পৃক্ত…

বিস্তারিত পড়ুন...

ধান ও রূপসী কাব্য (শেষ পর্ব)

Posted in গল্প ব্যক্তিগত কথাকাব্য শোকগাঁথা

প্রায় একমাসে বাড়ির সবার সাথে পরিচয়ঘটে আমার। আমিনদ্দির ৪ বিবির সবাইকে এখন চিনি আমি। তাদেরকে খালাম্মা বলে ডাকি। এ বাড়ির মহিলারা তেমন পর্দা করেনা। ভিনপুরুষ কৃষাণ শ্রমিকদের সামনে আসতে সঙ্কোচ করেনা তারা। মহিলারাও কাজ করে পুরুষদের মতই। ভেতরে রান্না ছাড়াও তারা বাইরে করে ধানের কাজ, গরুকে ফ্যান পানি দেয়া, হাঁসমুরগির…

বিস্তারিত পড়ুন...

মুসলিম ভ্রাতৃত্ব ও ভণ্ডামি ।

Posted in আন্তর্জাতিক ধর্ম-অধর্ম ব্লগ সমসাময়িক

সামসময়িক সময়ের মুসলিম বিশ্বের আন্তর্জাতিক বিষয় নিয়ে পর্যালোচনা করলে বিষয়টি দিনের মতো পরিষ্কার । মুসলিমরা পৃথিবীতে এখন অধিকাংশ অরাজকতার মধ্যে সম্পৃক্ত। আর এই অরাজকতা খুঁজতে গিয়ে আমি খুঁজে পেলাম নতুন বিষয় যে, মুসলিমরা যে অরাজকতা করছে তা আল্লাহর নির্দেশের বিরুদ্ধে । কোরান হাদিস তোয়াক্কা না করে তারা এসব করছে ।…

বিস্তারিত পড়ুন...

বাঙালি হিন্দু ও মুসলিমদের ধর্মীয় হিংসায় মিল আছে ।

Posted in ধর্ম-অধর্ম মুক্তচিন্তা সমালোচনা

বাঙালি হিন্দু ও মুসলিম উভয় ধর্মীয় হিংসাকে ভালোবাসে। মুখে সম্প্রীতির কথা বল্লেও অন্তরে সাম্প্রদায়িকতা লালন-পালন করে। বাঙালি হিন্দুরা ঈশরচন্দ্র বিদ্যাসাগরকে নাস্তিক আখ্যা দিয়েছিলেন। জীবদ্দশায় মহান বিদ্যাসাগর বাঙালি হিন্দুদের দেওয়া অনেক অপমান, লাঞ্ছনা , বঞ্চনা হাসি মুখে করেছিলেন বরণ। এই মানুষটি মানবতার ধর্মে বিশ্বাস করতেন। শিক্ষা, সংস্কৃতি উন্নয়ন এবং সামাজিক ও…

বিস্তারিত পড়ুন...

ধান ও রূপসী কাব্য (১ম পর্ব)

Posted in গল্প ব্যক্তিগত কথাকাব্য শোকগাঁথা

ভূমিহীন দরিদ্র কিষাণ আমি। অন্যের জমির ধান কেটে জীবন নির্বাহ করলেও সে বছর এলাকার জমি প্রায় বিরাণ রয়ে গেল। তাই ভুখা আরো প্রকট আকার ধারণ করলো আমাদের চরের দরিদ্র এলাকায়। দারিদ্র্যতার চাপ সহ্য করতে না পেরে কুড়ি বছর বয়সেই ঘরের বাইরে বের হলাম আমি। ঘরে মা বাবা ভাই বোন সবার…

বিস্তারিত পড়ুন...

আমরা কেন আবদুস সালামের পদার্থবিদ্যায় নোবেল জয়ের খবর জানি না ?

Posted in ব্লগ সমসাময়িক সমালোচনা

আবদুস সালাম পাকিস্তানী নাগরিক, পদার্থবিদ্যায় নোবেল জিতেছিলেন ১৯৭৯ সালে। আমরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ডঃ ইউনুস, অমর্ত্য সেন,অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সহ আশেপাশের অনেকের নোবেল জয়ে আনন্দিত হই। এ আনন্দ আমাদের ভালো কিছু করার স্বপ্ন দেখায়। আমরা মালালা ইউসুফজাই এর নোবেল জয়ের খবর জানি কিন্তু কেন আবদুস সালামের পদার্থবিদ্যায় নোবেল জয়ের খবর জানি না…

বিস্তারিত পড়ুন...

বাঁশের কেল্লা : তিতুমীর ২ (বাংলায় ইসলামের বিস্তার)

Posted in ইতিহাস দর্শন ধর্ম-অধর্ম ব্লগ মুক্তচিন্তা রাজনীতি সমসাময়িক

প্রকৃত তিতুমীরকে আবিষ্কার করতে গেলে, তিতুমীরের উদ্ভাসের পটভূমিকা এবং অবিভক্ত বাংলায় ইসলাম ও তার প্রসার সম্মন্ধে জানতে হবে। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করবো এর স্বরূপ তুলে ধরার। আগের পর্বেই লিখেছি যে, তিতুমীরই শরিয়তী বিচ্ছিন্নতাবাদী ইসলামের প্রবেশ ঘটান বঙ্গদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিময় সমাজজীবনে। বাংলায় ইসলামের আবির্ভাব ঘটে এমনই এক সময়ে যখন বিকৃত কিন্তু…

বিস্তারিত পড়ুন...

বিভ্রান্তি – কোরআন নবী, না আল্লাহর বাণী, নাকি অন্য কারোর ?

Posted in অন্যান্য ধর্ম-অধর্ম ব্লগ

বিভ্রান্তি – কোরআন নবী,না আল্লাহর বাণী,নাকি অন্য কারোর ?     কোরআন হল মুসলমানদের জন্য সর্বকালের জন্য জীবন পরিচালনার জন্য একটি আদর্শ কিতাব । এই কিতাবের অর্থ বুঝতে হলে তাফসীর পড়তে হয় । কিন্তু আল্লাহ এমনটা কোথাও কোরআনে বলে নাই যে তাফসীর অনুসারে কোরান বুঝতে হবে । আর হাদিস সমূহ মুসলমানদের…

বিস্তারিত পড়ুন...

জলজ্যোৎস্নার স্বয়ম্বরা (৪র্থ তথা শেষ পর্ব)

Posted in গল্প ব্যক্তিগত কথাকাব্য শোকগাঁথা

হাসপাতালে মাসখানেকের চিকিৎসায় অনেকটা সেড়ে উঠি আমরা ৩-জনেই। আসলে জলজ্যোৎস্নার চেয়ে আমরা পুড়েছিলাম বেশি। ছুঁড়ে মারা পেট্রোল যতটা না জলজ্যোৎস্নার শরীরে পড়েছিল, তারচেয়ে বেশি পড়েছিল যারা তার আশেপাশে ছিল তাদের শরীরে। তারপর আগুন লাগার পরপরই আমাদের মাঝের কেউ জলজ্যোৎস্নার শরীর থেকে জ্বলন্ত শাড়ী দ্রুত খুলে ফেলে এবং জল ঢালে মূলত…

বিস্তারিত পড়ুন...